X
বৃহস্পতিবার, ২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
১৬ ফাল্গুন ১৪৩০

সর্দি-কাশি নিয়ে হাসপাতালে আসা শিশু ফিরলো লাশ হয়ে

কুমিল্লা প্রতিনিধি
১২ নভেম্বর ২০২৩, ২৩:১০আপডেট : ১২ নভেম্বর ২০২৩, ২৩:১১

কুমিল্লায় সর্দি-কাশি নিয়ে হাসপাতালে আনার ১২ দিন পর এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। পরিবারের দাবি, চিকিৎসকের ভুলে শিশুটি মারা গেছে। শনিবার বিকাল ৫টায় কুমিল্লা নগরীর টমছম ব্রিজ এলাকার হলি কেয়ার হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

এদিকে, এ ঘটনার সংবাদ সংগ্রহ করতে গেলে ধস্তাধস্তি করে একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের ক্যামেরা কেড়ে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে হাসপাতালের পরিচালক ডা. মোরশেদুল আলমের বিরুদ্ধে।

মারা যাওয়া ওই শিশু কুমিল্লার সদর দক্ষিণ উপজেলার গলিয়ারা দক্ষিণ ইউনিয়নের বাড়াইপুর গ্রামের মো. সোলেমানের ছেলে মো. হোসাইন।

এ ঘটনায় ডিবিসি টেলিভিশনের ক্যামেরাপারসন বিপ্লব হোসেন ধস্তাধস্তিতে আহত হয়েছেন। তাকে কুমিল্লা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেছেন সহকর্মীরা।

নিহত শিশুর বাবা সোলেমান বলেন, ‘গত ২৮ অক্টোবর আমার ছেলেকে সর্দি-কাশির সমস্যা হওয়ায় হলি কেয়ার হাসপাতালে আনি। তখন ডা. আব্দুল কাইয়ুমের পরামর্শে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ১০ নভেম্বর শিশুকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র (আইসিইউতে) নেওয়া হয়। এর আগে তার ইকো বা হার্টের কোনও পরীক্ষা করেননি চিকিৎসকরা। তারা ১০ অক্টোবর আমাদের হঠাৎ করেই জানালেন আমার সন্তানের হার্টের চার ভাগের তিন ভাগ নষ্ট হয়ে গেছে।’

কেন ভুল চিকিৎসার অভিযোগ বা চিকিৎসককে দোষারোপ করছেন? এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘আমাদের যদি চিকিৎসক প্রথম দিনই বলতেন, আমার সন্তানের হার্টের সমস্যা তাহলে আগেই তাকে ঢাকায় বা অন্য কোথাও নিতাম। কিন্তু তারা আমাদের কিছুই জানাননি। আমার সন্তানের হার্টের সমস্যা বোঝার জন্য কোনও পরীক্ষাও করায়নি। তাই আমি চিকিৎসক ছাড়া আর কাকে দোষারোপ করবো। আমরা এই বিষয়ে আইনি ব্যবস্থা নেবো।’

শিশুর মা শিমা আক্তার বলেন, ‘আমার সন্তানের জন্য প্রয়োজনে রক্ত বিক্রি করতাম। ডাক্তার যা বলেছেন আমরা তাই করেছি। কিন্তু ডাক্তার আমাদের সন্তানকে সময়মতো চিকিৎসা দেননি। আমরা জানতাম সর্দি কাশি; হঠাৎ দুই দিন আগে শুনি হার্টের সমস্যা। আমার মানিক আমার সঙ্গে কত হাসতো! আমার মানিককে ফেরত চাই!’ বলেই কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

এ বিষয়ে ডিবিসি টেলিভিশনের ক্যামেরা পারসন বিপ্লব বলেন, ‘শিশুটির মৃত্যুর অভিযোগ পেয়ে আমরা হাসপাতালে যাই। আমার সঙ্গে যমুনা টেলিভিশনের ও সময় টেলিভিশনের সহকর্মীরা ছিলেন। আমরা পরিচালকের বক্তব্য নেওয়া শেষে হাসপাতাল থেকে নামছিলাম। দাঁড়িয়ে সাইনবোর্ডের ফুটেজ নেওয়ার সময় ডাক্তার মোর্শেদুল আলম এসে আমাকে ধাক্কা দেন। “তুই কেন সাইনবোর্ডের ছবি তুলচ?” এই বলে আমাকে ধাক্কা দিয়ে ক্যামেরা টান দেন তিনি। এ সময় তিনি চিৎকার দিয়ে “কে কোথায় আছস? তারে ধর” বলে ডাক দেন। পরে আমার হাত মোচড় দিয়ে ক্যামেরা নিয়ে যান। আমি হাতে ব্যথা পেলে ক্যামেরা ছেড়ে দিই৷ তখন তিনি ক্যামেরা তার রুমে নিয়ে যান।’

এদিকে, হাসপাতালে এ ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন কুমিল্লা প্রেসক্লাবের সভাপতি লুৎফর রহমান।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত চিকিৎসক কাইয়ুমকে খুঁজে না পাওয়ায় বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

হাসপাতালের পরিচালক ডা. মোরশেদুল আলম ক্যামেরা নেওয়ার বিষয়টি স্বীকার করে বলেন, ‘আমি সাংবাদিককে নিচে আমার সঙ্গে দেখা করতে বলেছি। তারা কেন দেখা করেনি? তাই আমি ক্ষুব্ধ হয়েছি। রোগীর অভিযোগ থাকলে থানায় অভিযোগ করতে বলেন।’

এ বিষয়ে কুমিল্লার সিভিল সার্জন ডা. নাছিমা আক্তার বলেন, ‘হলি কেয়ার হাসপাতালের বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হবে।’

/এমএএ/
সম্পর্কিত
দেশে প্রতি হাজার মানুষের জন্য হাসপাতালে একটি শয্যা
২ হাসপাতালের কার্যক্রম স্থগিত, একটি বন্ধ
জমি উদ্ধার করতে গিয়ে হামলার শিকার বন কর্মকর্তা
সর্বশেষ খবর
ইসরায়েলের কাছ থেকে ১১৪ মিলিয়ন ডলার পেয়েছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ: নরওয়ে
ইসরায়েলের কাছ থেকে ১১৪ মিলিয়ন ডলার পেয়েছে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষ: নরওয়ে
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যৌন হয়রানি: প্রতিকারের দায়িত্ব কার?
শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে যৌন হয়রানি: প্রতিকারের দায়িত্ব কার?
ঋণের চাপে ‘আত্মহত্যা’, বাঁশঝাড়ে ঝুলছিল প্রধান শিক্ষকের মরদেহ
ঋণের চাপে ‘আত্মহত্যা’, বাঁশঝাড়ে ঝুলছিল প্রধান শিক্ষকের মরদেহ
ওয়ালটনের পণ্য কিনলে কোটি টাকার নিশ্চিত উপহার
ওয়ালটনের পণ্য কিনলে কোটি টাকার নিশ্চিত উপহার
সর্বাধিক পঠিত
ডাল খেলে গ্যাস্ট্রিক হচ্ছে? জেনে নিন ৫ টিপস
ডাল খেলে গ্যাস্ট্রিক হচ্ছে? জেনে নিন ৫ টিপস
বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন দল কত টাকা পাবে জানালো বিসিবি
বিপিএলে চ্যাম্পিয়ন দল কত টাকা পাবে জানালো বিসিবি
গাজায় যুদ্ধবিরতি: কী বলছে হামাস, ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্র
গাজায় যুদ্ধবিরতি: কী বলছে হামাস, ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্র
বিদ্যুতের বর্ধিত দাম কার্যকর হবে ফেব্রুয়ারি থেকেই
বিদ্যুতের বর্ধিত দাম কার্যকর হবে ফেব্রুয়ারি থেকেই
কেন চালু হচ্ছে না ফাইভ-জি?
কেন চালু হচ্ছে না ফাইভ-জি?