X
সোমবার, ১৭ জানুয়ারি ২০২২, ৩ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

২৫০০ বরযাত্রী নিয়ে হাতির পিঠে চড়ে প্রবাসীর বিয়ে

আপডেট : ০৯ ডিসেম্বর ২০২১, ২১:৪৪

সিরাজগঞ্জের তাড়াশে হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করেছেন রতন প্রামাণিক নামের এক ইরাক প্রবাসী। দুই হাজার ৫০০ বরযাত্রী নিয়ে ও হাতির পিঠে চড়ে বিয়ের আয়োজনে এলাকায় রীতিমতো হৈচৈ পড়েছে। এমন জমকালো বিয়ের ঘটনা এলাকাজুড়ে চলছে আলোচনা।

বিয়ের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন- সিরাজগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপক ডা. মো.আব্দুল আজিজ, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য ও বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপকমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. হোসেন মনসুরসহ জাতীয় ও স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) বিয়ের আয়োজনটি করা হয় তাড়াশ উপজেলার পৌর এলাকার কোহিত মহল্লায়।

জানা গেছে, ওই মহল্লার বাসিন্দা তাড়াশ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য মো. রব্বেল প্রামাণিক এলাকায় বেশ পরিচিতি আছে। প্রায় বছর পঁচিশ আগে তারই বড় ভাই মো. একদিল প্রামাণিকের স্ত্রী সন্তান প্রসবের সময় নবজাতক রেখে আকস্মিকভাবে মারা যান। এ সময় রব্বেল প্রামাণিক ও তার স্ত্রী কমেলা খাতুন মা হারা নবজাতককে বাড়িতে নিয়ে আসেন। কোলে তুলে নিয়ে নাম রাখেন মো. রতন প্রামাণিক। পাশাপাশি পাড়া প্রতিবেশীদের সামনে ঘোষণা দেন- ছেলে বড় হলে তাকে হাতির পিঠে চড়িয়ে বিয়ে করাতে নিয়ে যাবেন এবং হাতির পিঠে চড়িয়ে নতুন বউ বাড়িতে আনবেন।

আর সেই থেকেই রতন প্রামাণিক ওই বাড়িতে বড় হয়েছেন। পরবর্তী সময়ে রতন জীবিকার তাগিদে ইরাক পাড়ি দেন। তিনি দেশে ফেরেন।

এরই জেরে বৃহস্পতিবার তাকে ধুমধাম করে বিয়ে দেওয়া হয়। কনে একই উপজেলার মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়নের দিঘিসগুনা গ্রামের রইচ উদ্দিনের মেয়ে জোসনা খাতুন (২০)।

এদিকে রব্বেল প্রামাণিক সেই ২৫ বছর আগের দেওয়া ঘোষণা রাখতে ও শখ মেটাতে গত মঙ্গলবার বগুড়া গিয়ে দি লায়ন্স বুলবুল সার্কাসের একটি হাতি দুই দিনে পনের হাজার টাকা চুক্তিতে কোহিত মহল্লার নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন। আর বিয়ে করতে হাতির পিঠে জামাই যাবে এ খবর চারিদিকে ছড়িয়ে পড়লে বিয়ে বাড়িতে এলাকার লোকজন রাত থেকেই ভিড় জমাতে থাকেন। ভিড় সামলাতে বিয়ে বাড়ির লোকজনকে হিমশিম খেতে হয়।

বৃহস্পতিবার বিয়ের দিন এলে সকাল থেকেই বরের বাড়ির লোকজন ভাড়া করা হাতিকে গোসল করানো ও দেখার মতো করে সাজানোর কাজ সারেন। পাশাপাশি হাতির শরীরে বর ও কনের নাম লিখে দেওয়া হয়। দুপুর সাড়ে ৩টার দিকে বরকে হাতির পিঠে চড়িয়ে নিয়ে যান কনের বাড়িতে। এ সময় বর ও কনের বাড়ি এলাকার চার-পাঁচ গ্রামের শিশু কিশোরসহ সব বয়সী লোকজন হাতি, বউ ও জামাইকে দেখতে ভিড় জমান।

বর মো. রতন বলেন, ‘বাবা-মার শখ পূরণ করতে হাতির পিঠে চড়ে বিয়ে করতে এসেছি।’

একাধিক বরযাত্রী জানান, এ অঞ্চলে হাতির পিঠে চড়ে বিয়ের ঘটনা সচরাচর ঘটে না। তাই উপভোগের বিষয় ছিল বটে। 

এবিষয়ে কথা বলার জন্য ছেলের বাবা ও তাড়াশ সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের মোবাইল নম্বরে একাধিকবার কল করা হলেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

/এফআর/
সম্পর্কিত
আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় ৭ বছরের জেল, লাখ টাকা জরিমানা
আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় ৭ বছরের জেল, লাখ টাকা জরিমানা
আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ: অস্ত্রসহ আরেক যুবক গ্রেফতার
আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ: অস্ত্রসহ আরেক যুবক গ্রেফতার
জয়পুরহাটে শিশু হত্যায় একজনের যাবজ্জীবন
জয়পুরহাটে শিশু হত্যায় একজনের যাবজ্জীবন

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় ৭ বছরের জেল, লাখ টাকা জরিমানা
আপত্তিকর পোস্ট দেওয়ায় ৭ বছরের জেল, লাখ টাকা জরিমানা
আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ: অস্ত্রসহ আরেক যুবক গ্রেফতার
আ.লীগ-বিএনপি সংঘর্ষ: অস্ত্রসহ আরেক যুবক গ্রেফতার
জয়পুরহাটে শিশু হত্যায় একজনের যাবজ্জীবন
জয়পুরহাটে শিশু হত্যায় একজনের যাবজ্জীবন
সোনাতলায় ইউপি নির্বাচনে মুখোমুখি দুই ভাই
সোনাতলায় ইউপি নির্বাচনে মুখোমুখি দুই ভাই
© 2022 Bangla Tribune