X
রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২
১১ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে উদ্যোক্তার রেস্তোরাঁয় হামলার অভিযোগ

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৮:৩১আপডেট : ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৮:৩১

মানিকগঞ্জের কালীগঙ্গা নদীর পাড় ঘেঁষে অবস্থিত এক তরুণ উদ্যোক্তার রেস্তোরাঁয় হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাটের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। সোমবার (২৬ সেপ্টেম্বর) রাতে এই ঘটনা ঘটে।

রেস্তোরাঁর মালিক ও তরুণ উদ্যোক্তা এম এম জনি দাবি করেন, হামলাকারীরা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সিফাত কোরাইশী সুমনের ঘনিষ্ঠ অনুসারী। তবে এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির দাবি, বিষয়টি তিনি জানেন না। তবে কোনও ব্যক্তি করে থাকলে ছাত্রলীগ এর দায় নিতে পারে না।

রেস্তোরাঁর লোকজন ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, প্রায় ছয় মাস আগে কালিগঙ্গা নদীর দক্ষিণ পাড় ঘেঁষে ‘বেউথা টি ইফেক্ট অ্যান্ড ফিশ ল্যান্ড’ নামে ওই রেস্তোরাঁ গড়ে তোলেন জনি। তিনি জেলা কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদকও। সোমবার রাত ৮টার দিকে জেলা ছাত্রলীগের সাবেক উপ-দফতর সম্পাদক মনিরুল হক মিম, ছাত্রলীগ কর্মী শামীম হোসেন বাবু, আতিকুর রহমান ও তন্ময় হোসেনসহ ৮/১০ নেতা-কর্মী মদ্যপ অবস্থায় ওই রেস্তোরাঁয় ঢুকে গালিগালাজ করতে থাকেন।

একপর্যায়ে তারা রেস্তোঁরায় খেতে আসা তরুণীদের উত্ত্যক্ত করেন। রেস্তোরাঁর মালিক জনি তাদেরকে সংযত হতে বলেন। পরে তারা আরও উত্তেজিত হয়ে তার সঙ্গেও অশোভন আচরণ করতে থাকেন এবং তারা বলতে থাকেন তারা ছাত্রলীগের রাজনীতি করেন। পরে তারা সেখান থেকে চলে যান।

এরপর রাত ১০টার দিকে ছাত্রলীগের ১০-১২ নেতাকর্মী ধারালো চাপাতি ও রামদা নিয়ে ওই রেস্তোরাঁয় ঢুকে হামলা চালান। তারা রেস্তোরাঁর ছয়টি টিনশেড ঘর ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ভাঙচুর করেন। একই সময়ে দুটি ফ্রিজ, বেশ কয়েকটি চেয়ার ও একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেন। বাধা দিতে গেলে হামলাকারীরা রেস্তোরাঁর ব্যবস্থাপক আসিফ হোসেনকে চাপাতি দিয়ে আঘাত করেন। এতে তার দুই হাত রক্তাক্ত জখম হয়।

মঙ্গলবার সকালে রেস্তোরাঁয় গিয়ে দেখা গেছে, চার-পাঁচটি টিনশেড ঘরের বেড়া কাটা। রেস্তোরাঁর দুটি ফ্রিজ, বেশ কয়েকটি চেয়ার ও একটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর অবস্থায় পড়ে রয়েছে। রেস্তোরাঁর বিভিন্ন মালামাল ছড়িয়ে-ছিটিয়ে আছে।

মালিক এম এম জনি দাবি করেন, মদ্যপ অবস্থায় আসা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা রেস্তোরাঁয় মেয়েদের উত্ত্যক্ত করতে থাকেন। বাধা দেওয়ায় তারা বলেন, আমরা ছাত্রলীগের সভাপতি সুমনের লোকজন। তাৎক্ষণিক জনি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতির সঙ্গে মোবাইল ফোনে কথা বলেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সেখান থেকে চলে যান তারা। এরপর রাত ১০টার দিকে ছাত্রলীগের ১০-১২ নেতাকর্মী রেস্তোঁরায় ঢুকে তাণ্ডব চালান। হামলার সময় রেস্তোরাঁ থেকে ২৪ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যান। এ ঘটনায় তার ছয় লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে তিনি থানায় মামলার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাজিদুল ইসলাম বলেন, ঘটনাটি অত্যন্ত নিন্দনীয় এবং অপরাধমূলক। এই ঘটনায় ছাত্রলীগের কেউ জড়িত থাকলে তদন্ত করে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মানিকগঞ্জ সদর থানার ওসি আবদুর রউফ সরকার বলেন, খবর পেয়ে রাতেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। মঙ্গলবার সকালে আমি ওই রেস্তোরাঁয় যাই। লিখিত অভিযোগ পেলে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/এফআর/
প্রস্থানের দুই বছর: শিল্পকলায় অবিনশ্বর আলী যাকের
মৃত্যুদিনে স্মরণপ্রস্থানের দুই বছর: শিল্পকলায় অবিনশ্বর আলী যাকের
পূর্ণ সক্ষমতায় ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে যাচ্ছে রামপাল
পূর্ণ সক্ষমতায় ৬৬০ মেগাওয়াট বিদ্যুৎ উৎপাদনে যাচ্ছে রামপাল
এমবাপ্পের জোড়া গোলে নকআউটে ফ্রান্স
এমবাপ্পের জোড়া গোলে নকআউটে ফ্রান্স
আবারও নাসিমের অনুসারীদের পেটালো বিএনপির সমর্থকরা
আবারও নাসিমের অনুসারীদের পেটালো বিএনপির সমর্থকরা
সর্বাধিক পঠিত
ঢাকা থেকে কক্সবাজারের দূরত্ব কমবে ৪০ কিমি
ঢাকা থেকে কক্সবাজারের দূরত্ব কমবে ৪০ কিমি
পোল্যান্ডের জয়ে আরও চাপে মেসিরা
পোল্যান্ডের জয়ে আরও চাপে মেসিরা
কুমিল্লার সমাবেশস্থলে হারানো ফোনের সন্ধান দিলে পুরস্কার ২০ হাজার
কুমিল্লার সমাবেশস্থলে হারানো ফোনের সন্ধান দিলে পুরস্কার ২০ হাজার
ম্যাজিস্ট্রেটের মামলায় কারাগারে স্বামী
ম্যাজিস্ট্রেটের মামলায় কারাগারে স্বামী
ইউক্রেন ইস্যুতে অবস্থান স্পষ্ট করলো ন্যাটো
ইউক্রেন ইস্যুতে অবস্থান স্পষ্ট করলো ন্যাটো