X
বৃহস্পতিবার, ২৩ মে ২০২৪
৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

ঋণের চাপে আত্মহত্যা: এনজিওর ছয় কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা

পিরোজপুর প্রতিনিধি
১৭ মার্চ ২০২৪, ২৩:২৮আপডেট : ১৭ মার্চ ২০২৪, ২৩:২৮

পিরোজপুরের নেছারাবাদে ঋণ পরিশোধের চাপে এক নারীর ‘আত্মহত্যার’ ঘটনায় শনিবার মামলা করা হয়েছে। এতে ‘ডাক দিয়ে যাই’ নামের একটি বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের ছয় কর্মকর্তাকে আসামি করা হয়। এর আগে গত বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার উত্তর-পশ্চিম সোহাগদল গ্রাম থেকে তাসলিমা বেগম (৫০) নামের ওই নারীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়।

মামলার আসামিরা হলেন ‘ডাক দিয়ে যাই’র ইন্দেরহাট শাখার ফিল্ড অফিসার সমির চন্দ্র ঘোষ, সাইফুর রহমান, আহাদ হোসেন, নির্বাহী পরিচালক মো. শাহজাহান গাজী, এরিয়া ম্যানেজার আসাদুজ্জামান মিলন ও ব্রাঞ্চ ম্যানেজার দীপংকর শীল। আসামিদের প্ররোচনায় তাসলিমা আত্মহত্যা করেছেন বলে মামলায় অভিযোগ করা হয়।  

মামলার বাদী তাসলিমার ছেলে মো. তামিমের দাবি, তার ছোট ভাই মিরাজ স্ত্রীর নামে ‘ডাক দিয়ে যাই’ এনজিওর ইন্দেরহাট শাখা থেকে ৪০ হাজার টাকার ঋণ নেয়। এতে তার মাকে সাক্ষী রাখা হয়। মিরাজ কয়েকটি কিস্তি পরিশোধের পর বাড়ি থেকে সটকে পড়ে। কিস্তিখেলাপি হওয়ায় এনজিওর লোকেরা বাড়িতে এসে মাকে চাপ দিচ্ছিলেন। ১৩ মার্চ সন্ধ্যায় এনজিওর লোকজন বাড়িতে এসে মাকে নানা কথা বলেন। তাকে বলা হয়, ‘এ রকম কুলাঙ্গার ছেলে আপনি কেন জন্ম দিয়েছেন? আপনি মরেন না কেন? আপনি মরলেও আমরা বেঁচে যেতাম।’ তাদের এমন কথায় আমার মা রাতেই বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। পরদিন সকালে বাড়ির পাশে একটি বাগানে তার ঝুলন্ত লাশ পাই। ‘ডাক দিয়ে যাই’ এনজিওর লোকদের এমন কথায় মা আত্মহত্যা করেছেন।

তবে ডাক দিয়ে যাই এনজিওর পরিচালক তাজুল ইসলাম অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমাদের ঋণগ্রহীতা কলি বেগম নামের এক গৃহবধূ অভিযোগকারী পরিবারের পুত্রবধূ। তারা ওই বাসায় থাকতেন। তাই আমার অফিসের লোক তাদের বাসায় গিয়ে কলির শাশুড়ি তাসলিমার কাছে কলি ও তার স্বামী মিরাজের ব্যাপারে জানতে চেয়েছিলেন মাত্র, আর কিছু নয়।’ 

নেছারাবাদ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম সরোয়ার বলেন, ‘মামলার আসামিদের ধরতে অভিযান চলছে। তবে এখনও কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।’ 

/এএম/  
সম্পর্কিত
৩০ শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে গ্রেফতারসেই শিক্ষকের ‘ওপরের চেহারা’ বিভ্রান্ত করেছে সহকর্মীদেরও
বাবাকে সম্পত্তি নিয়ে চিন্তা না করতে লিখে ব্যাংকের ভেতরে প্রাণ দিলেন প্রহরী
ধর্ষণে বাধা দেওয়ায় শিশুকে হত্যা: ৬ বছর পর আসামির যাবজ্জীবন
সর্বশেষ খবর
সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে করা রিভিউয়ের শুনানি ১১ জুলাই
সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী নিয়ে করা রিভিউয়ের শুনানি ১১ জুলাই
ভারতের কোচ হতে প্রস্তাব পেয়েছিলেন পন্টিং
ভারতের কোচ হতে প্রস্তাব পেয়েছিলেন পন্টিং
পি কে হালদারের দুই সহযোগীকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ
পি কে হালদারের দুই সহযোগীকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ
উপজেলা নির্বাচনে দেবরের জন্য ভোট চাচ্ছেন এমপির স্ত্রী
উপজেলা নির্বাচনে দেবরের জন্য ভোট চাচ্ছেন এমপির স্ত্রী
সর্বাধিক পঠিত
যেভাবে এমপি আনোয়ারুল আজীমকে হত্যা করা হয়
যেভাবে এমপি আনোয়ারুল আজীমকে হত্যা করা হয়
‘খুন’ কিন্তু ‘লাশ নেই’: যা জানা গেলো এমপি আজীমকে নিয়ে
‘খুন’ কিন্তু ‘লাশ নেই’: যা জানা গেলো এমপি আজীমকে নিয়ে
কে এই এমপি আনার?
কে এই এমপি আনার?
এমপি আনোয়ারুল আজীম হত্যা নিয়ে বিবিসি বাংলার প্রতিবেদনে যা জানা গেলো
এমপি আনোয়ারুল আজীম হত্যা নিয়ে বিবিসি বাংলার প্রতিবেদনে যা জানা গেলো
যুক্তরাষ্ট্রের নতুন ‘অস্ত্র’ দুর্নীতি
সাবেক সেনাপ্রধানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞাযুক্তরাষ্ট্রের নতুন ‘অস্ত্র’ দুর্নীতি