সেকশনস

নীলফামারীতে পাল আমলের প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনের সন্ধান

আপডেট : ২০ জানুয়ারি ২০১৬, ১২:৪১
image

নীলফামারী প্রত্নতত্ত্ব

নীলফামারীতে এই প্রথম প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শনের সন্ধান পেয়েছে সংস্কৃতিক বিষয়ক মন্ত্রণালয়। জেলার জলঢাকা উপজেলার গড় ধর্মপাল ইউনিয়নের পূর্ব খেরকাটি গ্রামে এর সন্ধান পাওয়া গেছে। গত তিনদিন খনন করার পর মঙ্গলবার পাল সম্রাট ধর্মপালের আমলের নিদর্শনের সন্ধান মেলে।

এছাড়াও ওই খনন এলাকা থেকে ২০০ গজ উত্তরে সবুজপাড়া নামক স্থানে আরেকটি প্রত্নতত্ত্বের সন্ধান পাওয়া গেছে। এর খনন কাজ কিছুদিনের মধ্যে শুরু হবে।

১৯৯০ সালে এলাকাবাসীর আবেদনে স্থানটিতে প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতর খনন কাজ পরিচালনা করেছিল। ওই সময় তারা কিছু পায়নি।

নীলফামারী খনন কাজ

এদিকে চলমান খনন কাজে ধর্মপাল গড়ের দুর্গ প্রাচীরগুলো আবিস্কারের চেষ্টা করছে সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়টি।

বগুড়ার মহাস্থানগড় খনন কাজের দলনেতা মুজিবুর রহমান বলেন, ‘খনন কাজের সফলতা আসতে শুরু করেছে। আশা করা হচ্ছে বিশাল এলাকাজুড়ে পাল সম্রাট ধর্মপালের আমলের প্রত্নতাত্ত্বিক নিদর্শক করা সম্ভব হবে। এটি পূর্ণাঙ্গরূপে সফলতা পেলে ধর্মপাল এলাকাটি আলোকিত হয়ে উঠবে। আমরা কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।’

মঙ্গলবার বিকালে স্থানটিতে পরিদর্শন করেন নীলফামারী-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক গোলাম মোস্তফা। এসময় উপস্থিত ছিলেন  রাজশাহী বিভাগের আঞ্চলিক পরিচালক নাহিদ সুলতানা, রাজশাহী বিভাগের আফজাল হোসেন, বিভাগীয় আলোকচিত্রকর আবুল কালাম আজাদ, লোকমান হোসেন প্রমুখ।

খনন কাজ

পাল সম্রাট ধর্মপাল সম্পর্কে জানা যায়, তিনি ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের বাংলা অঞ্চলের পাল সাম্রাজ্যের দ্বিতীয় শাসক। তিনি ছিলেন পাল রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা গোপালের ছেলে। তিনি রাজত্বের সীমানা বৃদ্ধি করেন এবং পাল সাম্রাজ্যকে উত্তর ও পূর্ব ভারতের প্রধান রাজনৈতিক শক্তিতে পরিণত করেন।

পাল রাজা ধর্মপাল এবং প্রতীহার রাজা বৎসরাজের মধ্যে সংঘর্ষের মাধ্যমে ৭৯০ খ্রিস্টাব্দের দিকে ত্রিপক্ষীয় যুদ্ধের প্রথম পর্ব শুরু হয়। এতে ধর্মপালের পরাজয় ঘটে এবং পরে দাক্ষিণাত্য থেকে আগত রাষ্ট্রকূট রাজা ধ্রুব ধারা বর্ষের হাতে দুজনেই পরাজিত হন।

সে সময় থেকে নীলফামারীর ওই স্থানটি পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে ছিল। ধীরে, ধীরে সেখানকার অবকাঠামোগুলো মাটির নিচে চাপা পড়ে। তার নাম অনুসারে এলাকাটির নাম গড় ধর্মপাল হিসাবে প্রতিষ্ঠা পায়।

/এআর/এসটি/

সম্পর্কিত

ভাড়া না পেয়ে ৫ দিন অবরুদ্ধ, তালাবদ্ধ অবস্থায় শিশুর মৃত্যু!

ভাড়া না পেয়ে ৫ দিন অবরুদ্ধ, তালাবদ্ধ অবস্থায় শিশুর মৃত্যু!

অতিরিক্ত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে রাস্তায় পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা

অতিরিক্ত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে রাস্তায় পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা

আদিবাসী নারীকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ

আদিবাসী নারীকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ

প্রবাসীর স্ত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও, যুবলীগ নেতা আটক!

প্রবাসীর স্ত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও, যুবলীগ নেতা আটক!

লঞ্চের ধাক্কায় নৌকাডুবি: জেলে নিখোঁজ

লঞ্চের ধাক্কায় নৌকাডুবি: জেলে নিখোঁজ

জবাই করে টাকা নিয়ে পালালো রোহিঙ্গা কর্মচারী

জবাই করে টাকা নিয়ে পালালো রোহিঙ্গা কর্মচারী

এমসি কলেজে নববধূকে ধর্ষণ: পেছালো চার্জশিট

এমসি কলেজে নববধূকে ধর্ষণ: পেছালো চার্জশিট

'দল থেকে বহিষ্কার হলেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি ছাড়বো না'

'দল থেকে বহিষ্কার হলেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি ছাড়বো না'

তিন জেলায় বিদ্যুৎ থাকবে না দুই দিন

তিন জেলায় বিদ্যুৎ থাকবে না দুই দিন

অস্ত্র মামলায় নূর হোসেনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

অস্ত্র মামলায় নূর হোসেনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

মৃত গরুর মাংস বিক্রি: কসাইয়ের জেল

মৃত গরুর মাংস বিক্রি: কসাইয়ের জেল

কালীগঙ্গা নদীর পাড় থেকে রিকশাচালকের মরদেহ উদ্ধার

কালীগঙ্গা নদীর পাড় থেকে রিকশাচালকের মরদেহ উদ্ধার

সর্বশেষ

উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট চলছে

উৎসবমুখর পরিবেশে ভোট চলছে

মেইল সর্টিং সেন্টার: কমবে মধ্যস্বত্বভোগীর দৌরাত্ম্য, কৃষক পাবেন পণ্যের ন্যায্য মূল্য

মেইল সর্টিং সেন্টার: কমবে মধ্যস্বত্বভোগীর দৌরাত্ম্য, কৃষক পাবেন পণ্যের ন্যায্য মূল্য

যুক্তরাজ্যে সব ধরণের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

যুক্তরাজ্যে সব ধরণের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা

পুতুলের ভেতরে করে ইয়াবা পাচার

পুতুলের ভেতরে করে ইয়াবা পাচার

দ্বিতীয় দফায় ভোটগ্রহণ চলছে

দ্বিতীয় দফায় ভোটগ্রহণ চলছে

ভিআইপিদের স্বার্থে চার দিনের কোয়ারেন্টিন!

ভিআইপিদের স্বার্থে চার দিনের কোয়ারেন্টিন!

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ৯ কোটি ৪৩ লাখ ছাড়িয়েছে

করোনা শনাক্তের সংখ্যা ৯ কোটি ৪৩ লাখ ছাড়িয়েছে

সেদিন গণভবনের দরজা ছিল অবারিত

সেদিন গণভবনের দরজা ছিল অবারিত

ব্রিজ ভেঙে নদীতে, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ নিহত

ব্রিজ ভেঙে নদীতে, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ নিহত

গৃহহীনদের পাশে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক

গৃহহীনদের পাশে বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মালেক

ভাসানচরে নির্মিত হচ্ছে বিদেশি সংস্থায় কর্মরতদের জন্য ভবন

ভাসানচরে নির্মিত হচ্ছে বিদেশি সংস্থায় কর্মরতদের জন্য ভবন

উন্নয়নের সুফল সবার কাছে পৌঁছে দিতে পরিকল্পনাবিদদের প্রতি আহ্বান

উন্নয়নের সুফল সবার কাছে পৌঁছে দিতে পরিকল্পনাবিদদের প্রতি আহ্বান

সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

ভাড়া না পেয়ে ৫ দিন অবরুদ্ধ, তালাবদ্ধ অবস্থায় শিশুর মৃত্যু!

ভাড়া না পেয়ে ৫ দিন অবরুদ্ধ, তালাবদ্ধ অবস্থায় শিশুর মৃত্যু!

অতিরিক্ত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে রাস্তায় পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা

অতিরিক্ত ফি প্রত্যাহারের দাবিতে রাস্তায় পলিটেকনিক শিক্ষার্থীরা

আদিবাসী নারীকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ

আদিবাসী নারীকে গাছে বেঁধে নির্যাতনের অভিযোগ

প্রবাসীর স্ত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও, যুবলীগ নেতা আটক!

প্রবাসীর স্ত্রীকে বিবস্ত্র করে ভিডিও, যুবলীগ নেতা আটক!

লঞ্চের ধাক্কায় নৌকাডুবি: জেলে নিখোঁজ

লঞ্চের ধাক্কায় নৌকাডুবি: জেলে নিখোঁজ

জবাই করে টাকা নিয়ে পালালো রোহিঙ্গা কর্মচারী

জবাই করে টাকা নিয়ে পালালো রোহিঙ্গা কর্মচারী

এমসি কলেজে নববধূকে ধর্ষণ: পেছালো চার্জশিট

এমসি কলেজে নববধূকে ধর্ষণ: পেছালো চার্জশিট

'দল থেকে বহিষ্কার হলেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি ছাড়বো না'

'দল থেকে বহিষ্কার হলেও বঙ্গবন্ধুর আদর্শের রাজনীতি ছাড়বো না'

তিন জেলায় বিদ্যুৎ থাকবে না দুই দিন

তিন জেলায় বিদ্যুৎ থাকবে না দুই দিন

অস্ত্র মামলায় নূর হোসেনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

অস্ত্র মামলায় নূর হোসেনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড


[email protected]
© 2021 Bangla Tribune
Bangla Tribune is one of the most revered online newspapers in Bangladesh, due to its reputation of neutral coverage and incisive analysis.