X
শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩
১৪ মাঘ ১৪২৯

মাইকিংয়ে অতিষ্ঠ গোয়ালন্দ পৌরবাসী

রাজবাড়ী প্রতিনিধি
১৩ নভেম্বর ২০২২, ১০:২৬আপডেট : ১৩ নভেম্বর ২০২২, ১০:২৯

‘সুখবর, সুখবর, সুখবর, বিশাল মূল্য ছাড়, ডাক্তার আছেন—মাইকে উচ্চ শব্দে এই কথাগুলো প্রতিনিয়ত শুনতে শুনতে বিরক্ত ও অসুস্থ হয়ে পড়ছি। প্রতিদিন সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত উচ্চ শব্দে বাজার, ঘাট ও বাসায় থাকা কঠিন হয়ে পড়েছে। বিশেষ করে বাজার এলাকায় এর উপদ্রব বেশি। এভাবে চলতে থাকলে কানে আর কিছু শুনতে পারবো না।’

ক্ষোভ নিয়ে কথাগুলো বলছিলেন রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ পৌর শহরের বাসিন্দা মো. ইউনুস আলী। শুধু ইউনুস আলী নন, কোনও নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে মাইকের এমন উচ্চ শব্দের আওয়াজে অতিষ্ঠ পৌরবাসী। সচেতন নাগরিক ও শিক্ষার্থীরা এর প্রতিকার চেয়েছেন। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। সেখানে অনেকেই মাইকিংকে বলেছেন ‘শব্দ সন্ত্রাস’।

অটোরিকশায় একটি বা দুটি মাইক বেঁধে উচ্চ শব্দে চলছে প্রচারণা। দীর্ঘ সময় ধরে এভাবে মাইকিং করতে আগের মতো দরকার পড়ে না ঘোষকের। ঘোষণাটি একবার রেকর্ড করে মোবাইল ফোনের মেমোরি কার্ডে নিয়ে যানবাহনে মাইক বেঁধে চলতে থাকে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত।

মাইকিংয়ে অতিষ্ঠ গোয়ালন্দ পৌরবাসী

সরেজমিন দেখা গেছে, গরু-মহিষ জবাই, বেসরকারি ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টার, বিশেষজ্ঞ ডাক্তার, নতুন কিংবা পুরনো খাবারের হোটেল বা শপিং মলের বিশেষ ছাড়সহ বিভিন্ন ধরনের প্রচারে উচ্চ শব্দে মাইকিং করা হচ্ছে। এছাড়া কম দামে এলইডি বাল্ব বিক্রির প্রচারে উচ্চ শব্দে মাইকিং চলছে নিয়মিত। এতে কেউ কেউ বিরক্ত হয়ে কানে আঙুল দিয়ে পথ চলেন। তবে তুলনামূলক ভাবে বেসরকারি ক্লিনিক-ডায়াগনস্টিক সেন্টার মাইকিং সবার থেকে এগিয়ে।

পৌরসভার বাসিন্দা শরিফুল ইসলাম বলেন, ‘সম্প্রতি গড়ে ওঠা কিছু বেসরকারি ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের পক্ষ থেকে ‘‘আর নয় ঢাকা, আর নয় ফরিদপুর, সব ধরনের চিকিৎসা অভিজ্ঞ ডাক্তার দ্বারা করা হয়, রোগীর সব ধরনের পরীক্ষা করা হয় এখন গোয়ালন্দে’’ এমন স্লোগানে (বড় বড় ডিগ্রির নাম ব্যবহার করে) চলছে অবাধ মাইকিং। একটা প্রচার মাইক যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আরেকটি প্রচারণা শুরু হতে থাকে। মাইকিংয়ের ক্ষেত্রে হাসপাতাল, ক্লিনিক, সরকারি অফিস, স্কুল-কলেজের পরিবেশের কিছুই মানা হচ্ছে না। এতে পৌরবাসীর জনজীবন দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে।’

গোয়ালন্দ বাজারের হার্ডওয়্যার ব্যবসায়ী রাতুল আহম্মেদ বলেন, ‘মাইকের শব্দে বাজারে থাকাটাই কষ্টকর হয়ে পড়েছে। মাইকিংয়ের আওয়াজে কান ঝালাপালা হয়ে যায়। এতে অতিষ্ঠ হয়ে গেছি। অনেক সময় মাইকের শব্দে কাস্টমারের সঙেআগ ঠিকমতো কথাও বলা যায় না। ওই ডায়াগনস্টিক সেন্টারে অমুক ডাক্তার, অমুক হোটেলে স্পেশাল বিরিয়ানি, ক্যাফেতে নতুন আইটেম শো-রুমে বিশাল মূল্য ছাড়সহ ইত্যাদি মাইকিংয়ে বাজারের প্রায় সব ব্যবসায়ীদের অবস্থা কাহিল।’

মাইকিংয়ে অতিষ্ঠ গোয়ালন্দ পৌরবাসী

এইচএসসি পরীক্ষার্থী মেহজাবিন বন্যা বলেন, ‘নির্দিষ্ট কোনও সময় না মেনে শহরে প্রতিদিন সুখবরসহ নানা বিষয়ে উচ্চ শব্দে মাইকিং করা হয়। এতে আমাদের পড়াশোনায় ব্যাঘাত ঘটছে। এ নিয়ে একটা পদক্ষেপ নেওয়া প্রয়োজন।’

গোয়ালন্দ পৌরসভার মেয়র নজরুল ইসলাম মন্ডল বলেন, ‘সম্প্রতি পৌর শহরে ব্যাপক হারে মাইকিং বেড়েছে। এ নিয়ে অতি দ্রুত একটা পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’

চিকিৎসকরা বলছেন, মানুষের শ্রবণের জন্য শব্দের ৪৫ ডেসিবেল হচ্ছে সহনীয় মাত্রা। তবে সেটা ৭০ ডেসিবেল অতিক্রম করলে তা ক্ষতিকর। পৌর শহরে প্রতিদিন যে হারে মাইকিং করা হচ্ছে তাতে অনেক সময় শব্দের মাত্রা ৭০ ডেসিবেলের কাছাকাছি চলে যায়। বিশেষ করে শিশুদের জন্য এটা খুবই ক্ষতিকর। মাত্রাতিরিক্ত শব্দদূষণে শ্রবণশক্তি লোপসহ উচ্চ রক্তচাপ, মাথাধরা, খিটখিটে মেজাজ, বিরক্তি বোধ, অনিদ্রা ও হৃদযন্ত্রের সমস্যাসহ নানা রকম মানসিক সমস্যার সৃষ্টি হয়।

গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাকির হোসেন বলেন, ‘এ বিষয়ে আমরা ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারের সঙ্গে কথা বলে নিষেধ করবো। সাধারণ মানুষের সমস্যা করে কোনও প্রচারণা চালানো যাবে না।’

/এসএইচ/
সর্বশেষ খবর
বার কাউন্সিল সভায় বিএনপি-আওয়ামীপন্থি আইনজীবীদের মধ্যে হট্টগোল
বার কাউন্সিল সভায় বিএনপি-আওয়ামীপন্থি আইনজীবীদের মধ্যে হট্টগোল
শান্ত-মুশফিকের ব্যাটে জয়ে ফিরলো সিলেট
শান্ত-মুশফিকের ব্যাটে জয়ে ফিরলো সিলেট
রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের অপহরণ বাণিজ্য, নির্ঘুম রাত কাটে স্থানীয়দের
রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীদের অপহরণ বাণিজ্য, নির্ঘুম রাত কাটে স্থানীয়দের
হিন্দি সিনেমা আমদানির পক্ষে রিয়াজ, দিলেন ব্যাখ্যাও
হিন্দি সিনেমা আমদানির পক্ষে রিয়াজ, দিলেন ব্যাখ্যাও
সর্বাধিক পঠিত
খাবারের দাম দ্বিগুণ, বাস মালিক-হাইওয়ে হোটেলগুলোর সিন্ডিকেট
খাবারের দাম দ্বিগুণ, বাস মালিক-হাইওয়ে হোটেলগুলোর সিন্ডিকেট
মধ্যরাতে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে ছাত্রীদের অবস্থান
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়মধ্যরাতে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে ছাত্রীদের অবস্থান
যে জুটি কখনও ব্যর্থ হয়নি
যে জুটি কখনও ব্যর্থ হয়নি
চলতি বছরেই ট্রেন যাবে কক্সবাজার
চলতি বছরেই ট্রেন যাবে কক্সবাজার
বাবা হওয়ার পরদিন মাদ্রাসাশিক্ষকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার
বাবা হওয়ার পরদিন মাদ্রাসাশিক্ষকের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার