বিকাল ৫টা থেকে রাজশাহী শহরে জরুরিসেবা ছাড়া সব দোকান বন্ধ

Send
রাজশাহী প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৬:৫৪, এপ্রিল ০৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৪৬, এপ্রিল ০৬, ২০২০

রাজশাহীবিকাল সাড়ে ৫ টা থেকে রাজশাহী শহরে জরুরিসেবা ছাড়া সব দোকান বন্ধ থাকবে। সোমবার দুপুরে এমন ঘোষণা দেয় রাজশাহী মহানগর পুলিশ। একেবারে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া শহরের বাইরে থেকে কোনও যানবাহন ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না শহরে। আবার শহর থেকেও বের হতে দেওয়া হচ্ছে না।

রাজশাহী মহানগর পুলিশের বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্বণ বলেন, আমাদের আরএমপির সদর দফতর থেকে মাইকিং করা হচ্ছে। ওষুধের দোকানসহ জরুরি সেবায় নিয়োজিত ছাড়া সব দোকানপাট বন্ধ থাকবে অনির্দিষ্টকালের জন্য। এছাড়া শহর রক্ষার জন্য আমাদের আরএমপি এলাকার প্রবেশ পথ বন্ধ করে দেওয়া হবে।

গত কয়েক দিনে গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও অটোরিকশা করে পাবনা, নাটোর, নওগাঁ, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে হাজার হাজার মানুষ রাজশাহী শহরে প্রবেশ করেছে। তবে পরিস্থিতি অনুযায়ী  মাইকিং করে তরিতরকারি ক্রয় করার জন্য সকালের দিকে কয়েক ঘণ্টার জন্য খোলা রাখা হতে পারে। তাও সদর দফতরের নির্দেশনা অনুযায়ী।

এদিকের রাজশাহীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ শরীফুল হক বলেন, লকডাউন করা হয়নি। তবে মানুষকে আরও বেশি সচেতনতা করতে একটু বেশি কড়াকড়ি করা হচ্ছে। যাতে করে রাজশাহী পরিস্থিতি ভালো থাকে। করোনা পরিস্থিতি নিয়ে বিভাগীয় সমন্বয় সভা থেকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এসময় উপস্থিত ছিলেন রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়র এএইচএম খায়রুজ্জামান লিটন, সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, বিভাগীয় কমিশনার হুমায়ুন খন্দকার, জেলা প্রশাসন হামিদুল হক প্রমুখ।

সেনাবাহিনী ও পুলিশ কড়া সতর্ক অবস্থান নিয়েছে যানবাহন চলাচলের ক্ষেত্রে। সামাজিক নিরাপত্তা দূরুত্বের কথা মাথায় রেখে শহরে বাইরের কোনও যানবাহন ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না। রাজশাহীর অদূরে বেলপুকুর ও কাটাখালিতে বসানো হয়েছে দুটি চেকপোস্ট। অন্যদিকে নওদাপাড়া ও কাশিয়াডাঙ্গাতেও বসানো হয়েছে পুলিশের চেকপোস্ট।

অন্যদিকে রাজশাহীর আইডি হাসপাতলে আরও একজনকে আইসোলেশন রাখা হয়েছে। নাটোরের বাগাতিপাড়া থেকে আশা ১৮ বছরের ওই কিশোরকে স্থানীয় সিভিল সার্জন প্রয়োজনীয় চিকিৎসাসহ করোনা পরীক্ষার জন্য রামেক হাসপাতালে পাঠিয়েছেন। আর করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় খ্রিস্টান মিশন হাসপাতালের নার্সকে আইসোলেশন ওয়ার্ড থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

সোমবার সকালে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আয়োজিত নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন করোনা চিকিৎসা টিমের আহ্বায়ক ডা. আজিজুল হক আজাদ।

তিনি আরও জানান, রামেক হাসপাতালের অবজারভেশন ওয়ার্ডে ৫জন রোগীকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে। তাদের মধ্যে তিনজনের অবস্থার উন্নতি হওয়ায় আজ (সোমবার) ছেড়ে দেওয়া হবে। আশা করা হচ্ছে বাকি দুজনকে আগামীকাল মঙ্গলবার ছেড়ে দেওয়া হবে।
এদিকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজের করোনা পরীক্ষাগারে আজ (সোমবার) ৩১টি নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ল্যবটিন প্রধান ডা. সাবেরা গুলনেহার। রাজশাহী বিভাগের ৩১টি নমুনার মধ্যে আছে রাজশাহী জেলার ৬টি, বগুড়ার ৬টি, নবাবগঞ্জের ১০টি, নাটোরের ৮টি ও নওগাঁর ১টি। এদিকে ১ এপ্রিল চালুর পর মোট ৯৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হলো ল্যাবটিতে।

/এফএএন/

লাইভ

টপ