X

সেকশনস

৫৫ মামলায় পলাতক রিয়েল স্টেট ব্যবসায়ী গ্রেফতার, অফিসে গোপন সুড়ঙ্গ পথ

আপডেট : ০১ অক্টোবর ২০২০, ১৮:৩১

গ্রেফতার মো. ইমাম হোসেন নাসিম ও তার স্ত্রী হালিমা আক্তার সালমা রাজধানীর রূপনগর এলাকা থেকে নাসিম রিয়েল স্টেটের মালিক মো. ইমাম হোসেন নাসিম (৬৬) এবং তার স্ত্রী হালিমা আক্তার সালমাকে (৩২) গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। ৫৫ মামলার গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত পলাতক দুই আসামিকে বিদেশি অস্ত্র, জালনোট ও মাদকসহ গ্রেফতার করা হয়। বৃহস্পতিবার (১ অক্টোবর) বেলা ১২টার দিকে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে র‌্যাব-৪-এর অধিনায়ক অতিরিক্ত ডিআইজি মো. মোজাম্মেল হক এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানান।
অতিরিক্ত ডিআইজি জানান, নাসিম অসংখ্য মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করেছে। জমি বিক্রির নামে মানুষের অর্থ হাতিয়ে নিয়েছে। অনেকে আইনের আশ্রয় নিলেও আদালত থেকে জামিন নিয়ে তাদের হুমকি দিতো নাসিম। সে অফিসে সুড়ঙ্গ পথ তৈরি করে আত্মগোপনে তা ব্যবহার করতো।

নাসিমের উত্থান

নাসিম ১৯৭৮ থেকে ১৯৮৬ সাল পর্যন্ত একটি কোম্পানির ঠিকাদারির কাজ করে আসলেও মূলত ২০০২ সাল থেকে অভিনবভাবে প্রতারণামূলক কৌশলের মাধ্যমে নিজেকে কথিত নাসিম রিয়েল এস্টেট কোম্পানির মালিক পরিচয় দিয়ে সাইনবোর্ড টানানো শুরু করে। ক্ষেত্র বিশেষে অস্ত্র দেখিয়ে ভয়-ভীতি দেখিয়ে সাভারের কাউন্দিয়া এলাকায় অন্যের ও খাসজমি দখল করে আবাসিক শহর গড়ে দেওয়ার নামে প্রায় পাঁচ হাজার সাধারণ জনগণের সঙ্গে বায়না করে প্রত্যেকের কাছ থেকে পাঁচ লাখ টাকা নেয়। এছাড়া ২৫০ জনকে ভুয়া রেজিস্ট্রেশন দিয়ে প্রত্যেকের কাছ থেকে ১২ লাখ ৫০ হাজার টাকা প্রতারণা করে। এভাবে সে প্রায় ২৮০ কোটি টাকা আত্মসাৎ করে। এর পাশাপাশি সে ২০০৫ থেকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করে ভিন্ন ভিন্নভাবে মানুষের কাছ থেকে টাকা আত্মসাৎ করে।

এ পর্যন্ত তার মালিকানাধীন ১৬টি প্রতিষ্ঠানের সন্ধান পাওয়া গেছে: ১. নাসিম রিয়েল এস্টেট লি., ২. নাসিম ডেভেলপার লি., ৩. নাসিম অ্যাগ্রো ফুড লি., ৪. নাসিম বাজার, ৫. এসবি ফাউন্ডেশন, ৬. ডা. বেলায়েত হোসেন মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতাল, ৭. নাসিম পার্সেল ও কুরিয়ার সার্ভিস, ৮. সাপ্তাহিক ইমারত অর্থ. ৯. নাসিম শিপ বিল্ডার্স, ১0. নাসিম ইঞ্জিনিয়ারিং ও কন্সাল্টেন্সি, ১১.  নাসিম ট্রেডিং লি. ১২. সাহানা আই হাসপাতাল, ১৩. বাংলা নিউজ ১৬, ১৪.            নাসিম ড্রিংকিং ওয়াটার, ১৫. নাসিম সুগার ও ১৬. নাসিম বেভারেজ।               

সুড়ঙ্গ পথ অস্ত্রধারী ভূমিদস্যু হিসেবে প্রতারণা

আসামি নাসিম অভিনব পন্থা অবলম্বন করে দীর্ঘদিন যাবৎ সাধারণ জনগণের কাছে প্রতারণা করে নিজেকে বিভিন্ন সময় রিয়েল এস্টেট কোম্পানির মালিক পরিচয় দিতো। সে অস্ত্র দেখিয়ে জমি দখল করে কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করে আসছিল।

৩২ সিমকার্ড ও ৪ ওয়াকিটকি দিয়ে প্রতারণা

আসামি নাসিম নামে-বেনামে ৩২টি সিমকার্ড ব্যবহার করে সবার ধরা-ছোঁয়ার বাইরে থেকে প্রতারণার কাজ সঠিকভাবে পরিচালনা করতো এবং চারটি ওয়াকিটকি সেট দিয়ে নিজের নিরাপত্তা ও রিয়েল এস্টেট কোম্পানির মালিক হিসেবে পরিচয় নিশ্চিত করতো।

৫৫ গ্রেফতারি পরোয়ানাভুক্ত পলাতক আসামি

রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন থানায় আসামিদ্বয়ের বিরুদ্ধে প্রতারণা, ভূমিদস্যুতা, মাদক ও জাল টাকা মামলার প্রায় অর্ধশতাধিক গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। ভুক্তভোগী মানুষরা তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময়ে শতাধিক মামলা করেন। রাজধানীসহ দেশের বিভিন্ন থানায় প্রতারণা মামলার ৫৫টি গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হয় তাদের বিরুদ্ধে। এছাড়াও তার বিরুদ্ধে প্রতারণা সংক্রান্ত অসংখ্য জিডি ও অভিযোগ রয়েছে। নাসিম ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে অস্ত্র, মাদক, প্রতারণার আরও চারটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

শীর্ষস্থানীয় মাদক ও জাল টাকার ব্যবসায়ী

আসামিরা দেশের সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে মাদকদ্রব্য ইয়াবা ও বিদেশি মদ সংগ্রহ করে ঢাকা মহানগরীর বিভিন্ন এলাকার ডিলার ও খুচরা মাদক কারবারীদের কাছে বিক্রি করে আসছিল। এছাড়াও তারা ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন জায়গায় জাল নোটের ব্যবসা পরিচালনা করতো।

গ্রেফতারের সময় তার কাছ থেকে একটি ৭.৬৫ মি.মি. বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, তিন রাউন্ড গুলি, এক লাখ ৩৫ হাজার জাল টাকা, এক হাজার ৪০০ পিস ইয়াবা, দুই বোতল বিদেশি মদ, চারটি ওয়াকিটকি সেট, ছয়টি পাসপোর্ট, ৩৭টি ব্যাংক চেক বই।

ভুক্তভোগীদের বক্তব্য

নাসিম রিয়েল এস্টেট থেকে জমি কিনে প্রতারিত হয়েছেন আলীউজ্জামান শিকদার নামে এক ব্যক্তি। তিনি ১০ কাঠা জমি কিনেছিলেন, প্রতি কাঠা ৬ লাখ করে। কিন্তু তাকে জমি বুঝিয়ে দেওয়া হয়নি। ২০১৬ সালে তিনি টাকা দেওয়া শেষ করলেও জমি বুঝে পাননি। উল্টো তাকে হুমকি দিতো নাসিম।  আলীউজ্জামান শিকদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমি জমি বুঝে চাইলে ২০১৬ সালে আমাকে নাসিম একটা আবেদন করতে বলে। আমি আবেদন করি। কিন্তু সে আজ পর্যন্ত জমি বুঝিয়ে দেয়নি। উল্টো হুমকি দিতো।’

 

/এআরআর/এমএএ/

সম্পর্কিত

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

মাঝপদ্মায় নোঙর করেছে ৪ ফেরি 

টেকনাফে ঘর পাচ্ছে ৬০ পরিবার

টেকনাফে ঘর পাচ্ছে ৬০ পরিবার

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

সর্বশেষ

নতুন ঘর পেয়ে খুশি সুকজান বেগম

নতুন ঘর পেয়ে খুশি সুকজান বেগম

‘জীবনেও ভাবি নাই পাক্কা ঘরে ঘুমামু’

‘জীবনেও ভাবি নাই পাক্কা ঘরে ঘুমামু’

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

খুবির অস্থিতিশীল পরিবেশ প্রসঙ্গে সাবেক ২৭৩ শিক্ষার্থীর উদ্বেগ

খুবির অস্থিতিশীল পরিবেশ প্রসঙ্গে সাবেক ২৭৩ শিক্ষার্থীর উদ্বেগ

বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে ঘরে আগুন, প্রতিবন্ধী শিশুসহ নিহত ৪

বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে ঘরে আগুন, প্রতিবন্ধী শিশুসহ নিহত ৪

‘এত কাজ কেউ করতে পারেনি, জিতলে আরও করবো’

‘এত কাজ কেউ করতে পারেনি, জিতলে আরও করবো’

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

কেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

শুভ জন্মদিন নায়করাজ রাজ্জাককেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনায় ছাত্র অধিকার পরিষদের নিন্দা

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘটনায় ছাত্র অধিকার পরিষদের নিন্দা

যশোরে দুই লাখ ডলারসহ ৪ হুন্ডি ব্যবসায়ী আটক

যশোরে দুই লাখ ডলারসহ ৪ হুন্ডি ব্যবসায়ী আটক


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.