X
শনিবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২২
১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

বগুড়ায় আ.লীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা: গ্রেফতার ৫

বগুড়া প্রতিনিধি
০১ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৫২আপডেট : ০১ অক্টোবর ২০২২, ০৮:৫৪

বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় আওয়ামী লীগ নেতা মর্তুজা কাওসার অভিকে (৩৮) কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় আট জনের নাম উল্লেখ করে ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। নিহতের স্ত্রী খাদিজা আকতার লিমা শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) শেরপুর থানায় এই মামলা করেন। পুলিশ এজাহারনামীয় পাঁচ জনকে গ্রেফতার করেছে।

আসামিরা হলেন—শেরপুরের খন্দকারপাড়ার সাবেক চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম রাঞ্জুর ছেলে যুবলীগ পৌর কমিটির সদস্য আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ হিমেল (৩২), পূর্ব দত্তপাড়ার গোলাম মোস্তফা ড্রাইভারের ছেলে যুবলীগ কর্মী সোহাগ হোসেন (৩০), নয়াপাড়া এলাকার যুবলীগ কর্মী জাহিদ হোসেন (২৬), নয়াপাড়া এলাকার জিল্লুর রহমানের ছেলে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুর রহমান শুভ (৩৫), নয়াপাড়ার (কোর্টপাড়া) নুরুল ইসলামের ছেলে মির্জাপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম (৩২), পৌর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. রকি (২৭), শেরুয়া গ্রামের পাকছার আলীর ছেলে পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম বাপ্পী (৩৭) এবং উলিপুরপাড়ার আলতাব হোসেনের ছেলে যুবলীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক এনামুল মুসলিমিন সোহাগ (৩৫)। তাদের মধ্যে শুভ, বাপ্পী, হিমেল, সোহাগ ও জাহিদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এজাহার সূত্রে জানা গেছে, মর্তুজা কাওসার অভি শেরপুর পৌর এলাকার বারোদুয়ারী খন্দকারপাড়ার মৃত হোসাইন কাওসার ফুয়াদের ছেলে। তিনি পৌর আওয়ামী লীগের প্রস্তাবিত কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। তার সঙ্গে ঠিকাদারি ও হাটের ইজারা নিয়ে আসামিদের বিরুদ্ধে চলছিল। গত ২৮ সেপ্টেম্বর বিকাল সাড়ে ৪টায় অভি তার প্রাইভেটকার মেরামতের জন্য শেরপুর উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন মোজাহিদ গ্যারেজে যান। এ সময় আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ হিমেল পূর্ব পরিকল্পনা অনুসারে দাকে ডেকে গ্যারেজের পাশে ফাঁকা বাগানে নিয়ে যান। সেখানে আগে থেকে লুকিয়ে থাকা আসামিরা অভির সঙ্গে বাগবিতণ্ডা শুরু করেন। এক পর্যায়ে তারা ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করেন। প্রাণ বাঁচতে অভি বাগানের ভেতরে দৌড়ে পালানোর চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। পরে রামদা, চাপাতি ও চায়নিজ কুড়াল দিয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ফেলে যাওয়া হয়।

স্থানীয়রা রক্তাক্ত অভিকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্ত শেষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দিকে শেরপুরের বারোদুয়ারী খন্দকারপাড়ার বাড়িতে লাশ আনা হয়। রাতেই শেরপুর শহীদিয়া আলিয়া মাদ্রাসার মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে বাবার কবরের পাশে দাফন করা হয়েছে। 

স্থানীয় সূত্র জানায়, এলাকায় ও সংগঠনে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে আওয়ামী লীগ নেতা অভির সঙ্গে যুবলীগ নেতা সোহাগের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে অভি কিছুদিন আগে সোহাগকে ছুরিকাঘাত করেন। মামলা হলে অভি উচ্চ আদালত থেকে জামিন পান। এই বিরোধের জের ধরেই অভিকে হত্যা করা
হয়েছে ধারণা করা হচ্ছে।

শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আতাউর রহমান খন্দকার জানান, অভি হত্যা মামলার পাঁচ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

/এসএইচ/
ব্যবসায়ীর মারধরে আহত অটোরিকশাচালকের মৃত্যু
ব্যবসায়ীর মারধরে আহত অটোরিকশাচালকের মৃত্যু
পুতিনের সঙ্গে দেখা করতে চান না বাইডেন
পুতিনের সঙ্গে দেখা করতে চান না বাইডেন
কানায় কানায় পরিপূর্ণ ঈদগাহ মাঠ
বিএনপির গণসমাবেশকানায় কানায় পরিপূর্ণ ঈদগাহ মাঠ
ভারতীয় সেনাবাহিনী যুক্ত হওয়ায় কোন পথে এগোয় যুদ্ধ
ভারতীয় সেনাবাহিনী যুক্ত হওয়ায় কোন পথে এগোয় যুদ্ধ
সর্বাধিক পঠিত
আঙুলের অপারেশনে শিশুর মৃত্যু, গোসলের সময় দেখা গেলো পুরো পেটে সেলাই
আঙুলের অপারেশনে শিশুর মৃত্যু, গোসলের সময় দেখা গেলো পুরো পেটে সেলাই
শাহবাগে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় মৃত্যু দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকাণ্ড: রমনা ডিসি
শাহবাগে প্রাইভেটকারের ধাক্কায় মৃত্যু দুর্ঘটনা নয়, হত্যাকাণ্ড: রমনা ডিসি
তারেক রহমানকে ‘বেয়াদব’ বললেন ওবায়দুল কাদের
তারেক রহমানকে ‘বেয়াদব’ বললেন ওবায়দুল কাদের
বিএনপির সমাবেশে খালেদা জিয়ার যোগদান নিয়ে যা বললেন তথ্যমন্ত্রী
বিএনপির সমাবেশে খালেদা জিয়ার যোগদান নিয়ে যা বললেন তথ্যমন্ত্রী
রিমান্ডে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে আবিরের মা-বাবা
আয়াত হত্যারিমান্ডে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছে আবিরের মা-বাবা