X
রবিবার, ২৬ মার্চ ২০২৩
১২ চৈত্র ১৪২৯
গাইবান্ধা-৫ উপনির্বাচন

ভোটার উপস্থিতি কম, অনেক কেন্দ্র ফাঁকা

জিল্লুর রহমান পলাশ, গাইবান্ধা
০৪ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪:১৯আপডেট : ০৪ জানুয়ারি ২০২৩, ১৭:০২

গাইবান্ধা-৫ (সাঘাটা-ফুলছড়ি) আসনের উপনির্বাচনে বুধবার (০৪ জানুয়ারি) সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ চলছে। সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ভোটগ্রহণ চললেও অধিকাংশ কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি কম দেখা গেছে। তবে কিছু সংখ্যক কেন্দ্রে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন ছিল চোখে পড়ার মতো।

ঘন কুয়াশা ও তীব্র শীতের প্রকোপে ভোটাররা কেন্দ্রে আসছেন না বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট কেন্দ্রের প্রিসাইডিং কর্মকর্তারা। তবে দুপুরের পর থেকে কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের উপস্থিতি বাড়ছে বলে জানান তারা। ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ায় ফাঁকা কেন্দ্রগুলোতে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশ ও আনসার সদস্যদের অলস সময় কাটাতে দেখা গেছে।

এদিকে, কেন্দ্রগুলো ফাঁকা হলেও অল্প সময়ের মধ্যে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে খুশি ভোটাররা। ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট দিতে কোনও সমস্যা হচ্ছে না বলে জানিয়েছেন তারা। ভোটগ্রহণ শুরুর পর থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলার বিভিন্ন কেন্দ্র ঘুরে কম ভোটার উপস্থিতির চিত্র দেখা গেছে। 

অনেক ভোটকেন্দ্র ফাঁকা

সকাল ৯টার দিকে কঞ্চিপাড়া এমএইউ একাডেমিক কেন্দ্রে গিয়ে ভোটারদের কোনও লাইন দেখা যায়নি। পুরুষ ও নারী দুই থেকে চারজন ভোটার এসে ভোট দিতে দেখা গেছে। কুকড়াহাট সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রেও ভোটারদের উপস্থিতি দেখা যায়নি। এই ভোটকেন্দ্রে দুই হাজার ৫০৫ জন ভোটারের মধ্যে বেলা ১১টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে মাত্র ১১০টি ভোট। ভরতখালি বন্দর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে দুপুর ১২টা পর্যন্ত ভোটারদের কোনও লাইন দেখা যায়নি। তবে কেন্দ্রের মধ্যে নারী ভোটারের ১৫ থেকে ২০ জনকে লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। 

কেন্দ্রটির প্রিসাইডিং কর্মকর্তা কৃষ্ণ চন্দ্র রায় জানান, এই কেন্দ্রে মোট ভোটার তিন হাজার ৩৯। তবে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে মাত্র পাঁচ শতাধিক ভোট। তীব্র শীতের কারণে দুপুর পর্যন্ত সূর্য দেখা যায়নি। এ কারণে ভোটার উপস্থিতি কম। তবে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটারের উপস্থিতি বেড়েছে বলে জানান তিনি।

ভোটারদের দীর্ঘ লাইন দেখা গেছে ভরতখালি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে। এই কেন্দ্রে নারী ভোটারের উপস্থিতি কম থাকলেও পুরুষ ভোটারের উপস্থিতি ছিল চোখে পড়ার মতো। একই অবস্থা গোবিন্দি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রেও। এ কেন্দ্রে পুরুষ ও নারী ভোটারদের লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিতে দেখা গেছে। 

ভরতখালি বন্দর উচ্চ বালিকা বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিতে আসা শেয়ালি বেগম বলেন, ‘গত ১২ অক্টোবর ভালোভাবেই ভোট দিয়েছিলাম। এবারও কেন্দ্রে এসে পছন্দের প্রার্থীকে দ্রুত ভোট দিয়েছি।’

এই কেন্দ্রের আরেক ভোটার আবদুল মান্নান বলেন, ‘ইভিএমে ভোট দেওয়ার আগে ভয় লাগলেও পরে ভয় কেটে গেছে। কেন্দ্র ও কেন্দ্রের বাইরের পরিবেশও খুব ভালো।’

কিছু সংখ্যক কেন্দ্রে ভোটারদের দীর্ঘ লাইন ছিল চোখে পড়ার মতো

ভরতখালি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট প্রদান শেষে জমির আলী বলেন, ‘ভাবছিলাম ভোট দিতে এসে কোনও সমস্যায় পড়ি কিনা। লাইনে দাঁড়িয়ে অপেক্ষার পর পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়ে খুবই ভালো লাগছে। এখন পর্যন্ত ভোটের পরিবেশ যেমনটি রয়েছি, তেমনি যেন বজায় থাকে।’

এই কেন্দ্রে স্ত্রী আমেনা বেগমকে সঙ্গে নিয়ে ভোট দিতে আসেন ষাটোর্ধ্ব হাবিজার রহমান। তিনি বলেন, ‘কেন্দ্র ও কেন্দ্রের বাইরে কোনও সমস্যা নেই। পুলিশ আনসারসহ কেন্দ্রগুলোতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা দায়িত্ব পালন করছেন। তাদের সহযোগিতায় স্ত্রীকে নিয়ে সুষ্ঠুভাবে পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিয়েছি।’

উপনির্বাচনে সাঘাটা ও ফুলছড়ি উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নে ১৪৫টি কেন্দ্রে সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণ চলছে বলে জানিয়েছেন রিটানিং কর্মকর্তা মো. ফরিদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ‘দুপুর ১টা পর্যন্ত কোথাও কোনও অপ্রীতিকর ঘটনার খবর পাওয়া যায়নি। কেন্দ্রগুলোতে ইভিএমে কোনও ত্রুটি পাওয়া যায়নি। দুপুরের আগ পর্যন্ত কেন্দ্রগুলোতে ভোটার উপস্থিতি কম থাকলেও তা এখন বাড়তে শুরু করেছে। বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণের আশা করেন।’

গেলো বছরের ২৩ জুলাই সাবেক ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার মৃত্যুতে গাইবান্ধা-৫ আসনটি শূন্য হয়। এরপর গত ১২ অক্টোবর গাইবান্ধা-৫ আসনে ভোটগ্রহণ চলাকালে নানা অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। এরপর ভোটগ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। অনিয়মের সঙ্গে ১১৫ জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষণা দেয় ইসি। কমিশনের সিদ্ধান্তে ৪ জানুয়ারি ভোটগ্রহণ হবে।

ফাঁকা কেন্দ্রে অলস সময় কাটাচ্ছেন পুলিশ ও আনসার সদস্যরা

গাইবান্ধা-৫ আসনটি ফুলছড়ি ও সাঘাটা উপজেলা নিয়ে গঠিত। দুই উপজেলার ১৭টি ইউনিয়নে মোট ভোটার ৩ লাখ ৩৯ হাজার ৪ জন। গেলো বছরের ২৩ জুলাই সাবেক ডেপুটি স্পিকার ফজলে রাব্বী মিয়ার মৃত্যুতে গাইবান্ধা-৫ আসনটি শূন্য হয়। এরপর গত ১২ অক্টোবর গাইবান্ধা-৫ আসনে ভোটগ্রহণ চলাকালে নানা অনিয়মের অভিযোগ ওঠে। এরপর ভোটগ্রহণ বন্ধ ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। অনিয়মের সঙ্গে ১১৫ জন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের ঘোষণা দেয় ইসি। 

নির্বাচনে পাঁচ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও মাঠে সক্রিয় আওয়ামী লীগের মাহমুদ হাসান রিপন (নৌকা) ও জাতীয় পার্টির প্রার্থী (জাপা) এএইচএম গোলাম শহিদ রঞ্জু (লাঙ্গল)। তবে ভোটের মাঠে প্রচারণায় দেখা যায়নি বিকল্পধারা বাংলাদেশের জাহাঙ্গীর আলম (কুলা) ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সৈয়দ মাহবুবুর রহমানকে (ট্রাক)। গত ২৫ ডিসেম্বর অপর স্বতন্ত্র প্রার্থী নাহিদুজ্জামান নিশাদ (আপেল) গত ২৫ ডিসেম্বর নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন। 

/এসএইচ/
সংলাপের আমন্ত্রণ জানিয়ে বিএনপিকে ইসির চিঠি
ইভিএম মেরামতের টাকা চাইবে ইসি, না পেলে ভোট ব্যালটে
লন্ডনে স্থানীয় সরকার নির্বাচনে দুই বাংলাদেশির লড়াই
সর্বশেষ খবর
জাতীয় স্মৃতিসৌধে ডেপুটি স্পিকারের শ্রদ্ধা
জাতীয় স্মৃতিসৌধে ডেপুটি স্পিকারের শ্রদ্ধা
রমজান ঘিরে জমজমাট সিডনির রাত্রিকালীন মার্কেট
রমজান ঘিরে জমজমাট সিডনির রাত্রিকালীন মার্কেট
বেলারুশে পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়ন করবেন পুতিন
বেলারুশে পারমাণবিক অস্ত্র মোতায়ন করবেন পুতিন
‘অর্থনৈতিক মুক্তিই স্বাধীনতা দিবসের অঙ্গীকার’
‘অর্থনৈতিক মুক্তিই স্বাধীনতা দিবসের অঙ্গীকার’
সর্বাধিক পঠিত
৭০ বছর বয়সে বিয়ের কারণ জানালেন সেই কলেজশিক্ষক
৭০ বছর বয়সে বিয়ের কারণ জানালেন সেই কলেজশিক্ষক
বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল পরিচালনা ও হ্যান্ডলিং করতে চায় জাপান
বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল পরিচালনা ও হ্যান্ডলিং করতে চায় জাপান
শুকিয়ে যাওয়া তিস্তা নদী হঠাৎ পানিতে টইটম্বুর
শুকিয়ে যাওয়া তিস্তা নদী হঠাৎ পানিতে টইটম্বুর
পুতিনকে ইউক্রেন যুদ্ধ শেষ করতে বললেন এরদোয়ান
পুতিনকে ইউক্রেন যুদ্ধ শেষ করতে বললেন এরদোয়ান
ওসি হারুন এতো সহজে হারে না: ‘মহানগর ২’
ওসি হারুন এতো সহজে হারে না: ‘মহানগর ২’