‘স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস’ পালিত

Send
শাবি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:২৫, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:২৯, ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২০

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস’ পালিত হয়েছে। শুক্রবার (১৪ই ফেব্রুয়ারি) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাভবন-ডি সংলগ্ন অর্জুনতলা থেকে একটি র‌্যালি বের করে জাতীয় ছাত্রদল। র‌্যালিটি ক্যাম্পাসের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে গোলচত্বরে এসে সমাবেশে মিলিত হয়।

এসময় সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক রুপেল চাকমার সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সভাপতি রামকৃষ্ণ দাস, সহসভাপতি অমৃত রায়, অর্থ সম্পাদক ওসমান গনি, সাংগঠনিক সম্পাদক দীনবন্ধু চন্দ্র সরকার, সদস্য এ এস এম শাহাদত সিদ্দিকী ও ওয়াসিম প্রমুখ।   

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘স্বৈরশাসক হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ সরকারের আমলে বিতর্কিত শিক্ষানীতির তৈরি করা হয়। কিন্তু ছাত্রসমাজের দাবি ছিল একটি অবৈতনিক বৈষম্যহীন শিক্ষানীতি। আর এই দাবি নিয়ে সাধারণ ছাত্রসমাজ প্রতিবাদ সমাবেশের মাধ্যমে জেগে ওঠে। সে মুহূর্তে প্রতিবাদ-সমাবেশে পুলিশ গুলি চালালে কয়েকজন শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষ নিহত হয়। এই ঘটনার পর থেকে দিনটিকে বিশেষভাবে পালন করে ছাত্রসমাজ।’  

বক্তারা আরও বলেন, ‘এই দিনটি আসলে আমাদের শিক্ষার অধিকার আদায়ের দিন, ইতিহাস-ঐতিহ্যের দিন। অথচ যাদের ত্যাগে আমরা এই দিনটি পেয়েছি, তাদেরই ভুলতে বসেছি। আমরা এই দিনটিতে ভালবাসার নামে অপসংস্কৃতি চর্চায় মেতে উঠেছি। এছাড়া মিডিয়াগুলোও এই অপসংস্কৃতির সঙ্গে জড়িয়ে যাচ্ছে, ভুলতে চলেছে এই ঐতিহ্যবাহী দিনটিকে। আমরা এই দিনটিকে বিশেষ মর্যাদা প্রদানের জন্য আমাদের আন্দোলন চলবে।’  

উল্লেখ্য, ১৯৮২ সালে তৎকালীন স্বৈরশাসক হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ সরকার একটি শিক্ষানীতি প্রণয়ন করে। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৯৮৩ সালের ১৪ই ফেব্রুয়ারি তারিখে শিক্ষার্থীরা প্রতিবাদ ও বাংলাদেশ সচিবালয়ে স্মারকলিপি প্রদান করার কর্মসূচি পালন করে। প্রতিবাদ সমাবেশে পুলিশ গুলি চালায় এবং বেশ কিছু হতাহতের ঘটনা ঘটে। তখন থেকে দিনটিকে স্বৈরাচার প্রতিরোধ দিবস হিসেবে পালন করা শুরু হয়।

 

/এএইচ/

লাইভ

টপ