X
শনিবার, ১৩ জুলাই ২০২৪
২৯ আষাঢ় ১৪৩১

কোরবানির ১ লাখ ৭২ হাজার পশুর চামড়া গেলো কোথায়?

নাসির উদ্দিন রকি, চট্টগ্রাম
২৫ জুন ২০২৪, ০০:০১আপডেট : ২৫ জুন ২০২৪, ০০:০১

চট্টগ্রামে এক লাখ ৭২ হাজার ১৩৮টি কোরবানির পশুর (গরু-মহিষ) চামড়ার হদিস মিলছে না। জেলা প্রাণিসম্পদ দফতর গরু-মহিষের চামড়ার যে হিসাব দিয়েছে, আর আড়তদারদের কাছে যে পরিমাণ চামড়া মজুত আছে; তাতে এক লাখ ৭২ হাজার ১৩৮টির গরমিল দেখা যাচ্ছে। এ অবস্থায় এসব চামড়া কোথায় গেলো, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন খোদ আড়তদাররা।

জেলা প্রাণিসম্পদ কার্যালয় সূত্র জানায়, এবার ঈদুল আজহায় আট লাখ ৮৫ হাজার ৭৬৫টি পশু কোরবানি দেওয়ার কথা ছিল। এর মধ্যে দেওয়া হয়েছে আট লাখ ১৮ হাজার ৪৬৮টি। যার মধ্যে ছাগল ও ভেড়া মিলে দুই লাখ ৮৫ হাজার ২৪৩টি। গরু-মহিষ কোরবানি দেওয়া হয়েছে পাঁচ লাখ ৩৩ হাজার ৮৮টি। এর মধ্যে সন্দ্বীপ উপজেলায় কোরবানি হয়েছে ৭৬ হাজার ৬৩৬, মীরসরাইয়ে ৫৮ হাজার ৩৬৪, সীতাকুণ্ডে ৪৪ হাজার ১৯৬, ফটিকছড়িতে ৫৫ হাজার ৫৪৩, হাটহাজারীতে ৪২ হাজার ২১৩, রাউজানে ৪২ হাজার, রাঙ্গুনিয়ায় ৫৩ হাজার ৭৯৩, বোয়ালখালীতে ২৪ হাজার ২৮৬, চন্দনাইশে ৩৯ হাজার ২০, পটিয়ায় ৫৭ হাজার ৮১০, লোহাগাড়ায় ৩৯ হাজার ৬৭৯, সাতকানিয়ায় ৩৯ হাজার ৮৮, বাঁশখালীতে ৪৫ হাজার ৯১৫, আনোয়ারায় ৫০ হাজার ৮৭৬, কর্ণফুলীতে ৩৬ হাজার ৮২৩, কোতোয়ালিতে ১৬ হাজার ৮৫৫, ডবলমুরিংয়ে ৫১ হাজার ৩৯৭ এবং পাঁচলাইশে ৪৩ হাজার ৯৬৯টি।

জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. মো. নজরুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‌‘চট্টগ্রামে এবার আট লাখ ১৮ হাজার ৪৬৮ পশু কোরবানি দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ছাগল ও ভেড়া মিলে দুই লাখ ৮৫ হাজার ২৪৩টি। গরু-মহিষ পাঁচ লাখ ৩৩ হাজার ৮৮টি। এর মধ্যে গরু চার লাখ ৭১ হাজার ৬৩৮টি এবং মহিষ ৬১ হাজার ৪৫০টি। গরুর মধ্যে গাভি/বকনা ৩৩ হাজার ৩১০, ষাঁড়/বলদ মিলে চার লাখ ৩৮ হাজার ৩২৮ এবং অন্যান্য পশু ১৩৭টি। উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তাদের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে এ রিপোর্ট তৈরি করেছি আমরা। আমাদের তথ্যে গরমিল হওয়ার কথা নয়। বাকি চামড়া কোথায় গেছে, তা ব্যবসায়ীরা বলতে পারবেন।’

চট্টগ্রাম কাঁচা চামড়া ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মুসলিম উদ্দিন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘নগরী ও জেলা মিলে ১০৮ জন আড়তদার চামড়া সংগ্রহ করে প্রক্রিয়াজাত করেছেন। ১০৮ জন আড়তদার গরু-মহিষের তিন লাখ ৬০ হাজার ৯৫০টি চামড়া সংগ্রহ করেছেন। এর বাইরে চট্টগ্রামে আর কোনও চামড়ার মজুত নেই। তবে ছাগল ও ভেড়ার চামড়ার হিসাব আমাদের কাছে নেই। কারণ আমরা ওসব চামড়া কিনি নাই।’

প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা মুখস্থ হিসাব দিয়েছেন অভিযোগ করে এই আড়তদার আরও বলেন, ‘তারা যে পরিমাণ পশু কোরবানি হয়েছে বলে দাবি করেছেন, প্রকৃতপক্ষে তত পশু কোরবানি হয়নি। এ কারণে তাদের সঙ্গে চামড়ার হিসাব মিলছে না। ইতোমধ্যে আড়তদাররা চামড়া বিক্রি শুরু করেছেন। শনিবার ঢাকার ট্যানারির কাছে ১৫ হাজার চামড়া বিক্রি করা হয়েছে। চট্টগ্রামের রিফ লেদার ট্যানারি এক লাখের মতো চামড়া কিনবে। ঢাকার অন্যান্য ট্যানারিও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছে। দামে মিললে বিক্রি করবো।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চট্টগ্রাম কাঁচা চামড়া ব্যবসায়ী সমিতির সহসভাপতি মো. আবদুল কাদের সর্দার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘চট্টগ্রাম নগরী ও জেলার মধ্যে যেসব পশু কোরবানি হয়েছে, সব পশুর চামড়া আমাদের কাছে এসেছে। তবে প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা পশু কোরবানির যে হিসাব দিয়েছেন, সেটি অনুমান-নির্ভর এবং বাস্তবতার সঙ্গে কোনও মিল নেই। আমাদের কাছে চামড়া আছে তিন লাখ ৬০ হাজার ৯৫০টি। অথচ প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা বলেছেন গরু-মহিষ কোরবানি হয়েছে পাঁচ লাখ ৩৩ হাজার ৮৮টি। তাহলে বাকি চামড়া গেলো কোথায়? তার জবাব প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারাই দেবেন।’

তিনি বলেন, ‘কোনও একটি খামারে গরু আছে ৫০টি। প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তারা হিসাব দেন ২০০টি। এতে খামার মালিকরা ব্যাংক ঋণ নেওয়া থেকে শুরু করে কালো টাকা সাদা করাসহ নানা সুবিধা পাচ্ছেন। বিষয়টি আমরা জেলা প্রশাসকের সঙ্গে বৈঠকেও উল্লেখ করেছি। মূলত তাদের তথ্যে গরমিল আছে।’

চট্টগ্রামের রিফ লেদার ট্যানারির পরিচালক মোখলেসুর রহমান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা এবার ৮০ হাজার থেকে এক লাখ লবণজাত চামড়া কিনবো। এখনও কেনা শুরু করিনি। দুই-একদিনের মধ্যে আমাদের লোকজন আতুরার ডিপোর আড়তে যাবে। সেখানে পর্যবেক্ষণ করবেন। পর্যায়ক্রমে চামড়াগুলো কিনবেন।’

এবার কোরবানির পশুর কোনও চামড়া পাচার হয়েছে কিনা জানতে চাইলে জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) আবু তৈয়ব মো. আরিফ হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘চট্টগ্রামে যেসব পশু কোরবানি দেওয়া হয়েছে, সেসব চামড়া চট্টগ্রামেই আছে। জেলা থেকে কোনও চামড়া যাতে অন্য কোথাও না যায়, সেদিকে কঠোর নজরদারি ছিল পুলিশের। এখন পর্যন্ত কোনও চামড়া পাচার হয়নি।’

/এএম/
সম্পর্কিত
এবার ঈদেও কেন কমলো না সড়ক দুর্ঘটনা?
আলোচিত সেই ছাগল এখন কোথায়?
সড়কে চামড়ার স্তূপ, ‘নাক চেপে’ পার হচ্ছেন পথচারীরা
সর্বশেষ খবর
উজানে কমছে, ভাটিতে এখনও হাজারো পরিবার পানিবন্দি
উজানে কমছে, ভাটিতে এখনও হাজারো পরিবার পানিবন্দি
টিভিতে আজকের খেলা (১৩ জুলাই, ২০২৪)
টিভিতে আজকের খেলা (১৩ জুলাই, ২০২৪)
পদ্মার পানি বিপদসীমার ওপরে, ফেরি চলছে ধীরে
পদ্মার পানি বিপদসীমার ওপরে, ফেরি চলছে ধীরে
কেয়ার হোম নিয়ে ব্রিটেনের আদালতে বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠানের সাফল্য
কেয়ার হোম নিয়ে ব্রিটেনের আদালতে বাংলাদেশি প্রতিষ্ঠানের সাফল্য
সর্বাধিক পঠিত
ভিটামিন বি-১২ কমে গেলে যেসব রোগের ঝুঁকি বাড়ে
ভিটামিন বি-১২ কমে গেলে যেসব রোগের ঝুঁকি বাড়ে
দুই টাইলসের মাঝে দাগ পড়লে কী করবেন
দুই টাইলসের মাঝে দাগ পড়লে কী করবেন
রাশিয়াকে সহযোগিতা নিয়ে ন্যাটোর অভিযোগে চীনের পাল্টা আক্রমণ
রাশিয়াকে সহযোগিতা নিয়ে ন্যাটোর অভিযোগে চীনের পাল্টা আক্রমণ
পুলিশ কর্মকর্তা কামরুলের স্ত্রীর নামে আছে পাঁচ জাহাজ
পুলিশ কর্মকর্তা কামরুলের স্ত্রীর নামে আছে পাঁচ জাহাজ
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর ব্যাপারে ইতিবাচক মিয়ানমার
বিমসটেক রিট্রিটরোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরুর ব্যাপারে ইতিবাচক মিয়ানমার