X
শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪
৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ডুবোচরে আটকে পড়া জাহাজের পর্যটদের উদ্ধার 

টেকনাফ প্রতিনিধি
১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮:২১আপডেট : ১০ ডিসেম্বর ২০২৩, ১৮:২১

কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে ডুবোচরে আটকে পড়া সেন্টমার্টিনগামী পর্যটকবাহী জাহাজের যাত্রীদের উদ্ধার করেছে বাংলাদেশ কোস্ট গার্ড।

রবিবার (১০ ডিসেম্বর) দুপুরে টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে নাফনদী মোহনায় নাইক্ষ্যংদ্বীয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে জাহাজে থাকা পর্যটকদের উদ্ধার করে সেন্টমার্টিনে নিয়ে যায় কোস্টগার্ড।

এসব তথ্য নিশ্চিত করে কোস্ট গার্ড সদর দফতরের মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার খন্দকার মুনিফ তকি বলেন, ‘টেকনাফ থেকে সেন্টমার্টিনে যাওয়ার পথে পর্যটকবাহী জাহাজ এমভি গ্রিন লাইন-১ সাগরে আটকা পড়ে। আমাদের একাধিক উদ্ধারকারী দল ঘটনাস্থলে গিয়ে পর্যটকদের উদ্ধার করে। পরে তাদের স্পিড বোটে করে সেন্টমার্টিন দ্বীপে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ সময় বেশ কয়েকজন পর্যটক অসুস্থ হয়ে পড়েন। তদের চিকিৎসাও দেওয়া হয়।’ 

তিনি জানান, এর আগে রবিবার সকালে টেকনাফের বিআইডব্লিউটিএ ঘাট থেকে ৪৪ জন পর্যটক নিয়ে সেন্টমার্টিনের উদ্দেশ্যে গমন করে। পরে সেন্টমার্টিনের চার নটিক্যাল মাইল উত্তরে সমুদ্র এলাকায় ডুবোচরে জাহাজটি আটকে পড়েছিল।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) টেকনাফ অঞ্চলের ট্রাফিক সুপারভাইজার জহির উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, ‘জাহাজটি ডুবোচরে আটকা পড়ার খবর পেয়ে কোস্ট গার্ড পর্যটকদের উদ্ধার করে। পর্যটকবাহী বড় জাহাজগুলো নিরাপদে সেন্টমাটিনে পৌঁছে গেলেও চালকের অদক্ষতার কারণে গ্রিনলাইন জাহাজটি ডুবোচরে আটকে পড়েছিল।’ 

এ বিষয়ে টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. আদনান চৌধুরী বলেন, ‘সেন্টমাটিনগামী পর্যটকবাহী একটি জাহাজ ডুবোচরে আটকে পড়েছিল। পরে আমাদের কোস্ট গার্ড যাত্রীদের উদ্ধার করে। বিষয়টি তদন্ত করে জাহাজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ 

 

/এমএএ/
সম্পর্কিত
কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়কে পর্যটকসহ নিহত ২
ইমিগ্রেশনেই খারাপ অভিজ্ঞতা বিদেশি পর্যটকদের
কক্সবাজার সৈকতে পর্যটকের মৃত্যু
সর্বশেষ খবর
দুই কোরবানির হাটে ক্যাশলেস লেনদেন
দুই কোরবানির হাটে ক্যাশলেস লেনদেন
কানের অফিসিয়াল লালগালিচায় ঢাকার একমাত্র মুখ
কান উৎসব ২০২৪কানের অফিসিয়াল লালগালিচায় ঢাকার একমাত্র মুখ
ফেসবুকে ‘পাত্রী চাই’ বিজ্ঞাপন দিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১
ফেসবুকে ‘পাত্রী চাই’ বিজ্ঞাপন দিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১
১৪ দলের শরিকদের অবমূল্যায়নের অভিযোগ, সান্ত্বনা জোটনেত্রীর
১৪ দলের শরিকদের অবমূল্যায়নের অভিযোগ, সান্ত্বনা জোটনেত্রীর
সর্বাধিক পঠিত
পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে: শেখ হাসিনা
পূর্ব তিমুরের মতো খ্রিষ্টান দেশ বানানোর চক্রান্ত চলছে: শেখ হাসিনা
কবে থেকে পরিকল্পনা ও কেন কলকাতায় হত্যা, জানালো ডিবি
এমপি আনার হত্যাকবে থেকে পরিকল্পনা ও কেন কলকাতায় হত্যা, জানালো ডিবি
নেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
এমপি আজীম হত্যাকাণ্ডনেপথ্যে ২০০ কোটি টাকার লেনদেন, সিলিস্তাকে দিয়ে হানি ট্র্যাপ
সেই শিক্ষকের ‘ওপরের চেহারা’ বিভ্রান্ত করেছে সহকর্মীদেরও
৩০ শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতারসেই শিক্ষকের ‘ওপরের চেহারা’ বিভ্রান্ত করেছে সহকর্মীদেরও
এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না আমার ভাই এমপি হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে: মেয়র সেলিম
এখনও বিশ্বাস করতে পারছি না আমার ভাই এমপি হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে: মেয়র সেলিম