X
সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪
১০ আষাঢ় ১৪৩১

সবার আগে মূল্যস্ফীতি কমানোর পরামর্শ দিলেন আহসান এইচ মনসুর

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ২৩:৩৮আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩, ২৩:৩৮

মূল্যস্ফীতির চাপ, ডলারের বাজারে অস্থিতিশীলতা এবং লাগামহীন খেলাপি ঋণ এখন অর্থনীতির জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হলেও বর্তমান পরিস্থিতিতে সবার আগে মূল্যস্ফীতি কমানোর পরামর্শ দিয়েছেন পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউটের (পিআরআই) নির্বাহী পরিচালক আহসান এইচ মনসুর। তার মতে মূল্যস্ফীতি কমাতে পারলে এমনিতেই ডলার বাজার স্থিতিশীল হয়ে যাবে।

বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ ব্যাংকে আয়োজিত এক বৈঠকে এসব পরামর্শ দেন এ অর্থনীতিবিদ।

বৈঠক শেষে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র মো. মেজবাউল হক বলেন, মূল্যস্ফীতি, ডলারের দামের অস্থিতিশীলতা এবং খেলাপি ঋণ এসময়ের সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। তাই সবার আগে মূল্যস্ফীতি কমানোর পরামর্শ দিয়েছেন পিআরআই নির্বাহী পরিচালক। নতুন করে টাকা ছাপিয়ে সরকারকে ঋণ না দেওয়ার ওপর জোর দেন এই অর্থনীতিবিদ। এর আগে অর্থনীতিবিদ ওয়াহিদ উদ্দিন মাহমুদও টাকা ছাপিয়ে সরকারকে ঋণ না দেওয়ার পরামর্শ দেন। বুধবারের  বৈঠকে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পক্ষ থেকে তাকে জানানো হয়, এখন জমি অধিগ্রহণসহ বিভিন্ন খাতে খরচ কমিয়েছে সরকার। তাই বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এখন আর টাকা নেওয়ার প্রয়োজন হচ্ছে না। সরকার বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে এখন ঋণও নিচ্ছে না। তবে প্রয়োজন হলে এখন বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে ঋণ নিতে পারবে সরকার।

এর আগে গত ২১ সেপ্টেম্বর তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ওয়াহিদ উদ্দিন মাহমুদের সঙ্গে বৈঠক করেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর আব্দুর রউফ তালুকদার।

ভবিষ্যতে আরও অর্থনীতিবিদ, ইকোনমিক রিপোর্টার্স ফোরাম, চেম্বার অব কমার্স এবং অর্থনৈতিক খাতের বিভিন্ন ব্যক্তিদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা পর্যায়ক্রমে চলতে থাকবে বলেও জানিয়েছেন মুখপাত্র মো. মেজবাউল হক।

বুধবার অপর এক বৈঠকে ব্যাংক খাতে সুশাসন ফেরাতে কঠোর বার্তা দিয়েছেন গভর্নর আবদুর রউফ তালুকদার। বিভিন্ন ব্যাংকের পর্ষদে থাকা পর্যবেক্ষকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ব্যাংকের আর্থিক অবস্থা অবশ্যই উন্নতি করতে হবে। যেটা নিশ্চিত করতে হবে ব্যাংকের ম্যানেজমেন্ট এবং পর্ষদের মাধ্যমেই। বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষ থেকে কোনও শিথিলতা দেখানো হবে না।

 

/জিএম/এমএস/
সম্পর্কিত
কলোটাকা সাদা করা নিয়ে সংসদে পরস্পর বিরোধী অবস্থান দুই এমপির
রেমিট্যান্সে রেকর্ড: ২১ দিনে এলো ১৯১ কোটি ডলার
বারবার ভস্ম থেকে জেগে উঠেছে আওয়ামী লীগ: শেখ হাসিনা
সর্বশেষ খবর
বেঁচে আছেন ইসরায়েলি সেনাদের জিপে বাঁধা ফিলিস্তিনি
বেঁচে আছেন ইসরায়েলি সেনাদের জিপে বাঁধা ফিলিস্তিনি
সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে তীব্র যানজট
সিরাজগঞ্জের মহাসড়কে তীব্র যানজট
‘নির্বাচনে যারা ভোট চাইতে আসেন, ভাঙনের সময় তাদের দেখা যায় না’
পদ্মার তীরে ভাঙন‘নির্বাচনে যারা ভোট চাইতে আসেন, ভাঙনের সময় তাদের দেখা যায় না’
ট্রেনে কাটা পড়ে আ.লীগ নেতার মৃত্যু
ট্রেনে কাটা পড়ে আ.লীগ নেতার মৃত্যু
সর্বাধিক পঠিত
ভারত, অস্ট্রেলিয়া, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের সেমিফাইনালে ওঠার সমীকরণ
ভারত, অস্ট্রেলিয়া, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশের সেমিফাইনালে ওঠার সমীকরণ
হিজবুল্লাহ’য় যোগ দিতে ইচ্ছুক ইরান-সমর্থিত হাজারো যোদ্ধা
ইসরায়েলের বিরুদ্ধে যুদ্ধহিজবুল্লাহ’য় যোগ দিতে ইচ্ছুক ইরান-সমর্থিত হাজারো যোদ্ধা
‘কক্সবাজারে সেনানিবাস না থাকলে দখল করে নিতো আরাকান আর্মি’
‘কক্সবাজারে সেনানিবাস না থাকলে দখল করে নিতো আরাকান আর্মি’
ওসিকে ধাক্কা দিয়ে চাকরি হারালেন সেই এএসআই
ওসিকে ধাক্কা দিয়ে চাকরি হারালেন সেই এএসআই
আঠাবিহীন কাঁঠাল চাষে চমক, তিন মাসেই ফল, দেবে বারো মাস
আঠাবিহীন কাঁঠাল চাষে চমক, তিন মাসেই ফল, দেবে বারো মাস