গাইবান্ধায় বিকল্প ব্যবস্থায় রেল যোগাযোগ শুরু

Send
গাইবান্ধা প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৪:৪৯, জুলাই ১৮, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৪:৫৯, জুলাই ১৮, ২০১৯

বন্যার পানিতে বাঁধ ও সড়ক ভেঙে রেললাইন ক্ষতিগ্রস্ত

গাইবান্ধায় বন্যার পানিতে সড়ক ও বাঁধ ধসে রেললাইন ডুবে যাওয়ায় কারণে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকার পর বিকল্প ব্যবস্থায় রেল যোগাযোগ শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৮ জুলাই) দুপুর থেকে গাইবান্ধা-কাউনিয়া ও লালমনিরহাট এবং বোনারপাড়া-সান্তাহার রুটে ট্রেন চলাচল শুরু হয়েছে। গাইবান্ধার স্টেশন মাস্টার মো. আবুল কাশেম এ তথ্য জানান। 

তিনি জানান, গাইবান্ধা রুটে চলাচলকারী করতোয়া এক্সপ্রেস ট্রেনটি সান্তাহার থেকে বোনারপাড়া এবং বোনারপাড়া থেকে সান্তাহার পর্যন্ত চলাচল করবে। এছাড়া দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস ট্রেনটি দিনাজপুর থেকে গাইবান্ধা এবং গাইবান্ধা থেকে দিনাজপুর, ৭ আপ /৮ ডাউন মেইল ট্রেনটি পঞ্চগড় থেকে গাইবান্ধা এবং গাইবান্ধা থেকে পঞ্চগড় ও সান্তাহার থেকে বোনারপাড়া এবং বোনারপাড়া থেকে সান্তাহার চলাচল করবে। ট্রেনগুলো ছাড়ার সময় ও গন্তব্যে পৌঁছানোর সময়  স্টেশনেই পাওয়া যাবে।

এদিকে, ১৯/২০ বগুড়া এবং পদ্মরাগ ট্রেন দুটি চলাচল করবে না। তবে রংপুর ও লালমনিরহাট এক্সপ্রেস ট্রেন দুটি কাউনিয়া-পার্বতীপুর-সান্তাহার রুট ব্যবহার করে ঢাকায় যাওয়া-আসা করবে। পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত এ রুটের ট্রেনগুলো এভাবেই চলাচল করবে। 

এরআগে, বুধবার (১৭ জুলাই) সকাল ১১টার দিকে বাদিয়াখালি রেল স্টেশন সংলগ্ন চেয়ারম্যানবাড়ী মিয়াপাড়া রেলগেট এলাকায় পাকা সড়ক ও বন্যা নিয়ন্ত্রণ বাঁধ ধসে যায়। পানির প্রবল স্রোত রেল লাইনের ওপর দিয়ে প্রবাহিত হয়। ফলে প্রায় এক কিলোমিটার এলাকাজুড়ে রেললাইনের স্লিপার, মাটি ও পাথর ধসে যায়। এ কারণে ঢাকার সঙ্গে গাইবান্ধা, রংপুর, দিনাজপুর ও লালমনিহাটসহ উত্তরাঞ্চলের চার জেলার  রেল যোগাযোগ বন্ধ হয়ে যায়। খবর পেয়ে লালমনিরহাট থেকে একটি কারিগরি টিম এসে ক্ষতিগ্রস্ত রেল লাইন পরিদর্শন করে। 

রেল যোগাযোগ সাময়িকভাবে বন্ধ থাকায় যাত্রীদের অসুবিধার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করে একটি বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। বন্যার পানি কমে গেলেই বাদিয়াখালী এলাকার ক্ষতিগ্রস্ত রেল লাইন মেরামতের কাজ শুরু হবে। কাজ শেষ হলে দ্রুত রেল যোগাযোগ স্বাভাবিক হবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।

 

/জেবি/

লাইভ

টপ