X
বুধবার, ২০ অক্টোবর ২০২১, ৩ কার্তিক ১৪২৮

সেকশনস

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকের বিরুদ্ধে ১৪ শিক্ষার্থীর চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ

আপডেট : ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২২

সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪ ছাত্রের মাথার চুল কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী প্রক্টর ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের বিরুদ্ধে। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পোস্ট দিলে তা মুহূর্তে ভাইরাল হয়। এছাড়াও এ ঘটনায় সোমবার (২৭ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৮টার দিকে নাজমুল নামে ১ম বর্ষের এক শিক্ষার্থী লজ্জায় ঘুমের ওষুধ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেছে বলেও জানা গেছে। বর্তমানে সে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

চুল কেটে দেওয়ার ঘটনাটি ঘটেছে গত ২৬ সেপ্টেম্বর দুপুরে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের প্রথম বর্ষের রাষ্ট্র বিজ্ঞান পরিচিতি বিষয়ের ফাইনাল পরীক্ষার হলে প্রবেশের সময়। এসময় একই বিভাগের সহকারী প্রক্টর রাজিব অধিকারি ও জান্নাতুল ফেরদৌস মুনি উপস্থিত ছিলেন বলেও জানা গেছে। তবে তারা এ ঘটনার প্রতিবাদ না করে সেখানে দর্শকের মতো দাঁড়িয়ে ছিলেন বলেও অভিযোগ উঠেছে।

গত সোমবার দুপুরে ওই বিভাগের বাংলাদেশের ইতিহাস বিষয়ে পরীক্ষা শুরুর আগে লাঞ্ছিত পরীক্ষার্থী ও তাদের সহপাঠীরা এ ঘটনার প্রতিবাদে পরীক্ষা বর্জন করে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন করার জন্য বিসিক বাসস্ট্যান্ড এলাকার রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অস্থায়ী ক্যাম্পাস-১ এর ফটকে জড়ো হন। এসময় একটি পক্ষ তাদের পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেওয়ার ভয়ভীতি দেখিয়ে ও চাপ দিয়ে সবাইকে পরীক্ষার হলে যেতে বাধ্য করে।

জানা গেছে, কয়েকদিন আগে ক্লাস চলাকালে ওই শিক্ষক চুল বড় রাখার বিষয়ে ছাত্রদের সতর্ক করেন। তার ভয়ে সবাই পরদিনই চুল ছোট করে। পরীক্ষার হলে ঢোকার সময় আগে থেকেই দরজার সামনে ওই শিক্ষক কাচি হাতে দাড়িয়ে ছিলেন। যাদের চুল মুঠোর মধ্যে ধরা গেছে, তাদের মাথার সামনের বেশ খানিকটা চুল তিনি কেটে দেন।  সবার সামনে এভাবে তাদের লাঞ্ছিত করার পর ওই শিক্ষক জোর করে তাদের পরীক্ষা দিতেও বাধ্য করেছেন।

এবিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের রবীন্দ্র অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান লায়লা ফেরদৌস হিমেল বলেন, ঘটনাটি গতকাল ঘটেছিল। তারপরে আবার সমাধানও নাকি করা হয়েছিল। কিন্তু ওই শিক্ষক ক্লাস রুমে শিক্ষার্থীদের নাকি আবারও বকাবকি করেন। এ ঘটনায় আজ রাতে একজন শিক্ষার্থী আত্মহত্যার চেষ্টা করে। বর্তমানে সে এনায়েতপুর খাজা ইউনুস আলী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে বলে শুনেছি।

এবিষয়ে সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য ও বাংলাদেশ অধ্যয়ন বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী প্রক্টর ফারহানা ইয়াসমিন বাতেনের সঙ্গে কথা বলার জন্য তার মুঠোফোনে একাধিকবার কল করলেও সাড়া মেলেনি।

রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার ও ভিসির অতিরিক্ত দায়িত্বপ্রাপ্ত আব্দুল লতিফ বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। কোনও লিখিত অভিযোগও পাইনি। অভিযোগ পেলে অবশ্যই তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এমআর/

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ডাক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের 

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৭:১৪

সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলার প্রতিবাদে দেশের বেশ কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন, ‘সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা’ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসব কর্মসূচি থেকে বিশৃঙ্খলার ঘটনায় জড়িতদের শাস্তির দাবি জানিয়েছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। পাশাপাশি ঐক্যবদ্ধভাবে চলমান পরিস্থিতি মোকাবিলা করে সম্প্রীতি বজায় রাখার আহ্বান জানানো হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধিদের পাঠানো তথ্যে পড়ুন বিস্তারিত—

ইবি

দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে মিছিল করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ ও ছাত্র ইউনিয়ন। মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) বেলা সাড়ে ১১টায় এ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। 

সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন সিকৃবি শিক্ষার্থীরা

মিছিল পরবর্তী সমাবেশ থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ ও হামলার সঙ্গে জড়িতদের শাস্তি দাবি করে ছাত্র ইউনিয়ন। একই সময়ে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে ‘সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা’ করে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

চবি

সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলার প্রতিবাদে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি) মানববন্ধন করেছে শিক্ষক সমিতিসহ সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ ও সনাতন ধর্ম পরিষদ। এতে জড়িতদের বিচারের দাবি জানিয়েছেন তারা।

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে মিছিল করেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ ও ছাত্র ইউনিয়ন

শিক্ষক সমিতির মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, কিছু সংখ্যক ব্যক্তি সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে সারাদেশে এসব ঘটনা ঘটিয়েছে। অবিলম্বে সব ঘটনার তদন্ত করে দোষীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। যাতে এমন ঘটনা আর না ঘটে। এই পদক্ষেপ সরকারকেই নিতে হবে।

সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, যে হামলার ঘটনা ঘটেছে, তা বাংলাদেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতিই নয়, দেশের প্রগতিশীল অস্তিত্বের ওপর হুমকিস্বরূপ। এসব হামলার সুষ্ঠু বিচারের দায়িত্ব সরকারের।

কুবি

সাম্প্রদায়িক সহিংসতার প্রতিবাদ মঙ্গেলবার দুপুরে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ মানববন্ধন করেন। নৃ-বিজ্ঞান বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মোহন চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশ নেন।

মানববন্ধনে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া সাম্প্রদায়িক সহিংসতাকে সম্প্রতির বাংলাদেশের একটি কালো অধ্যায় বলে উল্লেখ করেন বক্তারা।

সিকৃবি

দেশের বিভিন্ন স্থানে সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলার প্রতিবাদে ও সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধন করেছেন সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (সিকৃবি) শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন শিক্ষার্থীরা।

চবিতে মানববন্ধন করেছে শিক্ষক সমিতিসহ সাধারণ শিক্ষার্থীবৃন্দ ও সনাতন ধর্ম পরিষদ

ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে প্রধান ফটকের সামনে সমাবেশ আয়োজিত হয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা বলেন, যারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্টের পাঁয়তারা করছে, তারাই এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটিয়েছে। বাংলাদেশ যে অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র হিসেবে জন্ম নিয়েছে সে নৈতিক অবস্থান আজ হুমকির মুখে। সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় সারাদেশে সর্বস্তরের জনগণকে সচেষ্ট থাকতে হবে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

জাবিতে ছাত্রলীগের ‘শান্তি শোভাযাত্রা’

জাবিতে ছাত্রলীগের ‘শান্তি শোভাযাত্রা’

হলে হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা, প্রাণ ফিরেছে ক্যাম্পাসে

হলে হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা, প্রাণ ফিরেছে ক্যাম্পাসে

চবি ছাত্রলীগের ১২ নেতাকর্মী সাময়িক বহিষ্কার

চবি ছাত্রলীগের ১২ নেতাকর্মী সাময়িক বহিষ্কার

১৯ মাস পর হলে চবি শিক্ষার্থীরা

১৯ মাস পর হলে চবি শিক্ষার্থীরা

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে নাট্য পরিবেশন (ফটোস্টোরি)

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৬:২১

সদ্যসমাপ্ত শারদীয় দুর্গোৎসবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বসতবাড়িতে হামলার ঘটনায় ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার অ্যান্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগ। মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে ‘দেখতে কি পাও, পুড়ছে বাংলা...’ শীর্ষক এ শৈল্পিক প্রতিবাদী নাট্য পরিবেশন করেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা। প্রতিবাদ সমাবেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারীরাও উপস্থিত ছিলেন। নাসিরুল ইসলামের ক্যামেরায় তোলা ছবিতে বিস্তারিত তুলে ধরা হলো।

 

 

 

 

/আইএ/

সম্পর্কিত

ঢাবির থিয়েটার বিভাগের ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ

ঢাবির থিয়েটার বিভাগের ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ

ঢাবি ডিবেটিং সোসাইটির নবনির্বাচিত সভাপতি আরমান, সম্পাদক তমা

ঢাবি ডিবেটিং সোসাইটির নবনির্বাচিত সভাপতি আরমান, সম্পাদক তমা

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের ওপর হামলা

ঢাবির থিয়েটার বিভাগের ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৫:৫৭

সদ্যসমাপ্ত শারদীয় দুর্গোৎসবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বসতবাড়িতে হামলার ঘটনায় ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের থিয়েটার অ্যান্ড পারফরমেন্স স্টাডিজ বিভাগ।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের অপরাজেয় বাংলার পাদদেশে ‘দেখতে কি পাও, পুড়ছে বাংলা...’ শীর্ষক এ শৈল্পিক প্রতিবাদী নাট্য পরিবেশন করেন বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

‘গোল হয়ে আসুন সকলে, ঘন হয়ে আসুন সকলে’- এই প্রতিপাদ্যে অনুষ্ঠিত শৈল্পিক প্রতিবাদ সমাবেশে বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্যান্য বিভাগের শিক্ষার্থী, শিক্ষক, কর্মচারীরাও উপস্থিত ছিলেন।

শৈল্পিক প্রতিবাদ পরিবেশনার সময় বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. ইসরাফিল সাহিন, ড. সাইদুর রহমান লিপন, মোহাম্মদ আহসান খান এবং নাভেদ রহমানসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় পরিবেশানাটির মুখ্য তত্ত্বাবধায়ক তানভির নাহিদ খান বলেন, ‘ধর্মভিত্তিক জাতীয়তাবাদ নয়, বাঙালি জাতীয়তাবাদের ভিত্তিতে জন্ম হয়েছে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের। সব ধর্ম, বর্ণের মানুষের ঐক্যবদ্ধ অংশগ্রহণে মহান মুক্তিযুদ্ধে মরণপণ লড়াই করে এই রাষ্ট্রের স্বাধীনতা অর্জিত হয়। তবে সম্প্রতি দুর্গোৎসবে ঘটে যাওয়া ঘটনা এই বাংলার হাজার বছরের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির বন্ধনকে হুমকির মুখে ফেলেছে। অসাম্প্রদায়িক এই রাষ্ট্রকে সংকটাপন্ন করেছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সমাজের একজন সচেতন মানুষ হিসেবে এই সাম্প্রদায়িক আচরণের প্রতিবাদ করা নৈতিক দায়িত্ব বলে মনে করি। দেশকে বাঁচাতে এবং রাষ্ট্রকে ঘুরে দাঁড়াতে হলে এই হামলা, সহিংসতা, উগ্র-ধর্মান্ধ আচরণ প্রশ্রয় না দিয়ে যার যার অবস্থান থেকে প্রতিহত করতে হবে।’

শৈল্পিক প্রতিবাদ বিভাগের চেয়ারম্যান আশিকুর রহমান লিয়ন বলেন, ‘আমাদের দেশ অসাম্প্রদায়িক। “সকল ধর্ম, সকল জাতি সমঅধিকার” মুক্তিযুদ্ধের এই মূল প্রতিপাদ্য নিয়ে আমরা বসবাস করি। যখন এর ব্যত্যয় ঘটে তখন সূচিত হয় অন্যায়। এটা নিজ মাতৃভূমি তথা আপন জনের সঙ্গে অন্যায়। আমাদের বিভাগ সব সময় নাট্য ও শিল্পের ভাষায় প্রতিবাদ করে। মানুষ হিসেবে, সচেতন নাগরিক হিসেবে এবং সর্বপরি শিল্পী হিসেবে দেশ ও মানবতার স্বার্থে আমাদের বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা সব সময় অন্যায়ের বিরুদ্ধে সক্রিয়।’

বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহমান মৈশান বলেন, ‘ধর্মীয় জাতীয়তাবাদ, এথনিক জাতীয়তাবাদ ও বুর্জোয়া শ্রেণিবাদ-এ সবই মুক্তিযুদ্ধের ভাবাদর্শের পরিপন্থী। এ দেশে একজন মুসলমান ঠিক যতটুকু বাঁচার অধিকার রাখে, একজন হিন্দুও ততটুকুই অধিকার রাখে। এই দেশ যেমন মুসলমানের, তেমনি হিন্দুর, সাঁওতালেরও। বহু জাতি ও ধর্মের বাংলাদেশকে বীভৎস সাম্প্রদায়িকতা ও বর্ণবাদ থেকে রক্ষার জন্য সবাই আওয়াজ তুলুন। আমরা এখনও আছি একসঙ্গেই।’

ছবি: নাসিরুল ইসলাম

 

 

/আইএ/

সম্পর্কিত

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে নাট্য পরিবেশন (ফটোস্টোরি)

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে নাট্য পরিবেশন (ফটোস্টোরি)

ঢাবি ডিবেটিং সোসাইটির নবনির্বাচিত সভাপতি আরমান, সম্পাদক তমা

ঢাবি ডিবেটিং সোসাইটির নবনির্বাচিত সভাপতি আরমান, সম্পাদক তমা

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

ঢাবি ডিবেটিং সোসাইটির নবনির্বাচিত সভাপতি আরমান, সম্পাদক তমা

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৫:২৮

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) ডিবেটিং সোসাইটির (ডিইউডিএস) ২০২১-২২ সেশনের নতুন কমিটির ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। সোসাইটির নবনির্বাচিত সভাপতি শেখ মোহাম্মদ আরমান ও সাধারণ সম্পাদক মাকসুদা আক্তার তমা।

সোমবার (১৮ অক্টোবর) বিকালে ঢাবির টিএসসিতে সোসাইটির কার্যালয়ে এ কমিটির ঘোষণা দেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার এবং ডিইউডিএসের মডারেটর অধ্যাপক ড. মাহবুবা নাসরিন।

কমিটির সভাপতি পদে নির্বাচিত হয়েছেন শেখ মোহাম্মদ আরমান। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের মোট ১৮টি হল বিতর্ক ক্লাবের মধ্যে ১২টির ভোট পান। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ সার্জেন্ট জহুরুল হক হলের আবাসিক শিক্ষার্থী এবং হাউজ অব ডিবেটরসের সাবেক সাধারণ সম্পাদক। অন্যদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আরেফিন জুয়েল পেয়েছেন ৬টি ভোট।

আর ১২ ভোট পেয়ে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন হয়েছেন মাকসুদা আক্তার তমা। তিনি শামসুন্নাহার হল ডিবেটিং ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক। অন্যদিকে তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাবরিনা স্বর্না পেয়েছেন ৬টি ভোট। বাকি পদগুলোতে নতুন এই কমিটির মাধ্যমে নির্বাচন আয়োজন করা হবে।

এর আগে ওইদিন বিকালে ১৮টি হলের বিতর্ক ক্লাব থেকে একজন করে মনোনীত ভোটার ভোট দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ডিইউডিএসের মডারেটর মাহবুবা নাসরিন, নির্বাচন সচিব শামসুজ্জামান সবুজ। সহকারী নির্বাচন কমিশনার হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মো. আবদুল্লাহ আল ফয়সাল, মো. ইয়াছিন আরাফাত ও মো. জাহিদ হোসেন।

/এমএস/

সম্পর্কিত

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে নাট্য পরিবেশন (ফটোস্টোরি)

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে নাট্য পরিবেশন (ফটোস্টোরি)

ঢাবির থিয়েটার বিভাগের ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ

ঢাবির থিয়েটার বিভাগের ‘শৈল্পিক’ প্রতিবাদ

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

দেড় বছর পর ঢাবিতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি স্লোগান

দেড় বছর পর ঢাবিতে ছাত্রদল-ছাত্রলীগের পাল্টাপাল্টি স্লোগান

জাবিতে ছাত্রলীগের ‘শান্তি শোভাযাত্রা’

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ১৪:৫৯

রংপুরের পীরগঞ্জসহ সারাদেশের বিভিন্ন স্থানে চলমান সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলার ঘটনার প্রতিবাদে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) শাখা ছাত্রলীগ ‘সম্প্রীতি সমাবেশ ও শান্তি শোভাযাত্রা’ করেছে।

মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বর এলাকা থেকে একটি শোভাযাত্রা শুরু হয়। শোভাযাত্রাটি শেষ হয় শহীদ মিনারে এসে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মাধ্যমে। এ সময় প্রায় কয়েকশ’ ছাত্রলীগ নেতাকর্মী শোভাযাত্রায় অংশ নেন।

শোভাযাত্রা পরবর্তী সংক্ষিপ্ত ‘সম্প্রীতি সমাবেশে’ জাবি ছাত্রলীগের সাবেক উপ-দফতর সম্পাদক এম মাইনুল হোসেন রাজন বলেন, সাম্প্রদায়িক শক্তি দেশকে অস্থিতিশীল করতে বিভিন্ন সময় চক্রান্ত করে আসছে। জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে থেকে সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াই করে যাবে।

এ সময় শোভাযাত্রায় ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ কর্মী আখতারুজ্জামান সোহেল, আকলিমা আক্তার এশা, মাহবুবুল আলম রাফা, নিলাদ্রী শেখর মজুমদার, রতন বিশ্বাস, আব্দুর রহমান ইফতি ও আহমেদ আরিফ।

সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে সোমবার মানববন্ধন করে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের জাবি শাখা

সদ্য বিলুপ্ত কমিটির পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক মাহবুবুল হক রাফা বাংলা ট্রিবিউনকে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রাকে পিছিয়ে দেওয়ার জন্য কিছু ‘কুচক্রী মহল’ ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশে সাম্প্রদায়িকতার কোনও ঠাঁই নেই। আমরা সবাইকে নিয়ে এই ষড়যন্ত্র রুখে দেবো।

এদিকে সোমবার (১৮ অক্টোবর) দুপুরে দেশব্যাপী সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে এবং এর সঙ্গে জড়িতদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) শাখা মানববন্ধন করে। বিশ্ববিদ্যালয়ের 'অমর একুশ' ভাস্কর্যের পাদদেশে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে ছাত্র ফ্রন্ট জাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক আবু সাইদ বলেন, কুমিল্লা, চাঁদপুর, নোয়াখালী, রংপুরে যে সম্প্রদায়িক হামলার ঘটনা ঘটেছে তা পূর্বপরিকল্পিত। রাজনৈতিক হীন উদ্দেশ্য সাধনের জন্য এ কাজ করা হয়েছে।

/এসএইচ/

সম্পর্কিত

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ডাক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের 

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির ডাক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের 

৫ বছর পর বিলুপ্ত হলো জাবি ছাত্রলীগের কমিটি

৫ বছর পর বিলুপ্ত হলো জাবি ছাত্রলীগের কমিটি

প্রাণ ফিরছে জাবি ক্যাম্পাসে

প্রাণ ফিরছে জাবি ক্যাম্পাসে

জাবি অধ্যাপক আফসার আহমেদ মারা গেছেন

জাবি অধ্যাপক আফসার আহমেদ মারা গেছেন

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

সর্বশেষ

যুক্তরাষ্ট্রে বিমান বিধ্বস্ত, অলৌকিকভাবে বেঁচে গেলো ২১ আরোহী

যুক্তরাষ্ট্রে বিমান বিধ্বস্ত, অলৌকিকভাবে বেঁচে গেলো ২১ আরোহী

৫ গোলে জিতলো রিয়াল মাদ্রিদ, আতলেতিকোকে হারালো লিভারপুল

৫ গোলে জিতলো রিয়াল মাদ্রিদ, আতলেতিকোকে হারালো লিভারপুল

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

যুক্তরাজ্যে আবারও বাড়ছে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

মেসির জোড়ায় পিএসজির রোমাঞ্চকর জয়

মেসির জোড়ায় পিএসজির রোমাঞ্চকর জয়

ইয়েমেন যুদ্ধে ১০ হাজার শিশু হতাহত : ইউনিসেফ

ইয়েমেন যুদ্ধে ১০ হাজার শিশু হতাহত : ইউনিসেফ

© 2021 Bangla Tribune