X
রবিবার, ০২ অক্টোবর ২০২২
১৬ আশ্বিন ১৪২৯

ক্যানসার আক্রান্ত প্রেমিকাকে হাসপাতালে বিয়ে

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম
১৫ মার্চ ২০২২, ২২:২৮আপডেট : ১৫ মার্চ ২০২২, ২২:৫৬

হাসপাতালে ক্যানসার আক্রান্ত প্রেমিকা ফাহমিদা কামালকে বিয়ে করে ভালোবাসার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন প্রেমিক মাহমুদুল হাসান। ৯ মার্চ রাত সাড়ে ৮টায় চট্টগ্রাম মেডিক্যাল সেন্টারে তাদের বিয়ে হয়। হাসপাতালের বেডেই বর-কনে সেজে বিয়ে করেন তারা।

মাহমুদুল হাসান (৩০) কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ফাসিয়াখালীর সাবেক চেয়ারম্যান আজিজুল হকের ছেলে। তিনি নর্থ-সাউথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করেছেন। পাশাপাশি চট্টগ্রামের দক্ষিণ বাকলিয়ার বাসিন্দা ফাহমিদা কামাল (২৫) আইইউবি থেকে এমবিএ করেছেন।

বিয়ের বিষয়ে মাহমুদুল হাসান বলেন, ‌‘আমি ফাহমিদাকে অনেক ভালোবাসি। দীর্ঘদিন ধরে ফাহমিদা ক্যানসার আক্রান্ত। সবকিছু জেনে বুঝে তাকে বিয়ে করেছি। এমনকি স্ত্রীর যাবতীয় সব চিকিৎসার দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিয়েছি। আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ২০১৮ সালে ফাহমিদা ও মাহমুদুলের পরিচয়। একসময় প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে যান দুজন। পরে বিয়ের সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু সেখানে ব্যাঘাত ঘটায় ফাহমিদার মরণঘাতী ক্যানসার। ২০২১ সালের জানুয়ারিতে ক্যানসার ধরা পড়ার পর তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকার এভারকেয়ার হাসপাতালে নেওয়া হয়।

সেখান থেকে ভারতের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতালে নেওয়া হয়। দীর্ঘ এক বছর চিকিৎসার পর সেখানকার চিকিৎসকরা জানান, ফাহমিদার চিকিৎসা আর সম্ভব নয়, ইঙ্গিত দেন বেঁচে থাকার সম্ভাবনা কম। এরপর পরিবারের সদস্যরা ফাহমিদাকে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল সেন্টারে ভর্তি করান। সেখানে ডা. সাজ্জাদ বিন ইউসুফের তত্ত্বাবধানে চলছে চিকিৎসা। কিন্তু ক্রমাগত ফাহমিদার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়।

সবকিছু জেনেও ফাহমিদাকে বিয়ে করতে চান মাহমুদুল হাসান। পরিবারকে নিয়ে এসে বিয়ের প্রস্তাব দেন। প্রথমে ফাহমিদার পরিবার রাজি হয়নি। পরে ফাহমিদা সম্মতি দিলে পরিবার রাজি হয়। ৯ মার্চ রাতে চট্টগ্রাম মেডিক্যাল সেন্টারে তাদের বিয়ে হয়।

ফাহমিদার মামা চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের সাবেক জনসংযোগ কর্মকর্তা সাইফুদ্দিন সাকী বলেন, বিয়েতে ফাহমিদাকে পরানো হয় লাল বেনারসি শাড়ি। মাহমুদুল হাসান পায়জামা-পাঞ্জাবি পরে। এক টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ে হয়। দুজন মিলে কেক কাটে, মালা বদল করে। খেজুর ও মিষ্টি খাওয়ানো হয়।

সাইফুদ্দিন সাকী আরও বলেন, ফাহমিদা এখন নানা যন্ত্রণায় ভুগছে। একটু ভালো অনুভব করায় হাসপাতাল থেকে গতকাল সোমবার রাত ৯টার দিকে বাসায় নিয়ে আসা হয়। মঙ্গলবার ভোরে আবারও অসুস্থতাবোধ করে। সকালে তাকে পুনরায় মেডিক্যাল সেন্টারে নেওয়া হয়। বর্তমানে হাসপাতালে আছে। দুই বোন এক ভাইয়ের মধ্যে দ্বিতীয় ফাহমিদা। তার বড় বোন স্বামীর সঙ্গে চীনে থাকে। ছোট ভাই একটি কলেজে পড়ে।

/এএম/এমওএফ/
সম্পর্কিত
কাশিমপুর কারাগারে হাজতির সঙ্গে তরুণীর বিয়ে
কাশিমপুর কারাগারে হাজতির সঙ্গে তরুণীর বিয়ে
‘প্রেমের টান’ এর পরিণতি কী?
‘প্রেমের টান’ এর পরিণতি কী?
বিয়ের দেনমোহর ১০১টি বই
বিয়ের দেনমোহর ১০১টি বই
ব্রাজিলের নারীকে বিয়ে করে রকিব এখন যুক্তরাষ্ট্রে
ব্রাজিলের নারীকে বিয়ে করে রকিব এখন যুক্তরাষ্ট্রে
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
যতদিন তোরা আছিস, ততদিন আমি আছি: জেমস
শুভ জন্মদিনযতদিন তোরা আছিস, ততদিন আমি আছি: জেমস
পদ্মা সেতুর আদলে সেজেছে পূজামণ্ডপ 
পদ্মা সেতুর আদলে সেজেছে পূজামণ্ডপ 
শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে চোরচক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার
শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে চোরচক্রের ৪ সদস্য গ্রেফতার
‘মানবাধিকারকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্র’
‘মানবাধিকারকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে যুক্তরাষ্ট্র’
এ বিভাগের সর্বশেষ
কাশিমপুর কারাগারে হাজতির সঙ্গে তরুণীর বিয়ে
কাশিমপুর কারাগারে হাজতির সঙ্গে তরুণীর বিয়ে
বিয়ের দেনমোহর ১০১টি বই
বিয়ের দেনমোহর ১০১টি বই
ব্রাজিলের নারীকে বিয়ে করে রকিব এখন যুক্তরাষ্ট্রে
ব্রাজিলের নারীকে বিয়ে করে রকিব এখন যুক্তরাষ্ট্রে
প্রেমের টানে পরিবার নিয়ে বাংলাদেশে মালয়েশিয়ান তরুণী
প্রেমের টানে পরিবার নিয়ে বাংলাদেশে মালয়েশিয়ান তরুণী
প্রেমের টানে বাংলাদেশে এসে আটক, ৫ মাস পর দেশে ফিরলেন তরুণী
প্রেমের টানে বাংলাদেশে এসে আটক, ৫ মাস পর দেশে ফিরলেন তরুণী