সিঁদ কেটে ঘরে ঢুকে স্বামীকে বেঁধে গৃহবধূকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণ!

Send
মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১০:০০, জানুয়ারি ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৩, জানুয়ারি ১৭, ২০২০

মানিকগঞ্জমানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলায় সিঁদ কেটে ঘরে ঢুকে এক গৃহবধূকে (২৪) সংঘবদ্ধ ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার ভিকটিমের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা করা হয়েছে। চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ ও ভিকটিমের পরিবার সূত্রে জানা গেছে, সিঙ্গাইর উপজেলার একটি গ্রামের বাড়িতে ওই নারী স্বামী ও দুই সন্তানকে নিয়ে থাকেন। বুধবার রাত ১২টার দিকে বাড়িতে ঘরের সিঁদ কেটে ভেতরে ঢোকে সাত-আট দুবৃত্ত। টের পেয়ে স্বামী-স্ত্রী ঘুম থেকে জেগে ওঠেন। বাড়ি ফাঁকা স্থানে হওয়ায় তাদের চিৎকারে কেউ এগিয়ে আসেনি। পরে ওই নারীর স্বামীকে হাত-পা বেঁধে পাশের ঘরে লেপ দিয়ে পেঁচিয়ে আটকে রাখে দুর্বৃত্তরা। এর পর পাঁচ জন ওই নারীকে ধর্ষণ করে। পরে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

বৃহস্পতিবার সকালে খবর পেয়ে পুলিশ ভিকটিমকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) ভর্তি করে। পরে পুলিশ ওই নারীর স্বামীর দেওয়া তথ্য মতে সিংগাইরের চারিগ্রাম এলাকা থেকে মো. লেবু (৪০) নামের একজনকে আটক করে।

এ ঘটনায় সন্ধ্যায় ভিকটিমের স্বামী বাদী হয়ে স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে লেবু, মতিয়ার রহমান, আবদুল মাজেদ ও মো. জহুরসহ অজ্ঞাত আরও তিন-চারজনকে আসামি করে থানায় মামলা করেন। তাদের প্রত্যেকের বাড়ি চারিগ্রাম গ্রামে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সিংগাইর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাবিবুর রহমান বলেন, ‘এজাহার নামীয় ওই চার আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করা হয়েছে। ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে।’

 

/এফএস/

লাইভ

টপ