X
সোমবার, ০৮ আগস্ট ২০২২
২৪ শ্রাবণ ১৪২৯

সাপুড়ের বাড়িতে মিললো ২৫ 'পদ্ম গোখরা' 

পটুয়াখালী প্রতিনিধি
১৪ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫১আপডেট : ১৪ অক্টোবর ২০২১, ০৯:৫১

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার নেতা গ্রামের পেশাদার সাপুড়ে মো. নুরু মিয়ার বাড়ি থেকে ২৫টি বিষধর 'পদ্ম গোখরা' সাপ উদ্ধার করা হয়। বুধবার (১৩ অক্টোবর) বিকালে সাপগুলো রাঙ্গাবালী উপজেলার গহীনখালী বন বিভাগের বাগানে অবমুক্ত করা হয়। 

রাঙ্গাবালী রেঞ্জ-সহকারী ও বিট কর্মকর্তা মোহাম্মদ শোয়েব খান বলেন, একটি পশুপ্রেমি সংগঠন 'এনিম্যাল লাভারস অফ পটুয়াখালী'র সদস্য আহমেদ রুমান আমাদেরকে জানান যে রাঙ্গাবালী সদর ইউনিয়নের নেতা গ্রামের মো. নুরু মিয়ার বাড়িতে অনেকগুলো সাপ আটকে রাখা হয়েছে। পরে মঙ্গলবার দুপুরে ওই বাড়িতে অভিযান চালিয়ে সাপগুলো উদ্ধার করা হয়। বুধবার গহীনখালী বনে সাপগুলো অবমুক্ত করা হয়। এ সময় সাপুড়ে নুরু মিয়াসহ এলাকার অনেক মানুষ উপস্থিত ছিল। 

পশুপ্রেমি সংগঠন 'এনিম্যাল লাভারস অফ পটুয়াখালী'র সদস্য আহমেদ রুমান বলেন, রাঙ্গাবালী উপজেলার নেতা গ্রামের পেশাদার সাপুড়ে নুরু মিয়া অনেকদিন ধরে উপজেলার বিভিন্ন জায়গা থেকে বিষধর সাপ ধরে তার বাড়িতে নিয়ে আসেন। আমরা গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারি ওই সাপগুল তিনি বিক্রি করবেন। পরে বন বিভাগের লোকদের নিয়ে ওই সাপুড়ের বাড়ি থেকে ২৫টি বিষধর 'পদ্ম গোখরা' সাপ উদ্ধার করেছি। এদের মধ্যে দুটি সাপ বড় আর ২৩টি ছোট। এ সময় সাপুড়ে নুরু মিয়াকে  বণ্যপ্রাণী সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা আইন -১২ সম্পর্কে বোঝানো হলে তিনি নিজ কাজের জন্য ক্ষমা চেয়েছেন। 

সাপুড়ে নুরু মিয়া বলেন, আমি ২৫ বছর পর্যন্ত দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিষধর সাপ ধরেছি। এই সাপ নিয়ে বিভিন্ন বাজারে খেলা দেখিয়ে যা আয় হয় তা দিয়ে আমার সংসার চলে। আমি অশিক্ষিত মানুষ, সাপ ধরা যে অপরাধ তা জানতাম না। 

তিনি আরও বলেন, ৯ দিন আগে একটি সাপ ধরতে গিয়ে ওই সাপের মুখ থেকে বিষ ছিটে আমার ডান চোখে লাগে যায়। এতে আমার ওই চোখে তেমন দেখতে পাই না। ঢাকায় ডাক্তার দেখাচ্ছি, ২৫ তারিখে আবার যেতে বলছে ভালো হয় কিনা জানি না। আগে তো সাপের খেলা দেখিয়ে সংসার চালাতাম এখন আমার সংসার কীভাবে চলবে তাই নিয়ে চিন্তায় আছি। বন বিভাগ যদি সাহায্য- সহযোগিতা করে, আমি তাদের সঙ্গে কাজ করতে ইচ্ছুক। মানুষের বাড়ি-ঘর থেকে সাপ ধরে বনে অবমুক্ত করবো। 

বিভাগীয় বন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যদের সাপ সংরক্ষণ সম্পর্কে আগামী মাসের ১০ তারিখে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। এর আগে সংগঠনের সদস্যদের ঢাকায় নিয়ে বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ সম্পর্কে বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। এরই ফলে তারা বিভিন্ন জায়গা থেকে বন্দি পশু-পাখি অবমুক্ত করছেন।

যারা পেশাদার সাপুড়ে ও পাখি শিকরি তারা এই পেশা বন্ধ করে দিলে বন বিভাগ থেকে কোন সাহায্য- সহযোগিতা করা যাবে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, বন বিভাগ থেকে এরকম সাহায্য করার মতো কোনও ব্যবস্থা নেই। তবে যারা বনের ওপর নির্ভরশীল তাদের বিকল্প পেশার জন্য ঋণের ব্যবস্থা আছে বলে জানান তিনি। 

 

/টিটি/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
বাসে ‘আদায় হচ্ছে’ অতিরিক্ত ভাড়া, ক্ষুব্ধ যাত্রীরা
বাসে ‘আদায় হচ্ছে’ অতিরিক্ত ভাড়া, ক্ষুব্ধ যাত্রীরা
ঢাকা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে চাকরির সুযোগ
ঢাকা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে চাকরির সুযোগ
মালয়েশিয়ায় কর্মীদের প্রথম ফ্লাইট যাচ্ছে আজ 
মালয়েশিয়ায় কর্মীদের প্রথম ফ্লাইট যাচ্ছে আজ 
যবিপ্রবির প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে এবার অধ্যাপকের মানহানির মামলা
যবিপ্রবির প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে এবার অধ্যাপকের মানহানির মামলা
এ বিভাগের সর্বশেষ
ভগ্ন হৃদয়ে বরগুনা ছাড়লেন প্রেমের টানে আসা তামিল যুবক
ভগ্ন হৃদয়ে বরগুনা ছাড়লেন প্রেমের টানে আসা তামিল যুবক
‘প্রেমিকার’ মা-বাবার সঙ্গে দেখা করা ছাড়া ফিরবেন না প্রেমকান্ত
‘প্রেমিকার’ মা-বাবার সঙ্গে দেখা করা ছাড়া ফিরবেন না প্রেমকান্ত
মুক্তিযোদ্ধাসহ সাত জনের কঙ্কাল চুরি
মুক্তিযোদ্ধাসহ সাত জনের কঙ্কাল চুরি
স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার, থানায় ৩ কিশোর
স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার, থানায় ৩ কিশোর
‘প্রেমের টানে’ আসা ভারতীয় যুবকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ 
‘প্রেমের টানে’ আসা ভারতীয় যুবকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ