X
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১১ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

স্কুলছাত্রীকে নিয়ে পালিয়েছে ছেলে, সহায়তার অভিযোগ বাবার বিরুদ্ধে

আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৯:২২

ঝালকাঠির রাজাপুরে বাবা ও ছেলের বিরুদ্ধে এক স্কুলছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। শনিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাতে ভুক্তভোগী ছাত্রীর ফুপু বাদী হয়ে অভিযুক্তদের আসামি করে রাজাপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্তরা পলাতক রয়েছে। ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী উপজেলার আদাখোলা গ্রামের আদাখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী।

অভিযুক্তরা হলো উপজেলার আরুয়া এলাকার মো. হোচেন হাওলাদারের ছেলে মো. ইব্রাহীম হাওলাদার (৫০) ও তার ছেলে হাসিব হাওলাদার (২০)।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, একই এলাকার হাসিব ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীকে স্কুলে আশা যাওয়ার পথে বিভিন্ন সময় প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। ঘটনার দিন গত ২১ সেপ্টেম্বর সকাল সাতটার দিকে ভুক্তভোগী তার বাড়ির সামনে হাঁটতে বের হলে হাসিব তাকে জোর করে মোটরসাইকেলে তুলে তাদের বাড়িতে নিয়ে আটকে রাখে। পরে স্কুলছাত্রীর পরিবার খবর পেয়ে হাসিবের বাড়িতে স্থানীয় লোকজন নিয়ে উপস্থিত হলে সেখান থেকে হাসিব তার বাবা ইব্রাহীমের সহায়তায় স্কুলছাত্রীকে নিয়ে পালিয়ে যায়।

রাজাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার ও আসামি গ্রেফতারে অভিযান চলছে। 

/টিটি/

সম্পর্কিত

চেয়ারম্যানের নির্দেশ ছাড়া চুল কাটা যাবে না

চেয়ারম্যানের নির্দেশ ছাড়া চুল কাটা যাবে না

মনপুরায় গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেফতার

মনপুরায় গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেফতার

করোনায় আক্রান্ত শের-ই বাংলা মেডিক্যালের ৪২৬ নার্স, প্রণোদনা পাননি একজনও

করোনায় আক্রান্ত শের-ই বাংলা মেডিক্যালের ৪২৬ নার্স, প্রণোদনা পাননি একজনও

প্রথম দিনেই বরিশালের মোকামে ২০ হাজার মণ ইলিশ

প্রথম দিনেই বরিশালের মোকামে ২০ হাজার মণ ইলিশ

৩১৯০ কেজি সরকারি চালসহ ট্রাকচালক গ্রেফতার

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৯:০৪

বগুড়ার ধুনটে পাচারের সময় ট্রাকভর্তি সরকারি তিন হাজার ১৯০ কেজি ভিজিডি, খাদ্যবান্ধব ও পুষ্টি কর্মসূচির চাল জব্দ করা হয়েছে। বুধবার সকালে ৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে পুলিশ উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের কাছ থেকে ৬৫ বস্তা চালসহ ট্রাকচালক শাহ্ আলমকে (৩৮) গ্রেফতার করেছে। এ ব্যাপারে এসআই আসাদুজ্জামান থানায় তিন জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

অপর দুই আসামি হলেন– কালেরপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারেজ উদ্দিন আকন্দের ভাই ঈশ্বরঘাট গ্রামের জালাল উদ্দিনের ছেলে ডিলার আমিনুল ইসলাম ঠান্ডু এবং এলাঙ্গী গ্রামের শামসুল প্রামাণিকের ছেলে মিঠু প্রামাণিক।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার সকালে ধুনট উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের কাছে রোহান এন্টারপ্রাইজের একটি ট্রাকে (ঢাকা মেট্টো-ন-১৭-৫৫১০) ৬৫ বস্তায় থাকা ওই চাল বোঝাই করা হয়। এর মধ্যে ৫০ কেজি ওজনের ৬২ বস্তা এবং ৩০ কেজির তিন বস্তা ছিল। এ সময় সরকারি চাল পাচারের ঘটনা টের পেয়ে স্থানীয় এক যুবক জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেন। খবর পেয়ে ধুনট থানা পুলিশ ট্রাকভর্তি চাল জব্দ করে। এ সময় চাল পাচারকারী ডিলার ঠান্ডু ও মিঠু পালিয়ে গেলে ট্রাকচালক সিরাজগঞ্জের কাজিপুর উপজেলার পারুলকান্দি গ্রামের বিশা প্রামাণিকের ছেলে শাহ আলমকে গ্রেফতার করা হয়। চালগুলো কালেরপাড়া ইউনিয়নের কান্তনগর বাজারে দুস্থদের মাঝে বিতরণের কথা ছিল।

ধুনট থানার ওসি কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, ‘কালেরপাড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হারেজের ভাই ডিলার ঠান্ডু এবং তার সহযোগী মিঠু সরকারি ভিজিডি, খাদ্যবান্ধব ও পুষ্টি কর্মসূচির চাল পাচারে জড়িত। এসআই আসাদুজ্জামান থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে ওই দুজন ও চালকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। বিকালে চালক শাহ আলমকে আদালতের মাধ্যমে বগুড়া জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। মূল হোতা মিঠু ও ঠান্ডুকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।’

/এমএএ/

সম্পর্কিত

ঘটনার বর্ণনা দিলেন চুল কেটে দেওয়া ভুক্তভোগী ১৪ শিক্ষার্থী

ঘটনার বর্ণনা দিলেন চুল কেটে দেওয়া ভুক্তভোগী ১৪ শিক্ষার্থী

চলন্ত ট্রাক থেকে মাল চুরির চেষ্টা, প্রাণ গেলো যুবকের

চলন্ত ট্রাক থেকে মাল চুরির চেষ্টা, প্রাণ গেলো যুবকের

সিরাজগঞ্জে পুলিশ-যুবদল সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

সিরাজগঞ্জে পুলিশ-যুবদল সংঘর্ষে আহত অর্ধশতাধিক

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ইউজিসির প্রতিনিধিরা, ডাকা হয়েছে সেই শিক্ষিকাকে

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে ইউজিসির প্রতিনিধিরা, ডাকা হয়েছে সেই শিক্ষিকাকে

জামালপুরে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে সমাবেশ

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৫১

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের নির্দেশে জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে অসাম্প্রদায়িক, সম্প্রীতি ও শান্তির সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) দুপুরে একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সরিষাবাড়ী উপজেলা শাখার উদ্যোগে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যালয়ের সামনে থেকে শান্তির শোভাযাত্রা বের করা হয়। প্রধান সড়কগুলো প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদ চত্বরে গিয়ে সমাবেশে মিলিত হন নেতাকর্মীরা।

সমাবেশে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছানোয়ার হোসেন বাদশা সভাপতিত্ব করেন। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সরিষাবাড়ী উপজেলা শাখার সভাপতি আ.ফ.ম ডা. শাহান শাহ মোল্লাহ, জেলা আওয়ামী লীগের উপ-দফতর সম্পাদক জহুরুল ইসলাম মানিক, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি জেলা শাখার আহ্বায়ক মুক্তা আহমেদ, একাত্তরের ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটি সরিষাবাড়ী উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক রমেশ চন্দ্র সুত্রধর, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি এ কে এম আশরাফুল ইসলাম, পৌর কাউন্সিলর সাখাওয়াত আলম মুকুল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি প্রার্থী শরীফ আহমেদ নীরব প্রমুখ। সমাবেশে আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, জামায়াত-বিএনপি গুজব ছড়ালে এবং শান্তি নষ্ট করতে চাইলে তা রোধে সবাইকে একযোগে প্রতিরোধ করতে হবে। এ বিষয়ে সবাইকে সোচ্চার হওয়ার ও সচেতন থাকার আহ্বান জানান তারা।

/এএম/

সম্পর্কিত

খুঁটির বদলে গাছ ও বাঁশে বিদ্যুতের লাইন

খুঁটির বদলে গাছ ও বাঁশে বিদ্যুতের লাইন

বুয়েটে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

বুয়েটে ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থীর মরদেহ উদ্ধার

একটি সেতুর জন্য পাঁচ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ

একটি সেতুর জন্য পাঁচ গ্রামের মানুষের দুর্ভোগ

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা সেজে কোটিপতি, নিয়েছেন সরকারি ফ্ল্যাট

যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধা সেজে কোটিপতি, নিয়েছেন সরকারি ফ্ল্যাট

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সংশোধনের প্রয়োজন আছে: ইনু

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৪৯

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের সংশোধনীর প্রয়োজন রয়েছে বলে মনে করেন জাসদ সভাপতি ও সাবেক তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। তিনি বলেছেন, ‘যাতে করে মূলধারার গণমাধ্যমকর্মীরা আইনের অপপ্রয়োগ থেকে রক্ষা পায়।’

বুধবার (২৭ অক্টোবর) দুপুরে সাতক্ষীরা জেলা জাসদের সম্মেলনে যোগ দেওয়ার আগে সার্কিট হাউজে গণমাধ্যমকর্মীদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

আরেক প্রশ্নের জবাবে ইনু বলেন, ‘দেশের ৫০টি জায়গায় সশস্ত্র সাম্প্রদায়িক হামলা হয়েছে। এই হামলার দায় প্রশাসনের ওপর বর্তায়। দেশে কখনও মন্দিরে, কখনও আহমদিয়া সম্প্রদায়ের ওপর আবার কখনও সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা হচ্ছে। এটা দেশের জন্য শুভ লক্ষণ নয়। আগামীতে আর কোথাও সাম্প্রদায়িক হামলা হবে না, এর গ্যারান্টি দেওয়ায় হচ্ছে রাজনৈতিক দল বা সরকারের প্রধান চ্যালেঞ্জ।’

সাম্প্রদায়িক কর্মচারীদের নিষ্ক্রিয়তা ও অসাম্প্রদায়িক দলে সাম্প্রদায়িক শয়তানদের অনুপ্রবেশের ফলে ধর্মের নামে দেশে সাম্প্রদায়িক সহিংসতা ঘটছে বলেও জানান তিনি। তিনি সাম্প্রদায়িক সহিংসতা রোধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। 

তত্ত্বাবধায়ক সরকার প্রশ্নে ইনু বলেন, ‘বিএনপি নিরপেক্ষ নির্বাচন চায় নাকি সরকার বদল করতে চায় এ প্রশ্ন বড় হয়ে দেখা দিয়েছে। তারা সাংবিধানিক সরকারকে হটিয়ে একটা অস্বাভাবিক ভূতের সরকার প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখে। পূজায় হামলা দেশের রাজনৈতিক পরিস্থিতিকে ঘোলা করার ষড়যন্ত্র।’

তিনি বলেন, ‘তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির বিস্তারের মাধ্যমে একটি ডিজিটাল জগৎ তৈরি হয়েছে। সেই ডিজিটাল জগৎ সাম্প্রদায়িক শক্তি ও সাইবার অপরাধীদের আক্রমণের মুখে। নারীর চরিত্র হনন করা হচ্ছে এর মাধ্যমে। সুতরাং সাইবার নিরাপত্তা এখন মানবাধিকার রক্ষার মৌলিক কাজ। তবে এর অপপ্রয়োগ হচ্ছে। এই অপপ্রয়োগ রোধে কিছু সংশোধনী আনা দরকার।’

১৪ দলীয় জোটের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে ইনু বলেন, ‘জঙ্গিদের ধ্বংস, ঘর কাটা ইঁদুর এবং দুর্নীতিবাজদের ধ্বংস করতে ১৪ দলের প্রয়োজনীয়তা রয়েছে।’

/এফআর/

সম্পর্কিত

বিয়ে দিতে বাবার অসম্মতির কারণে ছেলের আত্মহত্যার অভিযোগ

বিয়ে দিতে বাবার অসম্মতির কারণে ছেলের আত্মহত্যার অভিযোগ

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে ১৫টি ঘোড়া উপহার দিলো ভারত

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীকে ১৫টি ঘোড়া উপহার দিলো ভারত

পাবজি খেলতে ডেকে ৫ শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

পাবজি খেলতে ডেকে ৫ শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

বাবা-মা-মেয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা, আসামি অজ্ঞাত

বাবা-মা-মেয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা, আসামি অজ্ঞাত

কুড়িয়ে পাওয়া ২ লাখ টাকা ফিরিয়ে দিলেন ভ্যানচালক

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৩৬

দিনাজপুরের হিলিতে সড়কে কুড়িয়ে পাওয়া দুই লাখ টাকা পুলিশের কাছে জমা দিয়েছেন হাফিজার রহমান (৫৭) নামের এক ভ্যানচালক। পরে পুলিশ টাকার প্রকৃত মালিক আবুল বাশারের কাছে সেই টাকা তুলে দিয়েছেন। হারানো টাকা ফেরত পেয়ে খুশি হয়ে মালিক হাফিজার রহমানকে ১০ হাজার টাকা পুরস্কার দেন। টাকার প্রকৃত মালিক টাকা ফিরে পাওয়ায় খুশি ওই ভ্যানচালকও।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) দুপুরে হিলি স্থলবন্দরের চারমাথা মোড়ে ভ্যান চালিয়ে যাওয়ার সময় তিনি সড়কে এ টাকা কুড়িয়ে পান। হাফিজার রহমান হিলির বড় জালালপর গ্রামের মৃত মোজাফ্ফর রহমানের ছেলে।

হাফিজার রহমান বাংলা তিনি ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমি টেম্পু স্ট্যান্ড থেকে যাত্রী নামিয়ে ভ্যান নিয়ে হিলি স্থলবন্দরের চারমাথার দিকে আসছিলাম। এ সময় চারমাথা মোড়ে আর্মি হোটেলের সামনে এক হাজার টাকার নোটের দুই বান্ডিল টাকা পাই। পরে আশপাশের দোকানদারকে টাকা পাওয়ার বিষয়টি জানাই, কিন্তু তারাও মালিকের সন্ধান দিতে পারেননি। পরে আমি বিষয়টি পুলিশকে জানাই। পুলিশ সেই টাকা মালিককে ফেরত দিয়ে দেয়।’

হারিয়ে যাওয়া টাকা বুঝে নিচ্ছেন প্রকৃত মালিক

টাকার মালিক সিঅ্যান্ডএফ ব্যবসায়ী আবুল বাশার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমদানি করা পণ্যের ডিউটি দিতে অফিস থেকে ব্যাগে করে ১৪ লাখ টাকা নিয়ে সোনালি ব্যাংকে জমা দেওয়ার উদ্দেশে যাচ্ছিলাম। ব্যাংকে টাকা জমা দিতে গিয়ে দেখি টাকার দুইটি বান্ডিল অর্থাৎ দুই লাখ টাকা নেই। তখন ধরেই নিয়েছিলাম, টাকা আর পাবো না। এর পর পথে কোথাও হয়তো ব্যাগ থেকে টাকা পড়ে গেছে যা আমি বুঝতে পারিনি। এই ভেবে সড়কের বিভিন্ন জায়গায় টাকার খোঁজ করতে থাকি কিন্তু কোথাও পাইনি। পরে শুনি এক ভ্যানচালক টাকা পেয়ে থানায় জমা দিয়েছে। থানা থেকে উপযুক্ত প্রমাণ দিয়ে টাকাগুলো ফেরত নিয়েছি। সেই সঙ্গে খুশি হয়ে সেই ভ্যানচালককে ১০ হাজার টাকা পুরস্কার হিসেবে দিয়েছি।’

হাকিমপুর থানার ওসি খায়রুল বাশার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘হাফিজার রহমান নামের এক ভ্যানচালক টাকা কুড়িয়ে পেয়ে পুলিশকে জানান। পরে এসআই বেলালসহ পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে পৌঁছে টাকার বান্ডিলসহ হাফিজার রহমানকে সসম্মানে থানায় নিয়ে আসেন। টাকার বান্ডিল দুইটিতে এক লাখ টাকা করে দুই লাখ টাকা ছিল। পরে আমরা প্রকৃত মালিকের সন্ধান করতে থাকি। এরপর প্রকৃত মালিক আবুল বাশারের হাতে প্রমাণ সাপেক্ষে টাকা তুলে দেওয়া হয়। টাকাগুলো ফেরত দিয়ে হাফিজার রহমান সততার নজির স্থাপন করেছেন যা সত্যিই প্রশংসার দাবিদার।’ 

/এফআর/

সম্পর্কিত

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা, সাবেক প্রেমিককে সন্দেহ পুলিশের

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা, সাবেক প্রেমিককে সন্দেহ পুলিশের

বরাদ্দের আগেই প্রতীক নিয়ে প্রার্থীদের প্রচারণা

বরাদ্দের আগেই প্রতীক নিয়ে প্রার্থীদের প্রচারণা

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে শ্রীনগর থানার ওসি প্রত্যাহার

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে শ্রীনগর থানার ওসি প্রত্যাহার

আমদানি বাড়ায় কমেছে পেঁয়াজের দাম

আমদানি বাড়ায় কমেছে পেঁয়াজের দাম

স্কুলছাত্রীকে গলা কেটে হত্যা, সাবেক প্রেমিককে সন্দেহ পুলিশের

আপডেট : ২৭ অক্টোবর ২০২১, ১৮:৩৩

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে সুমাইয়া আক্তার নামে এক স্কুলছাত্রীর গলা কাটা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশের পাশ থেকে মনির মিয়া (১৭) নামে এক কিশোরকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় সুমাইয়ার সাবেক প্রেমিককে সন্দেহ করছে পুলিশ।

বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল পৌনে ৭টার দিকে উপজেলার এলেঙ্গা পৌরসভার শামসুল হক কলেজের সামনের একটি ভবন থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।  

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সুমাইয়ার সঙ্গে মনিরসহ দুই কিশোরের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। আগের প্রেমিককে বাদ দিয়ে মনিরের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে সুমাইয়ার। এরই জেরে সুমাইয়ার সাবেক প্রেমিক এ হত্যাকাণ্ড ঘটাতে পারে। 

সুমাইয়া আক্তার এলেঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ছিল। সে উপজেলার পালিমা গ্রামের ফেরদৌসের মেয়ে। তারা এলেঙ্গা কলেজ মোড় এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে বসবাস করে আসছিল। আহত মনির উপজেলার মশাজান গ্রামের মেহের আলীর ছেলে। মনির বাসের হেলপার।

পুলিশ ও নিহত ছাত্রীর স্বজনরা জানান, সকাল সাড়ে ৬টার দিকে স্থানীয় প্রাইম কোচিং সেন্টারে যাওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হয় সুমাইয়া। স্থানীয়রা এলেঙ্গা সরকারি শামসুল হক কলেজের বিপরীত পাশে খোকন মিয়ার ভবনের সিঁড়িতে সুমাইয়া ও মনিরকে রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। খবর পেয়ে সুমাইয়ার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। 

গুরুতর আহত মনিরকে উদ্ধার করে টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়। এদিকে, নিহত সুমাইয়ার বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। স্বজনদের কান্না ও আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে পরিবেশ।

পৌরসভার শামসুল হক কলেজের সামনের একটি ভবন থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়

সুমাইয়ার চাচা ফিরোজ মিয়া বলেন, ‘আমার ভাই স্ত্রী-সন্তান নিয়ে এলেঙ্গায় ভাড়া বাসায় থাকেন। বখাটেদের অত্যাচারে কিছুদিন আগে তারা বাসা বদল করে এই বাসায় উঠেছেন। কি কারণে এই হত্যাকাণ্ড ঘটেছে বুঝতে পারছি না। অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।’

কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, ‘লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। সুমাইয়ার মুঠোফোন জব্দ করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।’

টাঙ্গাইলের সহকারী পুলিশ সুপার (কালিহাতী সার্কেল) শরিফুল হক বলেন, ‘আহত মনিরসহ দুই জনের সঙ্গে সুমাইয়ার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সুমাইয়ার সাবেক প্রেমিক ক্ষোভে এ হত্যাকাণ্ড ঘটাতে পারে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। খুব দ্রুত আমরা রহস্য উদঘাটন করতে পারবো। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।’

টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসা কর্মকর্তা রাজিব পাল চৌধুরী বলেন, ‘মনিরের গলায়, ঘাড়ে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ছুরি দিয়ে ক্ষতবিক্ষত করা হয়েছে। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।’

/এএম/

সম্পর্কিত

কুড়িয়ে পাওয়া ২ লাখ টাকা ফিরিয়ে দিলেন ভ্যানচালক

কুড়িয়ে পাওয়া ২ লাখ টাকা ফিরিয়ে দিলেন ভ্যানচালক

প্রকাশ্যে হকার হত্যার প্রধান আসামি গ্রেফতার

প্রকাশ্যে হকার হত্যার প্রধান আসামি গ্রেফতার

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে শ্রীনগর থানার ওসি প্রত্যাহার

নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে শ্রীনগর থানার ওসি প্রত্যাহার

সর্বশেষসর্বাধিক
quiz

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

চেয়ারম্যানের নির্দেশ ছাড়া চুল কাটা যাবে না

চেয়ারম্যানের নির্দেশ ছাড়া চুল কাটা যাবে না

মনপুরায় গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেফতার

মনপুরায় গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ, প্রধান আসামি গ্রেফতার

করোনায় আক্রান্ত শের-ই বাংলা মেডিক্যালের ৪২৬ নার্স, প্রণোদনা পাননি একজনও

করোনায় আক্রান্ত শের-ই বাংলা মেডিক্যালের ৪২৬ নার্স, প্রণোদনা পাননি একজনও

প্রথম দিনেই বরিশালের মোকামে ২০ হাজার মণ ইলিশ

প্রথম দিনেই বরিশালের মোকামে ২০ হাজার মণ ইলিশ

ইলিশের উৎপাদন বাড়লেও ভালো নেই জেলেরা

ইলিশের উৎপাদন বাড়লেও ভালো নেই জেলেরা

শত বছরের খাল ভরাট করে রাস্তা নির্মাণ

শত বছরের খাল ভরাট করে রাস্তা নির্মাণ

পাকিস্তানি সমর্থকদের ওপর ভারতীয় সমর্থকদের হামলায় দুই ভাই আহত

পাকিস্তানি সমর্থকদের ওপর ভারতীয় সমর্থকদের হামলায় দুই ভাই আহত

ফেরি যুগের অবসান, খুললো সম্ভাবনার নতুন দুয়ার 

ফেরি যুগের অবসান, খুললো সম্ভাবনার নতুন দুয়ার 

স্বামীকে হত্যার পর ঘরের সামনে দা হাতে বসেছিলেন স্ত্রী

স্বামীকে হত্যার পর ঘরের সামনে দা হাতে বসেছিলেন স্ত্রী

সর্বশেষ

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই সেমিস্টারে শিক্ষার্থী নিতে কেন মরিয়া ইউজিসি?

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে দুই সেমিস্টারে শিক্ষার্থী নিতে কেন মরিয়া ইউজিসি?

ইংলিশ দাপটে সুযোগই পেলো না বাংলাদেশ

ইংলিশ দাপটে সুযোগই পেলো না বাংলাদেশ

৩১৯০ কেজি সরকারি চালসহ ট্রাকচালক গ্রেফতার

৩১৯০ কেজি সরকারি চালসহ ট্রাকচালক গ্রেফতার

দেশের চার বিভাগে মৃত্যু নেই  

দেশের চার বিভাগে মৃত্যু নেই  

সুদানের সদস্যপদ স্থগিত করলো আফ্রিকান ইউনিয়ন

সুদানের সদস্যপদ স্থগিত করলো আফ্রিকান ইউনিয়ন

© 2021 Bangla Tribune