কুষ্টিয়ায় কমছে পেঁয়াজের ঝাঁজ

Send
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ০৯:০৮, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ০৯:২৬, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯

নতুন পেঁয়াজকুষ্টিয়ার বাজারে কমতে শুরু করেছে পেঁয়াজের দাম। বাজারে নতুন পেঁয়াজের আমদানি বাড়ায় দাম কমছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। তবে চাহিদার তুলনায় সরবরাহ এখনও পর্যাপ্ত না হাওয়ায় গত মৌসুমের মতো দাম এখনও কমেনি।

মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) কুষ্টিয়ার মিরপুর পশুহাট ঘুরে দেখা গেছে, হাটে দেশি নতুন পেঁয়াজ সরবরাহ বেড়েছে। নতুন পেঁয়াজ মানভেদে ১০০-১২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। যা আগের সপ্তাহের চেয়ে কেজি প্রতি ৬০-৭০ টাকা কম। তবে এই হাটে পুরনো পেঁয়াজ দেখা যায়নি।

বাজারে ওঠা নতুন পেঁয়াজপেঁয়াজ বিক্রেতা সেন্টু আলী বলেন, হাটে নতুন পেঁয়াজের পর্যাপ্ত আমদানি থাকায় দাম কমেছে। মঙ্গলবার হাটে নতুন পেঁয়াজ খুচরা বাজারে বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকা দরে। পেঁয়াজের মান একটু ভালো হলে তার দাম ১২০ টাকার বেশি নয়। মোকামেও পেঁয়াজের দাম আজ কিছুটা কম ছিল।

পেঁয়াজ বিক্রেতা ভিকু সরদার বলেন, গত সপ্তাহের চেয়ে নতুন পেঁয়াজের দাম কেজিতে প্রায় ৬০-৭০ টাকা কমেছে। নতুন পেঁয়াজ আসার কারণে পেঁয়াজের দাম কমতে শুরু করেছে। তবে দাম কমতে আরও কিছুটা সময় লাগবে।

আরেক বিক্রেতা আব্বাস আলী বলেন, বাজারে দাম ভালো পাওয়ায় চাষিরা কিছু আগেই নতুন পেঁয়াজ ওঠাতে শুরু করেছে। তবে পেঁয়াজ এখনও অপরিপক্ক। আরও কিছুদিন গেলে বাজারে পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক হয়ে আসতে পারে।

বাজারে ওঠা নতুন পেঁয়াজমিরপুর উপজেলার ছিমুলিয়া গ্রামের পেঁয়াজ ক্রেতা মহিরুল ইসলাম বলেন, ‘পেঁয়াজের বাজারে কিছুটা স্বস্তি এসেছে। আজ নতুন পেঁয়াজ কিনেছি ১০০ টাকা কেজিতে। যা গত সপ্তাহের চেয়ে কম। তবে পেঁয়াজের দাম এখনও মানুষের ক্রয় ক্ষমতার বাইরে। পেঁয়াজের দাম আরও কম হাওয়া প্রয়োজন।’

আরেক ক্রেতা ইদ্রিস আলী বলেন, ‘গত বছর এই সময় যে দামে পেঁয়াজ কিনেছি তার চেয়ে কয়েকগুণ বেশি দামে আমাদের এখন পেঁয়াজ কিনতে হচ্ছে। পেঁয়াজের দাম নিয়ন্ত্রণে রাখতে নিয়মিত বাজার তদারকি দরকার।’

 

/এসটি/

লাইভ

টপ