ক্যান্টনমেন্টের জন্য ভূমি অধিগ্রহণের ২০ কোটি টাকা আত্মসাৎ

Send
সিলেট প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৯:৩৬, ডিসেম্বর ০২, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৪, ডিসেম্বর ০২, ২০১৯

গ্রেফতার করা আবিদ উদ্দিনসিলেট শহরতলীতে সেনাবাহিনীর নতুন ক্যান্টনমেন্টের জন্য ভূমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণের ২০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগে আবিদ উদ্দিন (৫৫) নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে ক্রাইম ইনভেস্টিগেশন ডিপার্টমেন্ট (সিআইডি)। জাল আমমোক্তারনামা ও দলিল দিয়ে তিনি এ টাকা তুলে নিয়েছেন বলে জানা গেছে।

রবিবার (১ ডিসেম্বর) সিআইডি’র সিলেট শাখা অভিযান চালিয়ে আবিদকে গ্রেফতার করে। সিআইডি’র সিলেট জোনের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার এমরান আলী বলেন, ২০১৮ সালের ৩ আগস্ট সিলেট সদর উপজেলা ভূমি অফিসের ভূমি অধিগ্রহণ কর্মকর্তা মামুনুর রহমান বাদী হয়ে সিলেট মহানগর পুলিশের কোতোয়ালি থানায় মামলা করেন। প্রথমে এ মামলার তদন্তের দায়িত্ব পান এসআই (নিরস্ত্র) সাব্বির আরাফাত জনি। পরে মামলাটির দায়িত্বভার পড়ে গোয়েন্দা বিভাগের হাতে। গোয়েন্দা বিভাগ মামলাটি অধিকতর তদন্তের জন্য আদালতের নির্দেশে সিআইডি’র কাছে হস্তান্তর করে। তারা তদন্তের পর আবিদকে গ্রেফতার করে।

মামলার এজাহারে বলা আছে, সেনাবাহিনীর ১৭ পদাতিক ডিভিশনের ক্যান্টনমেন্টের জন্য জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ভূমি অধিগ্রহণ করে। অধিগ্রহণকৃত ভূমির ক্ষতিপূরণের জন্য জমির প্রকৃত মালিকদের নির্ধারিত পরিমাণ টাকা প্রদান করা হয়। কিন্তু দাবিদারদের মধ্যে আবিদ উদ্দিন জমির মালিকদের জাতীয় পরিচয়পত্র জালিয়াতির মাধ্যমে জাল আমমোক্তারনামা তৈরি এবং জাল দলিলাদিসহ সংযুক্ত করে তা দাখিলের মাধ্যমে ২০ কোটি টাকা তুলে নেন। পরবর্তীতে সিলেটের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) মৃণাল কান্তি দেব ভূমি অধিগ্রহণ শাখা পরিদর্শন করলে বিষয়টি ধরা পড়ে।  

/এসটি/এমএমজে/

লাইভ

টপ