X
শুক্রবার, ০১ জুলাই ২০২২
১৭ আষাঢ় ১৪২৯

প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে সহকারী প্রধান শিক্ষককে হয়রানির অভিযোগ

আপডেট : ২৫ এপ্রিল ২০২২, ২২:৫৬

খাগড়াছড়ির মাটিরাঙা উপজেলার খেদাছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইকবাল হোসেনের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যমূলকভাবে ওই বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষককে হয়রানির অভিযোগ উঠেছে। গত ২০ বছরে প্রধান শিক্ষক ইচ্ছাকৃতভাবে সহকারী প্রধান শিক্ষককে ৬৭ বার শোকজ করেছেন। অনুপস্থিতির অভিযোগ এনে কেটেছেন বেতন। জানা গেছে, প্রধান শিক্ষকের রোষানলে ওই সহকারী প্রধান শিক্ষক স্ট্রোক করে ওপেন হার্ট সার্জারি করে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় জীবন যাপন করছেন।

সহকারী প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলাম বলেন, ‘১৯৯৬ সালে খেদাছড়া উচ্চ বিদ্যালয়ে যোগদান করি। আর প্রধান শিক্ষক যোগদান করেন ২০০২ সালে। ২০০২ সাল থেকে প্রধান শিক্ষকের অত্যাচার আর সইতে পারছি না। তিনি গত ২০ বছরে আমাকে ৬৭ বার উদ্দেশ্যমূলকভাবে শোকজ নোটিশ করেছেন। আমি সব নোটিশের জবাবও দিয়েছি। সর্বশেষ আমাকে গত ২২ মার্চ ১৪ দিন সময় দিয়ে পাঁচটি বিষয়ের ব্যাখ্যা চেয়ে শোকজ নোটিশ দেন। নোটিশের জবাব দেওয়ার নির্দিষ্ট সময়ের আগেই তিনি পরদিন ২৩ মার্চ আমাকে ৯ দিন অনুপস্থিত দেখিয়ে প্রায় সাড়ে সাত হাজার টাকা বেতন কেটেছেন।

‘প্রধান শিক্ষক কারণে-অকারণে শোকজ নোটিশ দেওয়ায় মানসিক চাপে ইতোপূর্বে স্ট্রোক করেছি। ওপেন হার্ট সার্জারি করে ধুঁকে ধুঁকে বেঁচে আছি। প্রধান শিক্ষকের রোষানলেই হয়তো জীবন শেষ হয়ে যাবে।’

নিজের অসহায়ত্বের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘গত ২ এপ্রিল সর্বশেষ নোটিশের জবাব দিয়েছি। গত ৫ এপ্রিল প্রধান শিক্ষক বরাবরে দরখাস্ত দিয়ে ৯ দিনের বেতন ফেরত পাওয়ার আবেদন করেছি। এ বিষয়ে উপজেলা শিক্ষা অফিসারের কাছে আবেদন করেও প্রতিকার পাইনি। এবার শেষ ভরসা আদালত। আদালতে গিয়ে বিচার চাইবো।’

এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক ইকবাল হোসেন বলেন, ‘ওই সহকারী প্রধান শিক্ষক নিয়ম-কানুনের তোয়াক্কা করেন না। তিনি মন চাইলে স্কুলে আসেন, কাজ করেন। আর মন না চাইলে আসেন না। ২০ বছরে ৬৭টি শোকজ নোটিশ কেন দিতে হলো  সেগুলো পড়লেই তা বুঝতে পারবেন। বিদ্যালয়ে অনপুস্থিতির কারণেই বেতন কাটা হয়েছে। শোকজ নোটিশের জবাবে তিনি কী লিখবেন সেটি দেখার বিষয় না।’

শোকজ নোটিশের কারণেই নুরুল ইসলাম স্ট্রোক করে অসুস্থ হয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় আছেন কিনা জানতে চাইলে প্রধান শিক্ষক বলেন, ‘আমি চিকিৎসক না যে কে কেন স্ট্রোক করে বলতে পারবো। তবে কোনও অনিয়মের জন্যই সহকারী প্রধান শিক্ষক নুরুল ইসলামকে আর ছাড় দেওয়া হবে না।’

এ বিষয়ে মাটিরাঙা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহতাছিন বিল্লাহ জানান, বিষয়টি তার জানা আছে। তিনি তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা থাকলে প্রয়োজনীয় বিভাগীয় ব্যবস্থা নেবেন।

/এমএএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
‘এতদিন শুকনো খাবার খেয়ে থাকা যায়?’
‘এতদিন শুকনো খাবার খেয়ে থাকা যায়?’
নির্গমন কমাতে বাইডেনের ক্ষমতা কমিয়ে দিলো সুপ্রিম কোর্ট
নির্গমন কমাতে বাইডেনের ক্ষমতা কমিয়ে দিলো সুপ্রিম কোর্ট
জঙ্গিদের সুপথে ফেরানো ও সচেতনতা কার্যক্রম কতদূর?
জঙ্গিদের সুপথে ফেরানো ও সচেতনতা কার্যক্রম কতদূর?
‌‘আমাদের খোঁজ কেউ রাখে না’ 
‌‘আমাদের খোঁজ কেউ রাখে না’ 
এ বিভাগের সর্বশেষ
গোমতীর পানি কমে বেরিয়ে আসছে ক্ষত
গোমতীর পানি কমে বেরিয়ে আসছে ক্ষত
খাগড়াছড়িতে ১১ সরকারি প্রতিষ্ঠানের কোটি টাকার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া
খাগড়াছড়িতে ১১ সরকারি প্রতিষ্ঠানের কোটি টাকার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া
মন্ত্রিপরিষদের নির্দেশনা: বি-বাড়িয়া নয়, এখন থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া
মন্ত্রিপরিষদের নির্দেশনা: বি-বাড়িয়া নয়, এখন থেকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া
এক কাউন্সিলরের মামলায় আরেক কাউন্সিলরের জেল ও জরিমানা
এক কাউন্সিলরের মামলায় আরেক কাউন্সিলরের জেল ও জরিমানা
চট্টগ্রাম কাস্টমসে ৫৯ হাজার ২৫৬ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়
চট্টগ্রাম কাস্টমসে ৫৯ হাজার ২৫৬ কোটি টাকা রাজস্ব আদায়