X

সেকশনস

সম্পর্কের জের ধরে সাইবার বুলিংয়ের শিকার তরুণীরা

আপডেট : ২৯ নভেম্বর ২০২০, ১৩:০০

দেশের ৬৮ শতাংশ নারী সাইবার স্পেসে নানাভাবে হয়রানির শিকার হন। সাইবার বুলিংয়ের শিকার হওয়া এসব নারীর প্রায় সবাই তরুণী। ১৪ থেকে ২৩ বছর বয়সী এসব নারীর সঙ্গে ঘটে যাওয়া অধিকাংশ ঘটনাই ঘটছে সম্পর্কের টানাপড়েনের জের ধরে। এমনটা মনে করেন পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগের (সিআইডি) সাইবার পুলিশ সেন্টারের কর্মকর্তারা।

সিআইডি ও পুলিশ সদর দফতরের সূত্র বলছে, সাইবার বুলিংয়ের শিকার নারীদের কাছ থেকে প্রাপ্ত অভিযোগের মধ্যে পর্নোগ্রাফি, ব্ল্যাকমেইল, ফেসবুক আইডি হ্যাক, অর্থ আদায় এবং হত্যার হুমকি উল্লেখযোগ্য। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে না পারা, তুচ্ছ ঘটনায় সম্পর্ক নষ্ট করা, ডিজিটাল প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে সঠিক ধারণা না থাকায় এসব ঘটনা বারবার ঘটছে। তবে শুধু আবেগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারলেই এ ধরনের অনেক ঘটনা কমে যাবে বলে মনে করেন তারা।

রাজধানীতে একটি নামকরা বিশ্ববিদ্যালয় ইংরেজি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আনিকা (ছদ্মনাম)। ভার্সিটির প্রথম বর্ষ থেকেই ক্লাসমেটের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়ান তিনি। ছয় মাসের পর তাদের সম্পর্কের অবনতি ঘটে। একজনের সঙ্গে অন্যজনের কথা বলা বন্ধ হয়ে যায়। এই ঘটনার এক বছর পর ফাতেমা আরেকটি নতুন সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। তখন তার সাবেক প্রেমিক সফিকুল ইসলাম এই সম্পর্ক না চালানোর জন্য জবরদস্তি করেন। আনিকা রাজি না হলে, তাদের আগেকার কাটানো কিছু অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও ফুটেজ ভার্সিটির বন্ধুদের দেখাতে শুরু করেন সফিকুল। তার ফোন নম্বর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের বিভিন্ন সাইটেও পোস্ট করেন। আনিকা সবার সামনে বিব্রত হতে থাকেন। একপর্যায়ে তিনি সিআইডির সাইবার পুলিশ সেন্টারে যোগাযোগ করেন।

অপরাধী পরিচিত হওয়ায় পুলিশ সফিকুল ইসলাম নামের ওই শিক্ষার্থীকে সহজে আটক করে। তাকে সঙ্গে নিয়েই আপলোড করা নম্বরগুলো মোছা হয়। মুচলেকা দিয়ে মুক্ত হলেও সফিকুলের ওপর এখনও নজরদারি রেখেছে সিআইডি।

অন্তত ১৫ জন তরুণীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের নামে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করে ভিডিও ধারণ করেছে মোহাম্মদ ইয়াসিন রাতুল নামের এক তরুণ। ওইসব ভিডিও দেখিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে অর্থ আত্মসাৎ করে আবার শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতে বাধ্যও করেছে সে।

সিআইডি বলছে, তরুণীদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলার পর প্রেমিকার মোবাইল ফোন দিয়েই আপত্তিকর ছবি ও ভিডিও ধারণ করতো। পরে সুযোগ বুঝে রাতুল সেই ফোন চুরি করতো। এরপর শুরু হতো ব্ল্যাকমেইল। কখনও নিজের পরিচয়ে, আবার কখনও অন্য পরিচয়ে সেই ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে টাকা আদায় করতো।

সর্বশেষ ছয় মাস আগে রাতুলের সঙ্গে রাজধানীর এক তরুণীর সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একদিন তারা তিন বন্ধু মিলে রাতুলের সঙ্গে লঞ্চে চাঁদপুর ঘুরতেও যান। সেখানে তার অজান্তে আপত্তিকর ভিডিও ধারণ করে রাতুল। লঞ্চ থেকে নামার পর তার মোবাইল ফোনটি কথা বলার জন্য চেয়ে নেয়। এরপর পালিয়ে যায়। ওই দিন থেকেই তাকে ভয় দেখিয়ে টাকা দাবি করতে থাকে রাতুল। তরুণীর অভিযোগ পেয়ে সোমবার রাতে রাজধানীর বাংলামোটর এলাকা থেকে সিআইডির সাইবার টিমের সদস্যরা গ্রেফতার করে রাতুলকে। এরপর আদালত তাকে জেল হাজতে পাঠায়।

সিআইডির সাইবার পুলিশ সেন্টারের বিশেষ পুলিশ সুপার আশরাফুল আলম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, গতকাল পর্যন্ত রাতুলের সম্পর্কে আরও দুই তরুণী অভিযোগ করেছেন। তাদেরকেও প্রেমের ফাঁদে ফেলে ভিডিও ধারণ করে প্রতারণা করেছে রাতুল। সব মিলিয়ে তার হাতে প্রতারিত হয়েছে প্রায় ২০ তরুণী।

সিআইডি কর্মকর্তারা বলছেন, রাতুল-সফিকুলের মতো এমন অনেককেই তারা আইনের আওতায় এনেছেন। অপরাধের গুরুত্ব বুঝে মামলা হয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

সিআইডির সদর দফতর সূত্র বলছে, এ বছরের ৫ সেপ্টেম্বর থেকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত সাইবার পুলিশ সেন্টারের ফেসবুক পেজে ১৭ হাজার ৭০৩টি অভিযোগ এসেছে। ফোনে অভিযোগ করেছেন ৩৮ হাজার ৬১০ ভুক্তভোগী। এর মধ্যে হ্যারাসমেন্টের অভিযোগ ৩৬৫টি। এসব ঘটনায় মামলা হয়েছে ১৮২টি। মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে ১১৮টি। বাকিগুলোর তদন্ত চলমান।

পুলিশ সদর দফতর বলছে, দুদিন আগে পুলিশ সাইবার সাপোর্ট ফর উইমেন (পিসিএসডব্লিউ) ফেসবুক পেজ চালু করেছে সংস্থাটি। চালু হওয়ার দুই দিনেই ৬৯১টি অভিযোগ গৃহীত হয়েছে।

সিআইডি সাইবার পুলিশের সেন্টারের অতিরিক্ত ডিআইজি কামরুল আহসান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, আমাদের কাছে যতগুলো অভিযোগ এসেছে তার অধিকাংশই প্রেমঘটিত সাইবার ক্রাইম। এসব ক্ষেত্রে তরুণীদের আরও সচেতন হওয়া প্রয়োজন। আবেগকে নিয়ন্ত্রণ করে সাইবার জগতে পদচারণা করাই ভালো। সেক্ষেত্রে অনেকাংশে ঝুঁকি কমে আসবে।

পুলিশ সদর দফতরের ডিআইজি অপারেশন খুরশিদ হোসাইন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘সাইবার ক্রাইম যে পর্যায়ে চলে গেছে এখন লজ্জা আর ভয় পেয়ে থাকলে চলবে না। ভুক্তভোগীদের অনুরোধ করবো, সাইবার স্পেসে হয়রানির শিকার হলে সঙ্গে সঙ্গে অভিযোগ করবেন। আমাদের সংশ্লিষ্ট ইউনিটগুলো আপনাদের সহায়তা করার জন্য পাশে থাকবে।’

সাইবার ক্রাইমের বিষয়ে আইজিপি ড. বেনজির আহমেদ বলেন, ‘এখন পর্যন্ত সাইবার অ্যাক্টে ৬ হাজার ৯৯টি মামলা হয়েছে। এই অপরাধগুলো নিয়ে ডিএমপি, ডিবি, সিআইডি, পিবিআই, কাজ করছে। আপনারা যারা সাইবার জগতে প্রবেশ করছেন, সাইবার জগতের ঝুঁকি বিষয়ে সচেতন হয়েই ব্যবহার করবেন। তারপরও যদি কোনও অনাকাঙ্ক্ষিত সমস্যা তৈরি হয়। সে বিষয়ে আমরা কাজ করবো। এক্ষেত্রে ভিকটিমের সর্বোচ্চ গোপনীয়তা রক্ষা করেই সেবা দেওয়া হবে।’

/এফএ/এমএমজে/

সম্পর্কিত

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

বিভিন্ন স্থানে সড়কে নিহত ১৪

বিভিন্ন স্থানে সড়কে নিহত ১৪

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

সর্বশেষ

নতুন ঘর পেয়ে খুশি সুকজান বেগম

নতুন ঘর পেয়ে খুশি সুকজান বেগম

‘জীবনেও ভাবি নাই পাক্কা ঘরে ঘুমামু’

‘জীবনেও ভাবি নাই পাক্কা ঘরে ঘুমামু’

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

ঘর 'আপন' হওয়ার আগে আগলে রাখছেন তারা

খুবির অস্থিতিশীল পরিবেশ প্রসঙ্গে সাবেক ২৭৩ শিক্ষার্থীর উদ্বেগ

খুবির অস্থিতিশীল পরিবেশ প্রসঙ্গে সাবেক ২৭৩ শিক্ষার্থীর উদ্বেগ

বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে ঘরে আগুন, প্রতিবন্ধী শিশুসহ নিহত ৪

বিদ্যুতের লাইন ছিঁড়ে ঘরে আগুন, প্রতিবন্ধী শিশুসহ নিহত ৪

‘এত কাজ কেউ করতে পারেনি, জিতলে আরও করবো’

‘এত কাজ কেউ করতে পারেনি, জিতলে আরও করবো’

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিতে মানতে হবে যে সব বিষয়

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

কারাগারে নারী দর্শনার্থীর সঙ্গে সময় কাটালেন হলমার্কের জিএম

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

কেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

শুভ জন্মদিন নায়করাজ রাজ্জাককেক কাটা নয়, শুধু দোয়ার আয়োজন করেছি: সম্রাট

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

কারাগারে হলমার্কের জিএম এর নারীসঙ্গ: ৩ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

বিমানবন্দরে স্বামী-স্ত্রী নিহতের ঘটনায় বাসচালক কারাগারে

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সাংবাদিক আফজালের মৃত্যুতে ডিএনসিসি মেয়রের শোক

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

সেই কিশোরীকে হস্তান্তরে কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

শাজাহান খানের নেতৃত্বে নতুন শ্রমিক সংগঠনের আত্মপ্রকাশ

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

অনলাইনে ভোট মিললেই জয় পাবে বাংলাদেশের ‘মাদারস পার্লামেন্ট’

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

প্রাথমিকে পেনশন নিষ্পত্তিতে দেরি হলে জবাবদিহি

যশোরে দুই লাখ ডলারসহ ৪ হুন্ডি ব্যবসায়ী আটক

যশোরে দুই লাখ ডলারসহ ৪ হুন্ডি ব্যবসায়ী আটক


ne[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.