পুকুরে বিষ প্রয়োগ, উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্ন দেখা ছেলেটি সর্বস্বান্ত

Send
নওগাঁ প্রতিনিধি
প্রকাশিত : ১৮:৩৬, অক্টোবর ২৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৮:৩৬, অক্টোবর ২৫, ২০২০

২০১৬ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আরবি বিভাগ নিয়ে অনার্স-মাস্টার্স শেষ করেন সিরাজুল ইসলাম। পড়াশুনা শেষ করে চাকরির জন্য কয়েকবার চেষ্টা করছিলেন। শেষে চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে ফেরেন গ্রামে। আর স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে খালাতো ভাই ও ভাগ্নে এবং স্বামী-স্ত্রীর মিলে চারজনে একটি পুকুর এক বছরের জন্য ইজারা নেন। পরবর্তীতে খালাতে ভাই ও ভাগ্নে তাদের ভাগ বিক্রি করে দিলে সিরাজুল কিনে নেন। পুকুরে মাছ চাষে প্রায় ৬ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন। আর কিছুদিন পর মাছ বিক্রি করার কথা ছিল। কিন্তু মাছ বিক্রির কয়েকদিন আগেই সর্বস্বান্ত হয়ে গেলেন সিরাজুল।
দুর্বৃত্তরা সোমবার (১৯ অক্টোবর) রাতে কোনও এক সময় পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে তার স্বপ্ন ধূলিসাৎ করে দিয়েছে। দু’চোখে সর্ষে ফুল দেখছেন তিনি। কী করে ধারদেনা পরিশোধ করবেন তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় আছেন।
চার ভাই ও এক বোনের মধ্যে সিরাজুল ইসলাম দ্বিতীয়। নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার প্রত্যন্ত এলাকা চৌঘাট গ্রামের নিম্নবিত্ত পরিবারে বেড়ে উঠা। কষ্ট করে পড়াশুনা শেষ করেছেন। পড়াশুনা শেষ করে গ্রামের বাড়ি এসে গত এক বছর থেকে উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্ন দেখেন।


ইজারার টাকা বাদ দিয়ে সেখানে মাছ ও খাবার বাবদ প্রায় ৬ লাখ টাকা বিনিয়োগ করেছেন। যেখানে রুই, মিরকা, গ্রাস কাপ প্রতিটি মাছের ওজন প্রায় দেড় কেজি। এছাড়া লাইনোটিকা, শিং ও শৈল মাছ রয়েছে। যেখানে প্রায় ৯০-১০০শ মন মাছ পুকুরে ছিল। যার আনুমানিক মূল্য প্রায় ১৫ লাখ টাকা। একটু একটু করে তার সেই স্বপ্নগুলোও বড় হচ্ছিলো। কিন্তু সোমবার (১৯ অক্টোবর) রাতের কোন এক সময় দুর্বৃত্তরা পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে। পরদিন মঙ্গলবার (২০ অক্টোবর) সকাল থেকে মাছ মরে ভেসে উঠতে থাকে। সব ছেড়ে উদ্যোক্তা হতে চাওয়া ছেলেটি পরিবারের মুখের দিকেও তাকাতে পারছে না। ধারদেনা শোধ করবে কিভাবে সেই উপায়ও জানা নেই।


ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে তার গ্রামের আজিজুল হক, সাহাবর হোসেন ও সাগরকে আসামি করে বুধবার রাতের মামলা করেন। পুলিশ আজিজুল ও সাগরকে আটক করেছে। সিরাজুল ইসলাম আরও বলেন, আমি কষ্ট করে পড়াশুনা শেষ করেছে। আর দশজনের মতো চাকরির পেছনে না ছুটে উদ্যোক্তা হতে চেয়েছিলাম। ধারদেনা করে পুকুরে মাছ চাষ শুরু করে। কিন্তু দুর্বৃত্তরা আমার স্বপ্নগুলো ধূলিসাৎ করে দিয়েছে। আমি এদের বিচার চাই। ধামইরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল মতিন বলেন, ঘটনায় তিনজনকে আসামি করে বুধবার রাতে মামলা হয়েছে। মামলার পর রাতেই দুজনকে আটক করা হয়েছে।

/এমআর/

লাইভ

টপ