X
শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২
২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

‘বান্দরবানের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি খারাপ পর্যায়ে পৌঁছেছে’

বান্দরবান প্রতিনিধি
০৬ মার্চ ২০২২, ১৬:৪৪আপডেট : ০৬ মার্চ ২০২২, ১৬:৪৪

পুলিশ সুপার (এসপি) জেরিন আখতার বলেছেন, ‘সম্প্রতি বান্দরবানের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি অত্যন্ত খারাপ পর্যায়ে পৌঁছেছে।’ বান্দরবানে সাম্প্রতিক সময়ে ঘটে যাওয়া হত্যাকাণ্ড এবং সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন তিনি। রবিবার (৬ মার্চ) সকাল সাড়ে ১১টায় পুলিশ সুপারের সভাকক্ষে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় এসপি বলেন, ‘পাহাড়ের আঞ্চলিক সংগঠন, সামাজিক কুসংস্কারসহ বিভিন্ন কারণে এসব অপরাধ সংগঠিত হচ্ছে। আঞ্চলিক সংগঠনের নেতারা মনে করছেন, তাদের হত্যাকাণ্ডগুলো স্বাভাবিক বিষয়।’

সাংবাদিকদের এ বিষয়গুলো যতটা সম্ভব লেখার মাধ্যমে বোঝানোর অনুরোধ করেন পুলিশ সুপার। সাম্প্রতিক সময়ে সামাজিক কুসংস্কারের কারণে পাঁচ জনকে হত্যার বিষয়ে তিনি বলেন, ‘ভুল বোঝাবুঝির কারণে নিরপরাধ পাঁচ জনকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় আমরা ২২ জনকে গ্রেফতার করেছি। এ ছাড়া মিষ্টিকুমড়া চুরির অপবাদ দিয়ে রোয়াংছড়িতে জুমের জমি থেকে ফেরার পথে এক নারীকে হত্যা করা হয়। শুধু হত্যা করেই অপরাধী ক্ষান্ত হয়নি, তাকে হত্যার পর ধর্ষণও করা হয়।’

এ সময় সাংবাদিকদের উদ্দেশে পুলিশ সুপার বলেন, ‘আমরা চাকরি করতে এখানে এসেছি। আবার সময় হলে চলে যাবো, কিন্তু আপনাদের এখানে থাকতে হবে। তাই অবশ্যই সর্তকতার সঙ্গে কাজ করবেন, যেন আপনাদের জীবনের নিরাপত্তার কোনও সমস্যা না হয়।’

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অশোক কুমার পাল, প্রেস ক্লাবের সেক্রেটারি মিনারুল হক, জিটিভির মো. ইসহাক, যমুনা টিভির বাটিং মারমা, এনটিভির আলাউদ্দিন শাহরিয়ারসহ অন্য সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।

 

 

 

/আরকে/এমএএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে চুরির সময় আটক ৩
কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে চুরির সময় আটক ৩
বাড়ির পাশে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত
বাড়ির পাশে ছুরিকাঘাতে যুবক নিহত
বঙ্গবন্ধুর ঘাতকরা যে পরিকল্পনা করেছিল
বঙ্গবন্ধুর ঘাতকরা যে পরিকল্পনা করেছিল
ডুবন্ত ডাকঘরকে জাগ্রত করতে কাজ করছি: মন্ত্রী
ডুবন্ত ডাকঘরকে জাগ্রত করতে কাজ করছি: মন্ত্রী
এ বিভাগের সর্বশেষ
পাহাড় কাটা: চসিক কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে পরিবেশ অধিদফতরের মামলা
পাহাড় কাটা: চসিক কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে পরিবেশ অধিদফতরের মামলা
পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি, ধসে পড়লে নড়েচড়ে প্রশাসন
পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি, ধসে পড়লে নড়েচড়ে প্রশাসন
২ দিন পর রাঙামাটিতে লঞ্চ চলাচল শুরু
২ দিন পর রাঙামাটিতে লঞ্চ চলাচল শুরু
ধসের পর উচ্ছেদ হলো পাহাড়ের ১৮০ স্থাপনা 
ধসের পর উচ্ছেদ হলো পাহাড়ের ১৮০ স্থাপনা 
পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি উচ্ছেদে অভিযান শুরু
পাহাড়ে ঝুঁকিপূর্ণ বসতি উচ্ছেদে অভিযান শুরু