জীবনের আশা শেষ, ইমিগ্রেশনেও আটকা

Send
হিলি প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২৩:৪০, জুন ০৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২৩:৪২, জুন ০৩, ২০২০

নুরুলের জন্য পরিবারের অপেক্ষা

দিনাজপুরের হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে দেশে প্রবেশের অপেক্ষায় ভারতের হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে একদিনেরও বেশি সময় ধরে আটকা পড়ে রয়েছেন ক্যান্সার আক্রান্ত নুরুল আমিন (৩৫)। চিকিৎসকরা তার জীবনের আশা ছেড়ে দেওয়ায় দেশে ফিরে আসারপথে সীমান্তে তিনি আটকা পড়েছেন বলে জানা গেছে।

বুধবার (৩ জুন) সরেজমিন সকাল ১১টায় হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে গিয়ে দেখা যায়, তার স্ত্রী ও বৃদ্ধ মা তাকে নেওয়ার জন্য ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে বসে রয়েছেন। মঙ্গলবার বিকাল থেকে তারা সেখানে অপেক্ষায় রয়েছেন বলে জানিয়েছেন। এদিকে একইভাবে ভারতীয় অংশে তার মেয়ে ভারতীয় নাগরিক ও ছেলে মাইক্রোতে রয়েছেন কিন্তু ভারতীয় ইমিগ্রেশন অনুমতি না দেওয়ায় দেশে ফিরতে পারছেন না।

নুরুলের স্ত্রী রেখা ও বৃদ্ধ মা উম্মে কুলছুম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, 'ক্যান্সার আক্রান্ত হওয়ায় ২১ মার্চ হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে ভারতে তার বোনের নিকট চিকিৎসার জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছিল। এখন চিকিৎসকেরা তার বেঁচে থাকার আশা ছেড়ে দিয়েছেন। তিনি চলাফেরাও আর করতে পারেন না। পায়খানা-প্রসাব বিছানায় করেন। এমন অবস্থায় তাকে দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য ভারতের পাঞ্জাব থেকে মাইক্রোতে করে ৮০ হাজার টাকা ভাড়ায় গতকাল ভারতের হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্টে আনা হয় তাকে। আমরা মনে করেছিলাম, যেহেতু যাওয়ার সময় এদিক দিয়ে গিয়েছিল, তাই এই পথ দিয়েই ফিরে আসবে। কিন্তু সেখানে আসার পর ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ তাকে বাংলাদেশে আসতে দিচ্ছে না। তাদের নাকি সবকিছু বন্ধ। এখন আবার বেনাপোল দিয়ে ঘুরে আসতে বলছে, কিন্তু আমরা এতটাকা খরচ করে মাইক্রোতে করে তাকে এনেছি, তার ওপর গাড়িতেই পায়খানা-প্রসাব করায় তারাও আর যেতে চাচ্ছে না, তাকে ওখানেই নামিয়ে দিতে চাচ্ছেন বলে আমরা শুনছি। এদিকে তাকে নেওয়ার জন্য আমরাও লালমনিরহাট থেকে মাইক্রো নিয়ে মঙ্গলবার হিলিতে এসেছি, যার ভাড়াও বাড়ছে।'

হিলি ইমিগ্রেশন চেকেপোস্ট ওসি বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, করোনা ভাইরাসের কারণে সরকারের নির্দেশনা মোতাবেক হিলি ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট দিয়ে বাংলাদেশ থেকে ভারতে যাত্রী পারাপার সম্পূর্ণ বন্ধ রয়েছে। তবে ভারত থেকে বাংলাদেশে আসা কার্যক্রম চালু থাকলেও ভারত যাত্রী আসতে না দেওয়ায় সেটিও বন্ধ রয়েছে। তবে তাদের বেনাপোলসহ অন্যান্য ইমিগ্রেশন চেকেপোষ্টের কার্যক্রম চালু রয়েছে, তারা সেদিক দিয়ে দেশে ফিরতে পারবেন, এছাড়া অন্যকোনও উপাই নেই।



 

 

/এএইচ/

লাইভ

টপ