X
রবিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২১, ১২ অগ্রহায়ণ ১৪২৮

সেকশনস

২০ দলীয় জোট: এক ভবনেই তিন শরিক দলের অফিস

আপডেট : ১৯ অক্টোবর ২০২১, ০৮:৫৪

রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের পূর্ব দিকে মসজিদ গলি। এর শেষ প্রান্তে ৮৫-৮৫/১ নয়াপল্টন। আটতলা ভবনটির নিচতলার সামনের দিকে খাবারের হোটেল, ফার্মেসি ও ফ্লেক্সিলোডের দোকান। ভেতরের অংশে দুই পাশে প্রিন্টিং প্রেস পেরিয়ে ওপরে ওঠার সিঁড়ি। দ্বিতীয় তলা থেকে সপ্তম তলা পর্যন্ত প্রতিটি তলায় মাঝখানে করিডোর আর দুই পাশে ছোট-ছোট রুম। তৃতীয়, ষষ্ঠ ও সপ্তম তলায় পৃথক তিনটি কক্ষে পরিচালিত হচ্ছে ২০ দলীয় জোটের তিন শরিক দলের রাজনৈতিক কার্যক্রম। এগুলো হলো- সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমের নেতৃত্বাধীন বাংলা কল্যাণ পার্টি, খন্দকার লুৎফুর রহমানের নেতৃত্বাধীন জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টি (জাগপা-লুৎফুর) এবং মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের নেতৃত্বাধীন বাংলাদেশ লেবার পার্টি।

গত ১৪ অক্টোবর বিকালে এবং ১৭ অক্টোবর দুপুরে তিনটি কার্যালয়ে সরেজমিনে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। কক্ষগুলোর ফটকে ছিল তালা। লেবার পার্টির অফিসের সামনে দলের নাম উল্লেখ থাকলেও কল্যাণ পার্টি এবং জাগপার অফিসের সামনে তাও নেই। আশেপাশের বিভিন্ন অফিসের কর্মচারীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ভবনটির প্রতিটি এককক্ষের ভাড়া মাসে ৮ হাজার টাকা। দুই কক্ষের বেলায় মাসে গুনতে হয় ১৬ হাজার টাকা। 

জাগপার অফিসে তালা কল্যাণ পার্টির নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নয়াপল্টনের এই ঠিকানা দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয় হিসেবে ব্যবহার হয়। এর পাশাপাশি দলের চেয়ারম্যান সৈয়দ মুহাম্মদ ইবরাহিমের রাজনৈতিক কার্যালয় আছে।

পার্টির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব নুরুল কবির ভূঁইয়া পিন্টু বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, ঢাকার মহাখালী ডিওএইচএসে চেয়ারম্যানের স্থায়ী অফিস ভবনের সংস্কার কাজ চলছে। এ কারণে বর্তমানে মহাখালী ডিওএইচএসের ২৭ নম্বর সড়কের ৩৬২ নম্বর বাসার নিচতলায় অস্থায়ীভাবে চেয়ারম্যানের রাজনৈতিক অফিসের কার্যক্রম পরিচালনা করা হচ্ছে।

কল্যাণ পার্টির অফিস কেন্দ্রীয় কার্যালয় প্রসঙ্গে দলের দফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা যুগ্ম সম্পাদক আলামীন ভূঁইয়া রিপন বলেন, ‘আমাদের ওয়ার্কিং কমিটির বৈঠক এখানেই হয়। কখনও চেয়ারম্যান স্যারের অফিসে হয়।’

৮৫, নয়াপল্টন ভবনের একজন অফিস সহকারী জানান, সপ্তাহে দুই-তিন দিন কল্যাণ পার্টির অফিস খোলা হয়। তখন নেতাকর্মীরা আসেন।

অন্ধকার  এই করিডরের মাথায় জাগপার অফিস প্রয়াত শফিউল আলম প্রধান প্রতিষ্ঠিত জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) মূল অংশটি তার মেয়ে ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধানের নেতৃত্বে রয়েছে। তাসমিয়া প্রধান ২০১৮ সালের নির্বাচনে বিএনপির সমর্থন পাননি। তারা নিজস্ব প্রতীকে নির্বাচন করেন। ২০১৯ সালের ২৭ জুন অলি আহমদের নেতৃত্বে জাতীয় মুক্তি মঞ্চে যোগ দেওয়ার পর থেকে ২০ দলীয় জোটে আর সক্রিয় হয়নি এই অংশ। তাদের কার্যালয় আসাদ গেট এলাকায়।

যদিও নব্বইয়ের গণআন্দোলনের সময়কার ছাত্র ঐক্যের নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার লুৎফুর রহমানের নেতৃত্বে আরেকটি অংশ বিএনপি-জোটে প্রতিনিধিত্ব করছে। নয়াপল্টনের মসজিদ গলিতে ৮৫/১ ভবনের সপ্তম তলার পশ্চিম দিকে একটি কক্ষ থেকে পরিচালিত হয় দলীয় কর্মকাণ্ড। খন্দকার লুৎফুর রহমান না এলে সাধারণত অফিস বন্ধ থাকে। এখানকার পরিবেশ অনেকটাই অন্ধকার। 

লেবার পার্টির কার্যালয়
ভবনটির সপ্তম তলার সরু করিডোরের একেবারে শেষ মাথায় জাগপা’র কার্যালয়। গত ১৪ অক্টোবর বিকালে সরেজমিনে গিয়ে কাউকে পাওয়া যায়নি। রবিবার (১৭ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকেও মেলেনি কাউকে। এই অংশের দলীয় কার্যক্রমও আলোচনা সভাতেই সীমাবদ্ধ। ২০১৯ সালের জুনে প্রধানের মেয়ে তাসমিয়া অলি আহমদের জোট জাতীয় মুক্তি মঞ্চে যোগদানের বিষয়ে দ্বন্দ্বে লুৎফুর রহমানকে বহিষ্কার করেন। পরে লুৎফুর রহমানের নেতৃত্বে একটি অংশ বেরিয়ে যায়। সম্মেলনের মাধ্যমে ২০২০ সালের জানুয়ারিতে দলের এই অংশের সভাপতি নির্বাচিত জন খন্দকার লুৎফুর।

দল প্রসঙ্গে শফিউল আলম প্রধানের নেতৃত্বাধীন জাগপা’র সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমানে দলটির একাংশের সভাপতি খন্দকার লুৎফুর রহমান শনিবার (১৬ অক্টোবর) বিকালে বলেন, ‘বিএনপি-জোটের আনুষ্ঠানিক কোনও বৈঠক না হলেও যোগাযোগ অব্যাহত আছে। মানুষের প্রত্যাশা থাকলেও পরিবেশ-পরিস্থিতির কারণে কর্মসূচি হচ্ছে না। রাজনৈতিক কৌশল নির্ধারণ করছেন জোটের শীর্ষনেতারা।’

এই ভবনের ২০ দলীয় জোটের তিনটি শরিক দলের অফিস-২ কার্যালয়ের বিষয়ে লুৎফুর রহমানের দাবি, তিনি অন্তত চার-পাঁচদিন নয়াপল্টনের অফিসে বসেন। পাশাপাশি উল্লেখ করেন, দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের নেতারা তার সঙ্গেই জাগপা’য় যুক্ত আছেন।

এছাড়া ভবনের তৃতীয় তলায় রয়েছে মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের নেতৃত্বাধীন লেবার পার্টির কেন্দ্রীয় কার্যালয়। জানা গেছে, প্রেসক্লাবভিত্তিক সভা-সেমিনার-মানববন্ধন ও বিবৃতিতে সক্রিয় এই দলের কেন্দ্রীয় অফিস কালেভদ্রে খোলা হয়। যদিও সরেজমিনে দুই দিন গিয়ে অফিসটি খোলা পাওয়া যায়নি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে লেবার পার্টির তৎকালীন মহাসচিব হামদুল্লাহ মেহেদি ২০ দলীয় জোট ত্যাগ করেন। তিনিও নিজেকে লেবার পার্টির নেতা দাবি করেন।


 
 
/জেএইচ/

সম্পর্কিত

বিএনপি অরাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে আন্দোলনের চেষ্টা করছে: কৃষিমন্ত্রী

বিএনপি অরাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে আন্দোলনের চেষ্টা করছে: কৃষিমন্ত্রী

হেফাজতের আলোচনাসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

হেফাজতের আলোচনাসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জাতীয় পার্টি আসলে কী চায়

জাতীয় পার্টি আসলে কী চায়

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

বিএনপি অরাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে আন্দোলনের চেষ্টা করছে: কৃষিমন্ত্রী

বিএনপি অরাজনৈতিক ইস্যু নিয়ে আন্দোলনের চেষ্টা করছে: কৃষিমন্ত্রী

হেফাজতের আলোচনাসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

হেফাজতের আলোচনাসভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

জাতীয় পার্টি আসলে কী চায়

জাতীয় পার্টি আসলে কী চায়

খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসা: ‘স্লোমোশনে কঠোর’ হতে চায় বিএনপি

খালেদা জিয়ার বিদেশে উন্নত চিকিৎসা: ‘স্লোমোশনে কঠোর’ হতে চায় বিএনপি

আইসিইউ আর কেবিনে আসা-যাওয়ার মাঝে রওশন এরশাদ

আইসিইউ আর কেবিনে আসা-যাওয়ার মাঝে রওশন এরশাদ

‘ডা. মিলন কিশোর বয়স থেকেই জাসদের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন’

‘ডা. মিলন কিশোর বয়স থেকেই জাসদের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন’

‘অনেক মন্ত্রী ও এমপি হাফ ভাড়ায় যাতায়াত করেছেন’

‘অনেক মন্ত্রী ও এমপি হাফ ভাড়ায় যাতায়াত করেছেন’

‘মামুনুল হকের সমর্থকরা প্রমাণ করলো তাদের মাঝে শিক্ষার আলো নেই’

‘মামুনুল হকের সমর্থকরা প্রমাণ করলো তাদের মাঝে শিক্ষার আলো নেই’

সর্বশেষ

নারায়ণগঞ্জে আগুনের ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যু

নারায়ণগঞ্জে আগুনের ঘটনায় আরও একজনের মৃত্যু

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারালো বার্সেলোনা

শেষ মুহূর্তের দুই গোলে ভিয়ারিয়ালকে হারালো বার্সেলোনা

৪০ টাকার বিনিময়ে বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস

৪০ টাকার বিনিময়ে বার্ষিক পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস

ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে কেন্দ্রে যাওয়ার পথে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তার মৃত্যু

ভোটের সরঞ্জাম নিয়ে কেন্দ্রে যাওয়ার পথে সহকারী প্রিসাইডিং কর্মকর্তার মৃত্যু

মোবাইল নম্বর ব্লকলিস্টে রাখায় স্কুলছাত্রীকে হত্যাচেষ্টা, যুবক গ্রেফতার 

মোবাইল নম্বর ব্লকলিস্টে রাখায় স্কুলছাত্রীকে হত্যাচেষ্টা, যুবক গ্রেফতার 

© 2021 Bangla Tribune