৫০ শতক জমির লাউগাছ কেটে ফেললো দুর্বৃত্তরা

Send
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ২০:৫৩, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:৫৫, সেপ্টেম্বর ২২, ২০২০

ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে এক কৃষকের ৫০ শতক জমির লাউগাছ কেটে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে কে বা কারা গাছগুলো কেটে দেয়। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষক আতিয়ার রহমানের দাবি, জমিতে ২৫০টি লাউগাছ ছিল। যেগুলোতে লাউ আসা শুরু করেছিলো। দুর্বৃত্তরা গাছগুলো কেটে ফেলায় তার কমপক্ষে আড়াই লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

লাউগাছের সঙ্গে এমন শত্রুতা দেখে অবাক হয়েছেন স্থানীয়রাও। ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার চাপালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

কৃষক আতিয়ার রহমান জানান, ছয় বিঘা জমিতে তিনি নানা ফসলের চাষ করেন। এরমধ্যে বেশির ভাগই সবজি। এ বছর এক বিঘা জমিতে বেগুন, দুই বিঘা জমিতে মূলা, কিছু অংশে ওল, হলুদ আর ৫০ শতকে লাউয়ের চাষ করেছিলেন। গত আগস্ট মাসের শুরুর দিকে ওই জমিতে লাউ বীজ বপন করেছিলেন। ডায়না নামের হাইব্রিড জাতের লাউ হওয়ায় অল্পদিনের মধ্যে গাছগুলো বড় হয়ে যায়। প্রায় ৫৫ হাজার টাকা ব্যয় করে সেখানে টাল দেন তিনি। গাছগুলো টালে যাবার পর ফুল আসতে শুরু করে। কিছু কিছু গাছে লাউও ধরেছে। এ পর্যন্ত তার এই ক্ষেতে ব্যয় হয়েছে প্রায় ৯০ হাজার টাকা। যার বেশির ভাগ তিনি ধার-দেনা করে খরচ করেছেন।

তিনি জানান, সোমবার গভীর রাতে দুর্বৃত্তরা তার জমির লাউগাছগুলো কেটে ফেলে। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে তিনি ক্ষেতের মধ্যে গিয়ে দেখেন সবগুলো গাছের পাতা টালের ওপর নুইয়ে পড়েছে। কারণ খুজতে গিয়ে গাছের গোড়ায় হাত দিয়ে দেখেন গাছগুলো কেটে ফেলা হয়েছে। একে একে সবগুলো গাছ কাটা দেখতে পান তিনি। এ সময় তিনি কান্নায় ভেঙে পড়েন।

কৃষক আতিয়ার বলেন, ফসলের সঙ্গে এভাবে কেউ শত্রুতা করতে পারে, তা না দেখলে বিশ্বাস হবে না। তিনি এই বিষয়ে প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করবেন বলে জানান।

কালীগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সিকদার মো. মোহাইমেন আক্তার জানান, তিনি ক্ষতিগ্রস্ত জমিটি পরিদর্শন করেছেন। কৃষক যেন ঘুরে দাঁড়াতে পারে সে বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন। এছাড়া কৃষি বিভাগের পক্ষ থেকেও তাকে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুবর্ণা রাণী সাহা জানান, ওই কৃষক লিখিত অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

/টিটি/

লাইভ

টপ