X
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

অধ্যাপক আসিফ নজরুলকে ‘হয়রানি’র প্রতিবাদে নাগরিক সমাবেশ 

আপডেট : ২০ আগস্ট ২০২১, ১৫:২৩

রাষ্ট্রদ্রোহিতার অভিযোগ এনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) আইন বিভাগের অধ্যাপক ও চেয়ারম্যান ড. আসিফ নজরুলের বিভাগীয় কক্ষে ছাত্রলীগ ও মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের তালা দেওয়াকে ‘হয়রানি’ আখ্যা দিয়ে এর প্রতিবাদে ‘নাগরিক সমাবেশ’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (২০ আগস্ট) সকাল সাড়ে ১১টায় রাজধানীর শাহবাগ জাতীয় জাদুঘরের সামনে এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত। 

সমাবেশে আসিফ নজরুলকে বাংলাদেশের সবচেয়ে গৌরবোজ্জ্বল শিক্ষকদের একজন উল্লেখ করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। ছাত্রলীগ এই শিক্ষককে অপমান করেছে উল্লেখ করে তার কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানান। তিনি প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ করে বলেন, আপনি কথা দিয়েছিলেন, নিরাপদ সড়ক আন্দোলন যারা করেছিল; সেই ছাত্রদের নামে কোনও মামলা হবে না। অথচ তিনবছর ধরে সে মামলা ঝুলছে। আর নরেন্দ্র মোদির আগমনের প্রতিবাদ করায় এখনও ৫৪ জন ছাত্রের এখনে জামিন হয়নি। শুধু জামিন না, সম্পূর্ণ মামলা প্রত্যাহার করা উচিত। তবেই আসিফ নজরুল যে ভয় করেছেন- কাবুলের দৃশ্য দেখতে হবে না। নতুবা কাবুলে দৃশ্যের পুনরাবৃত্তি হওয়া আশ্চর্যের কিছু না।

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অধ্যাপক আসিফ নজরুল একটা স্ট্যাটাস দিয়েছেন যে- সুষ্ঠু নির্বাচন হলে কাবুল বিমানবন্দর ধরনের দৃশ্য বাংলাদেশও হতে পারে। তিনি সেখানে কারও নাম না বললেও ওনারা (সরকার) বুঝেছেন, আসিফ নজরুল না বললেও মানুষ বুঝবে তিনি ওনাদের কথাই বলেছেন। তোরা যদি না পালাস তাহলে বল, আমরা দেশেই থাকবো পালাবো না। এটা বলার ক্ষমতা তাদের নাই। ... আসল কথা চোরের মনে পুলিশ-পুলিশ। 

এসময় তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) প্রক্টরকে উদ্দেশ করে বলেন, ছাত্রলীগ তালা দিয়েছে প্রক্টর জানে না। গতকাল প্রক্টর ভালো মানুষ সেজেছে, তালা খুলে দিয়েছে। নাসিফ নজরুলের বিরুদ্ধে লাগানো পোস্টার নামিয়ে ফেলা হয়েছে; কেন, আপনি কি পরিচ্ছন্নতা কর্মী? কারা কারা একাজ করেছে তাদের নামে থানায় ডায়েরি (জিডি) করেন। এই প্রক্টর আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের নামে মামলা করেনি? তা যদি হয়ে থাকে এটিও হতে হবে। আমরা আফগানদের পক্ষে নই। আমরা জানি না তালেবান যে সরকার গঠন করবে সেখানে গণতন্ত্র থাকবে কিনা, নারীর স্বাধীনতা থাকবে কিনা।

এসম তিনি করোনাকালে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকা ঢাবি ক্যাম্পাসে শিক্ষকদের নিজেদের মতো করে ক্লাস নেওয়ার ঘোষণা দেওয়ার আহ্বান জানান।

সমাবেশে যোগ দিয়ে ডাকসুর সাবেক ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, আজকে এই প্রোগ্রামে আসার পথে আমাদের পাঁচজনকে আটক করা হয়। গ্রেফতারের পর তারা নাশকতার পরিকল্পনা করছিল বলে গালগল্প সাজানো হয়। এতই যদি বুকের পাটা থেকে থাকে তাহলে সুষ্ঠু নির্বাচন দিয়ে দেখেন, অস্তিত্ব খুঁজে পাবেন না। সংবিধান যেখানে নাগরিকদের সভা-সমাবেশ, মিছিল-মিটিং করার স্বাধীনতা নিশ্চিত করেছে, সেখানে দুই লাইনের স্ট্যাটাস দেওয়ার কারণে ছাত্রলীগের গুন্ডারা, আবরারের হত্যাকারী, চাঁদাবাজ-টেন্ডারবাজরা অধ্যাপক আসিফ নজরুলের কক্ষে তালা মেরেছে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, একজন চেয়ারম্যানের কক্ষে কীভাবে ছাত্রলীগের দুর্বৃত্তরা তালা লাগায়। আপনারা যদি ছাত্রলীগের এই দুর্বৃত্তকে প্রশ্রয় দেন, গণতন্ত্রকামী ছাত্র-শিক্ষক-জনতাকে হয়রানি করেন- এর পরিণতি কিন্তু ভালো হবে না। আসিফ নজরুল স্যারের লাঞ্ছনা ও অপমানের সাথে যারা জড়িতদের অতিদ্রুত আইনের আওতায় আনতে হবে এবং নাটক বাদ দিয়ে সেপ্টেম্বর থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে হবে।

গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়ক জোনায়েদ সাকি বলেন, বাংলা ভাষায় একটি প্রবাদ আছে 'ঠাকুর ঘরে কে রে, আমি কলা খাই নি'। ড. আসিফ নজরুলের দুই লাইনের একটি স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে যা হয়েছে তাতে অনেকেই আমাদের এই প্রবাদ মনে করিয়ে দিচ্ছে। এই স্ট্যাটাসের কারণে  সরকারের পায়ের তলার মাটি কেঁপে উঠেছে। বর্তমান ক্ষমতাসীন সরকার আফগানিস্তানের দৃশ্যে যেনো নিজেদের ভবিষ্যত দেখেছে। তা না হলে কেন তারা আসিফ নজরুলের উপর উঠে-পড়ে লেগেছে! বর্তমান সরকারেরও এই পরিণতি হবে তখন প্লেনের চাকা ধরে দেশ থেকে পালাতে হবে। ডিজিটাল সিকিউরিটি আইন হলো নাগরিকদের টুটি চেপে ধরার আইন। আমাদের যে আন্দোলন-সংগ্রাম তা হলো এই আইন বাতিল করে সরকারকে হটিয়ে বিজয় অর্জন করার আন্দোলন। 

এসময় তিনি চন্দ্রিমা উদ্যানে বিএনপি নেতাদের উপর ‘হামলা-লাঠিচার্জ’ এর নিন্দা জ্ঞাপন করে অবলম্বে অন্তর্বর্তীকালীন সরকার গঠন করে সুষ্ঠু নির্বাচন দেওয়ার জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানান। 

সমাবেশে মোহাম্মদ রাশেদ খানের সঞ্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক জাহিদ সুজন, মুক্তিযুদ্ধা দলের আহ্বায়ক ইশতিয়াক আজিজুল হক, ঢাবি রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক নুরুল আলম ব্যাপারী, নাগরিক ঐক্যের সমন্বয়ক শহীদুল্লাহ কায়সারসহ ছাত্র অধিকার, যুব অধিকার ও মহিলা অধিকার পরিষদের বিভিন্ন নেতৃবৃন্দ।

/ইউএস/

সম্পর্কিত

ঢাবিতে ৭৬তম জাতিসংঘ দিবস উদযাপন

ঢাবিতে ৭৬তম জাতিসংঘ দিবস উদযাপন

১৯ মাস পর প্রাণ ফিরেছে জাবি ক্যাম্পাসে

১৯ মাস পর প্রাণ ফিরেছে জাবি ক্যাম্পাসে

পরীক্ষা দিয়েও ১৬০০ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত, ওয়েসাইট থেকে সরলো ফল

পরীক্ষা দিয়েও ১৬০০ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত, ওয়েসাইট থেকে সরলো ফল

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮:১৬

প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত গুচ্ছ পদ্ধতিতে দেশের ২০টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ভর্তি পরীক্ষার ‘বি’ ইউনিটের ফলাফল প্রকাশ হয়েছে। 

মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বিকাল ৫টায় গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে (https://gstadmission.ac.bd) ফল প্রকাশ করা হয়। ইউজার আইডি ও পাসওয়ার্ড দিয়ে ফল জানা যাবে।

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার কোর কমিটির যুগ্ম আহ্বায়ক ও শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ জানান, পরীক্ষার ফল ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে। পরীক্ষার ১০০ নম্বরের ভেতর ৯৩.৭৫ পেয়ে এক শিক্ষার্থী প্রথম হয়েছেন। এ ছাড়া সর্বনিম্ন স্কোর মাইনাস ৭ পেয়েছেন এক শিক্ষার্থী। এ দিকে দুইটা উত্তরপত্র বাতিল হয়েছে এবং টেকনিক্যাল সমস্যার কারণে তিন জনের ফল প্রকাশ করা সম্ভব হয়নি।

গুচ্ছ পদ্ধতির ভর্তি কমিটি সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ অক্টোবর সারাদেশে ২২টি কেন্দ্রে একযোগে গুচ্ছভুক্ত ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সাড়ে তিন হাজার আসনের বিপরীতে আবেদন করেন ৬৭ হাজার ১১৭ জন পরীক্ষার্থী। এর মধ্যে প্রায় ৯৫ শতাংশ শিক্ষার্থী ‘বি’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়। আগামী ১ নভেম্বর বেলা ১২টা থেকে ১টা পর্যন্ত ২২টি কেন্দ্রে বাণিজ্য বিভাগের (‘সি’ ইউনিট) ভর্তি পরীক্ষা হবে।

উল্লেখ্য, গুচ্ছ পদ্ধতিতে অংশ নেওয়া শিক্ষার্থীরা প্রাপ্ত স্কোর পাওয়ার পর গুচ্ছভুক্ত ২০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজ নিজ ভর্তি নির্দেশিকা ও ভর্তির শর্তপূরণ সাপেক্ষে আবেদনের প্রেক্ষিতে ভর্তির সুযোগ পাবেন। 

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

চবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু আগামীকাল

চবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু আগামীকাল

জবির মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি পরীক্ষা দিলেন ৩ শিক্ষার্থী

জবির মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি পরীক্ষা দিলেন ৩ শিক্ষার্থী

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় শাবিতে উপস্থিতি ৯৫ শতাংশ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় শাবিতে উপস্থিতি ৯৫ শতাংশ

পরীক্ষা দিতে এলেন মেয়ে, কিউআর কোড বলছে ছেলে 

পরীক্ষা দিতে এলেন মেয়ে, কিউআর কোড বলছে ছেলে 

চবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু আগামীকাল

আপডেট : ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৪২

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতকের (সম্মান) ভর্তি পরীক্ষা আগামীকাল (২৭ অক্টোবর) শুরু হচ্ছে। প্রথম দিনে ‘বি’ ইউনিটের দুইটি শিফটে পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন ৪২ হাজার ৬৬৭ জন। মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) বিকালে উপাচার্যের কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানানো হয়।

উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার বলেন, পরীক্ষায় যেকোনও ধরনের জালিয়াতি রোধে বিপুল পরিমাণ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা মাঠে থাকবে। সাদা পোশাকেও অবস্থান করবে কয়েকটি গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা। যাতায়াতের সুবিধার্থে শাটল ট্রেনের যাতায়াত বাড়ানো হবে কয়েক গুণ। মোট ১১ দফায় শাটল ট্রেন নগরীর বটলতলী স্টেশন থেকে ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসবে এবং ক্যাম্পাস থেকে শহরের উদ্যেশ্যে ছেড়ে যাবে। 

তিনি বলেন, করোনাকালীন পরিস্থিতি বিবেচনায় সকাল-দুপুর দুই পর্বে পরীক্ষা হবে। সকালের পর্বের ভর্তিচ্ছুদের পৌনে ১০টায় কেন্দ্রে প্রবেশ করতে হবে। ওএমআর ফরম বিতরণ করা হবে সোয়া ১০টায়। প্রশ্নপত্র বিতরণ করা হবে বেলা ১১টায়। পরীক্ষা শেষ হবে দুপুর ১২টায়। অন্যদিকে দুপুরের পর্বে ভর্তিচ্ছুরা সোয়া ২টায় কেন্দ্রে প্রবেশ করবেন। ওএমআর ফরম বিতরণ করা হবে পৌনে ৩টায়। প্রশ্নপত্র বিকাল সাড়ে ৩টায় বিতরণ করা হবে। আর পরীক্ষা শেষ হবে বিকাল সাড়ে ৪টায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকাশিত বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, চারটি ইউনিট ও দুটি উপ-ইউনিটের পরীক্ষা চলবে আগামী ৫ নভেম্বর পর্যন্ত। ২৭ ও ২৮ অক্টোবর ‘বি’ ইউনিট, ২৯ অক্টোবর ‘সি’ ইউনিট, ৩০ ও ৩১ অক্টোবর ‘ডি’ ইউনিট এবং ১ ও ২ নভেম্বর ‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা হবে। 

এ ছাড়া ৫ নভেম্বর ‘বি-১’ও ‘ডি-১’ উপ-ইউনিটের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। সবগুলো ইউনিটের পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবেন মোট এক লাখ ৮৩ হাজার ৮৬৩ জন শিক্ষার্থী। সেই হিসাবে প্রতি আসনের বিপরীতে লড়বে ৩৭ জন শিক্ষার্থী।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

জবির মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি পরীক্ষা দিলেন ৩ শিক্ষার্থী

জবির মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি পরীক্ষা দিলেন ৩ শিক্ষার্থী

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় শাবিতে উপস্থিতি ৯৫ শতাংশ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় শাবিতে উপস্থিতি ৯৫ শতাংশ

পরীক্ষা দিতে এলেন মেয়ে, কিউআর কোড বলছে ছেলে 

পরীক্ষা দিতে এলেন মেয়ে, কিউআর কোড বলছে ছেলে 

জবির মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি পরীক্ষা দিলেন ৩ শিক্ষার্থী

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩৯

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) কেন্দ্রের অধীন গুচ্ছভুক্ত ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘বি’ ইউনিটের পরীক্ষায় বিশেষ ব্যবস্থাপনায় অংশ নিয়েছেন তিন পরিক্ষার্থী। রবিবার (২৪ অক্টোবর) দেশের ২২টি কেন্দ্রে ৬৭ হাজার ১১৭ পরীক্ষার্থীর মধ্যে জবি কেন্দ্রে আসন ছিল সাত হাজার ৭৯৩ জন পরীক্ষার্থীর। 

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, জবিতে চার জন বিশেষ শিক্ষার্থী আবেদন করলেও অংশগ্রহণ করেন তিন জন। তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিক্যাল সেন্টারে পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়। এরমধ্যে একজন শারীরিকভাবে প্রতিবন্ধী, একজন দৃষ্টি শক্তিহীন ও অপরজন অন্তঃসত্ত্বা। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. ইমদাদুল হক বলেন, ‘সমস্যায় থাকা ওই শিক্ষার্থী যাতে অন্যদের মতো বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হওয়ার সুযোগ পান সে জন্যই বিশেষ ব্যবস্থাপনায় পরীক্ষা নেওয়া হয়েছে। ভবিষ্যতে বিশেষ শিক্ষার্থীদের জন্য আমরা আরও সহায়তার হাত বাড়িয়ে দেবো।’

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

চবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু আগামীকাল

চবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু আগামীকাল

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় শাবিতে উপস্থিতি ৯৫ শতাংশ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষায় শাবিতে উপস্থিতি ৯৫ শতাংশ

পরীক্ষা দিতে এলেন মেয়ে, কিউআর কোড বলছে ছেলে 

পরীক্ষা দিতে এলেন মেয়ে, কিউআর কোড বলছে ছেলে 

রিট তোলার শর্তে রাবি শিক্ষককে সভাপতি নিয়োগের প্রস্তাব

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৪৪

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ক্রপ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক মু. আলী আসগরকে রিট তুলে নিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে। বিনিময়ে তাকে সভাপতি নিয়োগের প্রস্তাব দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে পাঠানো এক চিঠিতে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়। তবে অধ্যাপক আলী আসগর বলছেন, তিনি রিট পিটিশন তুলবেন না।

গত ৭ অক্টোবর রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আব্দুস সালাম স্বাক্ষরিত ওই চিঠিতে বলা হয়, বিশ্ববিদ্যালয়ের লিগ্যাল সেলের মতামত অনুসারে ওই চিঠি ইস্যুর তারিখ হতে সাত দিনের মধ্যে রিট পিটিশনটি তুলে নেওয়ার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র অফিসে (রেজিস্ট্রার দফতর) দাখিলের অনুরোধ করা হলো। রিট পিটিশন তুলে নেওয়া হলে মু. আলী আসগরকে ক্রপ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগে সভাপতি হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিধি অনুসারে নিয়োগ দেওয়া হবে। 

এ ব্যাপারে অধ্যাপক আলী আসগর বলেন, ‘আমি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রস্তাবে রাজি না। নিঃশর্তে বিভাগের চেয়ারম্যান হিসেবে যোগদান করতে চাই। এটা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় আইন ১৯৭৩ অনুযায়ী আমার অধিকার।’

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের জ্যেষ্ঠতার ক্রমানুসারে অধ্যাপক সাইফুল ইসলামের পরে বিভাগের সভাপতি হিসেবে আলী আসগর নিয়োগ পাওয়ার কথা। সাইফুল ইসলামের সভাপতির মেয়াদ শেষ হয় ২০২০ সালের ৮ মে। কিন্তু তার পরবর্তীতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন জ্যেষ্ঠতার ক্রম লঙ্ঘন করে অধ্যাপক আলী আসগরের পরিবতর্তে আবুল কালাম আজাদকে সভাপতি নিয়োগ দেয়।

এই ঘটনায় ওই বছরের জুনে হাইকোর্টে রিট করেন অধ্যাপক আলী আসগর। রিট পিটিশনে ওই বছরের ২৭ সেপ্টেম্বর তাকে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় আইন-১৯৭৩ অনুযায়ী ক্রপ সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি বিভাগের সভাপতি হিসেবে নিয়োগ প্রদানে কেন উপাচার্য ও রেজিস্ট্রারকে নির্দেশনা প্রদান করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।  

বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার অধ্যাপক আব্দুস সালাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের লিগ্যাল সেলের পরামর্শে রিট তোলার অনুরোধ করেছি। সাত কার্যদিবস শেষ হয়েছে। অধ্যাপক আলী আসগর এখনও উত্তর জানাননি। এখন লিগ্যাল সেলের সঙ্গে কথা বলে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ

চবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু আগামীকাল

চবিতে ভর্তি পরীক্ষা শুরু আগামীকাল

জবির মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি পরীক্ষা দিলেন ৩ শিক্ষার্থী

জবির মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি পরীক্ষা দিলেন ৩ শিক্ষার্থী

আবাসিক হলে শাবি শিক্ষার্থীদের ফুল-মাস্কে বরণ

আবাসিক হলে শাবি শিক্ষার্থীদের ফুল-মাস্কে বরণ

আবাসিক হলে শাবি শিক্ষার্থীদের ফুল-মাস্কে বরণ

আপডেট : ২৫ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৩০

দীর্ঘ ১৯ মাস পর আবাসিক হলে ফিরতে শুরু করেছেন শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক শিক্ষার্থীরা। ফুল, কেক, চকলেট, হলের নাম ও লোগো সম্বলিত মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে আবাসিক শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিচ্ছে বিভিন্ন হলের কর্তৃপক্ষ। শিক্ষার্থীদেরকে হলে উঠতে দেখাতে হচ্ছে অন্তত একডোজ করোনা টিকা নেওয়ার প্রমাণপত্র। এজন্য হলগুলোর গেটে চেয়ার-টেবিল নিয়ে বসেছেন হলের কর্মচারীরা। 

এদিকে সোমবার (২৫ অক্টোবর) সকাল ১০টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে অনলাইনে ‘হলে প্রত্যাবর্তন’ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন শাবি উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।  

 এ সময় উপাচার্য বলেন, দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর আমাদের আবাসিক হল খুলে দেওয়া হয়েছে। এতে শিক্ষার্থীদের পদচারণায় ক্যাম্পাস আবারো প্রাণ ফিরে পাবে। সামনে আরও নতুন নতুন হল হবে, এগুলো সম্পূর্ণ আধুনিক ব্যবস্থাপনায় তৈরি করা হবে। ইতোমধ্যে আমরা শিক্ষার্থীদের এক ডোজ টিকা নিশ্চিতের ব্যবস্থা করেছি। তবুও কোনও শিক্ষার্থী বাদ পড়লে তাদের দ্রুত টিকার আওতায় নিয়ে আসবো। এছাড়া শিক্ষার্থীদের হলে থাকতে হলে বৈধতা থাকতে হবে। বৈধতা ছাড়া কোনও শিক্ষার্থী হলে থাকতে পারবেন না। 

কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে ফিরছে। আমরা করোনা থেকে সুরক্ষার জন্য সবাইকে টিকার আওতায় নিয়ে আসতে চেষ্টা করছি। এজন্য ক্যাম্পাসেই টিকা দেওয়া হচ্ছে। শিক্ষার্থীদেরকে ক্যাম্পাসে সর্বোচ্চ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম শৃঙ্খলা অবশ্যই সকলকে মেনে চলতে হবে। রেজিস্ট্রেশন ছাড়া কোনও শিক্ষার্থীকে হলে না থাকার আহ্বান জানান তিনি।  

আবাসিক হলে ছাত্রীদের বরণ করতে ছিল কেক-মিষ্টির আয়োজন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আনোয়ারুল ইসলাম, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক অধ্যাপক জহির উদ্দিন আহমেদ, প্রক্টর ড. মো. আলমগীর কবীর, রেজিস্ট্রার মুহাম্মদ ইশফাকুল হোসেন প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান হলের প্রভোস্ট সহযোগী অধ্যাপক মোহাম্মদ সামিউল ইসলাম।  এছাড়া অনুষ্ঠানে অনলাইনে যুক্ত ছিলেন শাহপরান হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান খান, সৈয়দ মুজতবা আলী হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. আবু সাইদ আরেফিন খান নোবেল, প্রথম ছাত্রী হলের প্রভোস্ট অধ্যাপক ড. জায়েদা শারমিন, বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের ভারপ্রাপ্ত প্রভোস্টসহ বিভিন্ন হলের সহকারী প্রভোস্টবৃন্দ, আবাসিক শিক্ষার্থীবৃন্দ ও বিভিন্ন হলের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা। 

 

/টিটি/

সম্পর্কিত

সাস্ট ক্লাবের নতুন কমিটির শপথ ও দায়িত্ব গ্রহণ 

সাস্ট ক্লাবের নতুন কমিটির শপথ ও দায়িত্ব গ্রহণ 

শাবির নৃবিজ্ঞান বিভাগের দায়িত্ব নিলেন অধ্যাপক জাকারিয়া

শাবির নৃবিজ্ঞান বিভাগের দায়িত্ব নিলেন অধ্যাপক জাকারিয়া

মঙ্গলবার থেকে শাবির মেডিক্যাল সেন্টারে টিকা দেওয়া শুরু

মঙ্গলবার থেকে শাবির মেডিক্যাল সেন্টারে টিকা দেওয়া শুরু

শাবিপ্রবিতে ঢাবির ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা চলছে

শাবিপ্রবিতে ঢাবির ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা চলছে

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ঢাবিতে ৭৬তম জাতিসংঘ দিবস উদযাপন

ঢাবিতে ৭৬তম জাতিসংঘ দিবস উদযাপন

১৯ মাস পর প্রাণ ফিরেছে জাবি ক্যাম্পাসে

১৯ মাস পর প্রাণ ফিরেছে জাবি ক্যাম্পাসে

পরীক্ষা দিয়েও ১৬০০ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত, ওয়েসাইট থেকে সরলো ফল

রাবির ‘বি’ ইউনিটে ভর্তিপরীক্ষা দিয়েও ১৬০০ শিক্ষার্থী অনুপস্থিত, ওয়েসাইট থেকে সরলো ফল

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

চবিতে ১৯ অক্টোবর ক্লাস শুরুর পর ১৬ দিনের ছুটি

সব বর্ষের শিক্ষার্থীরা ঢাবি হলে, ফুল-চকলেট-মাস্কে বরণ

সব বর্ষের শিক্ষার্থীরা ঢাবি হলে, ফুল-চকলেট-মাস্কে বরণ

হাবিপ্রবিতে ছয় মাসের সেমিস্টার শেষ হবে ৪ মাসে 

হাবিপ্রবিতে ছয় মাসের সেমিস্টার শেষ হবে ৪ মাসে 

দেড় বছর পর আবারও মুখরিত মধুর ক্যান্টিন

দেড় বছর পর আবারও মুখরিত মধুর ক্যান্টিন

ফুল-চকলেট-মাস্কে ঢাবি শিক্ষার্থীদের বরণ

ফুল-চকলেট-মাস্কে ঢাবি শিক্ষার্থীদের বরণ

তিন শিফটে চলছে রাবির ‌‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা 

তিন শিফটে চলছে রাবির ‌‘এ’ ইউনিটের পরীক্ষা 

স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাকৃবিতে ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা 

স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাকৃবিতে ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা 

সর্বশেষ

রাঙামাটিতে নির্বাচনী সহিংসতায় প্রাণ গেলো ইউপি সদস্যের

রাঙামাটিতে নির্বাচনী সহিংসতায় প্রাণ গেলো ইউপি সদস্যের

সাতক্ষীরায় ১০ সাংবাদিক পেলেন মিডিয়া ফেলোশিপ

সাতক্ষীরায় ১০ সাংবাদিক পেলেন মিডিয়া ফেলোশিপ

বুয়েটে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

বুয়েটে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

বিশ্বকাপ শেষ সাইফউদ্দিনের, মূল দলে রুবেল

বিশ্বকাপ শেষ সাইফউদ্দিনের, মূল দলে রুবেল

আর কত সুযোগ পাবেন লিটন?

আর কত সুযোগ পাবেন লিটন?

© 2021 Bangla Tribune