পাঁচ জেলায় দুর্ঘটনায় নিহত ৯

Send
বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:২৭, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:০৪, ফেব্রুয়ারি ২২, ২০২০

টাঙ্গাইল, কুষ্টিয়া, চট্টগ্রাম, নোয়াখালী ও খুলনায় সড়ক ও রেল দুর্ঘটনায় ৯ জন নিহত হয়েছেন। শনিবার (২২ ফেব্রুয়ারি) এসব দুর্ঘটনা ঘটে।

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মির্জাপুরে পেছন থেকে আসা কাভার্ডভ্যানের ধাক্কায় ম্যাক্সি (পেছন খোলা ছোট পিকআপ) উল্টে গিয়ে চার জন নিহত হয়েছেন। শনিবার সকালে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের গোড়াই এলাকার জুই-যুথী পাম্পের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনাস্থলেই দু’জন ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ১টার দিকে আরও দু’জনের মৃত্যু হয়। আহত হয়ে চিকিৎসাধীন আছেন আরও তিন জন।

নিহতরা হলেন, জাহানুর (১৮), তপন চন্দ্র দাস (২৫), মর্জিনা বেগম (২৭) ও  রাশেদা বেগম। নিহতরা সবাই স্থানীয় নাসির গ্লাস ইন্ডাস্ট্রিতে কর্মরত ছিলেন বলে জানা গেছে।

গোড়াই হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান বলেন, ‘সকালে উপজেলার গোড়াই থেকে যাত্রী নিয়ে আসা একটি ম্যাক্সি জুই-যুথী পাম্পে জ্বালানি নিতে ঢোকে। এসময় পেছন থেকে একটি কাভার্ডভ্যান ম্যাক্সিটিকে ধাক্কা দিলে গাড়িটি উল্টে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই দু’জনের মৃত্যু হয়। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুপুর ১টার দিকে আরও দুইজনের মৃত্যু হয়। এঘটনায় আহত আরও তিনজন মির্জাপুর কুমুদিনী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।’

খুলনা প্রতিনিধি জানিয়েছে, রেলওয়ে স্টেশন থেকে চলন্ত ট্রেনে দৌড়ে উঠতে গিয়ে হাত ফসকে মাথায় আঘাত পেয়ে প্রাণ হারিয়েছেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের (খুবি) অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র অধ্যাপক মিজানুর রহমান (৬৬)। শনিবার ভোর সাড়ে ৬টার দিকে খুলনা রেলওয়ে স্টেশনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। অধ্যাপক মিজানুর রহমান খুবির সয়েল, ওয়াটার, এনভায়রনমেন্ট ডিসিপ্লিন থেকে জানুয়ারি মাসে অবসরে গেছেন।

খুবির জনসংযোগ ও প্রকাশনা বিভাগের পরিচালক (ভারপ্রাপ্ত) এস এম আতিয়ার রহমান জানান, সকালে বেনাপোলগামী কমিউটার ট্রেন স্টেশন থেকে ছেড়ে দিলে তিনি স্টেশনে আসেন। চলন্ত ট্রেনে দ্রুত উঠতে গিয়ে হাত ফসকে পড়ে মাথায় আঘাত পান। পরে রেলওয়ে পুলিশ তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তিনি মারা যান।

তিনি আরও জানান, প্রতিদিন সকালে তিনি মর্নিং ওয়াকে বের হন। শনিবার বন্ধুদের সঙ্গে কমিউটার ট্রেনে যশোর ঝিকরগাছা ফুল বাগান দেখতে যাওয়ার কথা ছিল তার।

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ভেড়ামারায় ট্রাকের ধাক্কায় শ্যালোইঞ্জিন চালিত ট্রলির চালক-হেলপার নিহত হয়েছেন। শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে কুষ্টিয়া-ভেড়ামার মহাসড়কের ১০ মাইল এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। কুষ্টিয়া হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম এ তথ্য জানিয়েছেন।

নিহতরা হলেন,  ট্রলির চালক শুকুর আলী (৩৫) ও  হেলপার আলামিন (১৮)। এ ঘটনায় রিপন নামে আরও একজন পথচারী আহত হয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, সকালে ট্রলিতে শুকুর ও আলামিন ইট নিয়ে  কুষ্টিয়ার দিকে যাচ্ছিল। ১০ মাইল এলাকায় বিপরীত দিক থেকে আসা একটি দ্রুতগামী ট্রাক (যশোর-ট-১১-৪০১১)ট্রলিটিকে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই দু’জন নিহত হয়। ট্রাকটি জব্দ করা হলেও চালক পলাতক।

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দৌড়ে ট্রেনে উঠতে গিয়ে কাটা পড়ে ৬০ বছর বয়সী এক নারী নিহত হয়েছেন।  শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে চট্টগ্রাম রেল স্টেশনের ৯ নম্বর প্ল্যাটফর্মে এ দুর্ঘটনা ঘটে। রেলওয়ে পুলিশের পরিদর্শক মোস্তাফিজুর রহমান এ তথ্য জানিয়েছেন।
নিহত নারীর নাম তাহেরা বেগম। তার বাড়ি বোয়ালখালীর ৫ নম্বর সারোয়াতলী ইউনিয়নের বেঙগুরা বাজার এলাকায়।

মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, দুই নাতিকে নিয়ে ওই নারী দোহাজারী যাওয়ার জন্য ট্রেনে ওঠেন। এরপর দোকান থেকে কিছু কেনার জন্য তিনি ট্রেন থেকে নামেন। এসময় ৯ নম্বর প্ল্যাটফর্মে থাকা ট্রেনটি লাইন পরিবর্তন করে ৭ নম্বর প্ল্যাটফর্মে যাচ্ছিল। ট্রেনটি ছেড়ে দিয়েছে ভেবে তাহেরা বেগম দ্রুত উঠতে গিয়ে রেললাইনের ওপর পড়ে যান। পরে ট্রেনে কাটা পড়ে ঘটনাস্থলে তিনি মারা যান।

নোয়াখালী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, বিয়ের কার্ড দিতে যাওয়ার সময় সুবর্ণচরে এক স্কুল শিক্ষিকা নিহত হয়েছে। উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের চৌরাস্তা এলাকায় মোটরসাইকেল থেকে ছিটকে পড়ে তাসলিমা আক্তার (২৬) নামে ওই শিক্ষিকা প্রাণ হারান। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহেদ উদ্দিন এ তথ্য জানিয়েছেন।  তাসলিমা উপজেলার দক্ষিণ পূর্ব চরলক্ষ্মী আশ্রয়ণ বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন।

মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ জানান, বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) তাসলিমার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। বিয়ের দাওয়াত দিতে কার্ড নিয়ে পাশের একটি স্কুলে যাচ্ছিলেন তিনি। চৌরাস্তা এলাকায় কুকুরের সঙ্গে তার মোটরসাইকেলের সঙ্গে ধাক্কা লাগলে তিনি ছিটকে পড়েন। এতে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তার।

ওসি শাহেদ উদ্দিন বলেন, ‘কারও কোনও অভিযোগ না থাকায় লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।’

 

/এসটি/

লাইভ

টপ