সুনামগঞ্জের বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত

Send
সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৭:২২, জুলাই ১৭, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৭:২৮, জুলাই ১৭, ২০১৯

সুনামগঞ্জের বন্যাদুর্গত কুতুবপুর এলাকা সুনামগঞ্জের সার্বিক বন্যা পরিস্থিতি অপরিবর্তিত রয়েছে। বৃষ্টিপাত না হওয়ায় সুরমা নদীর পানি কমতে শুরু করেছে। মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সকাল ৯টায় সুনামগঞ্জের ষোলঘর পয়েন্টে সুরমা নদীর পানি বিপদসীমার ৭২ সেন্টিমিটার ওপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে।

জেলা কৃষি ও মৎস্য অফিস জানায়, বন্যায় এক হাজার ২৬৩ হেক্টর আউশ ক্ষেত, ১২৫ হেক্টর আমন বীজতলা এবং চার কোটি ৬০ লাখ ৬১ হাজার ২০০ টাকার মৎস্যসম্পদ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বন্যার কারণে সড়ক ও জনপথ বিভাগের চারটি সড়কের উপরে পানি ওঠায় ১৫০ কিলোমিটার সড়কে খানাখন্দ সৃষ্টি হয়েছে। পানির নিচে ডুবে আছে ৩০ কিলোমিটার সড়ক।

এছাড়া সুনামগঞ্জ এলজিইডি জানায়, বিটুমিনের ৬০০ কিলোমিটার সড়কের মধ্যে ২০০ কিলোমিটার অংশে পানি উঠেছে। এখনও কোথাও কোথাও পানি আছে। ৯০০ কিলোমিটার আরসিসি সড়কের ৮০০ কিলোমিটার এখনও পানির নিচে। এসব সড়ক ৫১টি জায়গায় ভেঙে গেছে। ১৫০টি সেতুর সংযোগ সড়ক ধসে গেছে। দেড় কিলোমিটার আরসিসি সড়ক ভেসে গেছে। জিআর নগদ নয় লাখ ৮০ হাজার টাকা বিতরণ করা হয়েছে। মজুত আছে পাঁচ লাখ ২০ হাজার টাকা। জিআর চাল বিতরণ করা হয়েছে ২৭৫ টন। মজুত রয়েছে ৩১৫ টন। এছাড়াও সাত হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার বিতরণ করা হয়েছে।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, ১২২টি মেডিক্যাল টিম বন্যা দুর্গত এলাকায় কাজ করছে। ৫০০ তাঁবু মজুত আছে। বন্যায় ৩৫৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং ১১৯টি উচ্চ বিদ্যালয়ে পাঠদান বন্ধ রয়েছে। ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মম শরীফুল ইসলাম জানান, দুর্গতদের  মধ্যে  সরকারি বেসরকারি সংস্থার ত্রাণ তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। এছাড়া স্বাস্থ্যসেবা দেওয়ার জন্য ১২২টি মেডিক্যাল টিম কাজ করছে।

 

 

 

/এমএএ/

লাইভ

টপ