X
শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪
৩০ চৈত্র ১৪৩০

ফুলবাড়ী নিয়ে এখনও লন্ডন থেকে ষড়যন্ত্র চলছে: আনু মুহাম্মদ

দিনাজপুর প্রতিনিধি
২৬ আগস্ট ২০২৩, ২০:১৬আপডেট : ২৬ আগস্ট ২০২৩, ২০:১৬

ফুলবাড়ী কয়লা খনি নিয়ে এখনও ষড়যন্ত্র বন্ধ হয়নি বলে জানিয়েছেন তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির সদস্য সচিব আনু মুহাম্মদ। তিনি বলেন, ‌‘আন্দোলনের ১৭ বছর পরও ফুলবাড়ী নিয়ে বহুজাতিক কোম্পানি এশিয়া এনার্জি লন্ডন থেকে ষড়যন্ত্র চালিয়ে যাচ্ছে। ফুলবাড়ীর কয়লা খনি দেখিয়ে শেয়ারবাজারে ব্যবসা চলছে। ইতোমধ্যে তারা একটি চীনা কোম্পানির সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। ফুলবাড়ী আন্দোলনের নেতাদের নামে মামলা দেওয়া হয়েছে।’

শনিবার (২৬ আগস্ট) দুপুরে দিনাজপুরে ফুলবাড়ী ট্র্যাজেডি দিবস উপলক্ষে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। এর আগে সকালে দিবসটি উপলক্ষে তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি, ফুলবাড়ী পৌরসভার মেয়র ও আমরা ফুলবাড়ীবাসীসহ বিভিন্ন সংগঠনের ব্যানারে ২৬ আগস্টে নিহতদের স্মরণে পৌর শহরে শোক র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালি নিয়ে শহর প্রদক্ষিণ শেষে শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়।

তেল গ্যাস খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটি ফুলবাড়ী শাখার আহ্বায়ক সাইফুল ইসলাম জুয়েলের সভাপতিত্বে সমাবেশে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গণসংহতি আন্দোলনের প্রধান সমন্বয়কারী জোনায়েদ সাকি, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য মোশাররফ হোসে নান্নু, বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক পার্টির নির্বাহী সভাপতি আব্দুল আলী, সমাজতান্ত্রিক মজদুর পার্টির সাধারণ সম্পাদক সামসুল আলম ও ফুলবাড়ী পৌরসভার মেয়র মাহমুদ আলম লিটন প্রমুখ।

ফুলবাড়ীর আন্দোলন শুধুমাত্র কয়লা রক্ষার নয়, এটি ছিল ফুলবাড়ী মানুষের জীবন-জীবিকা রক্ষার উল্লেখ করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক আনু মুহাম্মদ বলেন, ‘ভূ-সম্পদ, বসতভিটা, প্রাণিসম্পদ রক্ষার জন্য আমরা সেদিন আন্দোলন করেছিলাম। আন্দোলনের মূল দাবি ছিল, জনগণের সম্মতি ছাড়া কোনও কিছু করা যাবে না। উন্নয়নের নামে কোনও প্রকার ধ্বংসযজ্ঞ চালানো যাবে না। এখন যদি কেউ ভাবে, এই আন্দোলন আর নাই, তাহলে সেটি ভুল। ১৭ বছর পার হলেও এই অঞ্চলের মানুষ এখনও জাগ্রত আছে। এখনও এই এলাকার মানুষ ফুলবাড়ী রক্ষার জন্য রাস্তায় নেমে আসেন।’ 

তিনি বলেন, ‘ফুলবাড়ীতে রক্তাক্ত আন্দোলনের পর তৎকালীন বিরোধীদলীয় নেতা শেখ হাসিনা সেসময় ফুলবাড়ীবাসীকে তাদের দাবি পূরণের কথা দিয়েছিলেন। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার ১৪ বছর পরও ছয় দফা দাবি এখনও পুরোপুরি বাস্তবায়িত হয়নি। এশিয়া এনার্জিসহ বিভিন্ন বহুজাতিক কোম্পানি বাংলাদেশের জনগণের বিরুদ্ধে এখনও ষড়যন্ত্র করছে। সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় কোনও বিদেশি কোম্পানি যদি এখানে আবারও ষড়যন্ত্র করে, তাহলে আবারও জনতার বিস্ফোরণ ঘটবে। এটি যাতে না ঘটে, সেজন্য আমরা সরকারের কাছে ছয় দফা বাস্তবায়নের দাবি জানাই।’ 

আনু মুহাম্মদ বলেন, ‘সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন, সব রাজনৈতিক দলের প্রতি আহ্বান, ক্ষমতায় যারাই আসুক, ছয় দফা বাস্তবায়ন করতে হবে। এটি শুধু এই অঞ্চলের মানুষের দাবি নয়, এটি পুরো বাংলাদেশের মানুষের দাবি। মানুষের জীবন-জীবিকা ও প্রাণবৈচিত্র্য রক্ষায় এসব দাবি বাস্তবায়ন করতে হবে।’

প্রসঙ্গত, ২০০৬ সালের ২৬ ফুলবাড়ী ট্রাজেডি দিবস। ২০০৬ সালের এই দিনে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে কয়লাখনি প্রকল্প বাতিল, জাতীয় সম্পদ রক্ষা এবং বিদেশি কোম্পানি এশিয়া এনার্জিকে দিনাজপুরের ফুলবাড়ী থেকে প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ করেছিল স্থানীয়রা। ওই সময় বিক্ষুব্ধ জনতার ওপর পুলিশ ও বিডিআর গুলি ছুড়লে ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান তিন জন। আহত হন দুই শতাধিক মানুষ। শনিবার (২৬ আগস্ট) ফুলবাড়ী ট্র্যাজেডির ১৭ বছর পূর্ণ হলো। এত বছর পেরিয়ে গেলেও এখনও বাস্তবায়িত হয়নি আন্দোলনকারীদের সঙ্গে করা ছয় দফা চুক্তি। কান্না থামেনি নিহতের স্বজনদের। আন্দোলনকারী অনেকের বিরুদ্ধে মামলা এখনও চলমান।

/এএম/
সম্পর্কিত
বাংলাদেশের জনগণ কারও প্রভুত্ব স্বীকার করে না: মির্জা ফখরুল
মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে মির্জা ফখরুলপুলিশের হুইসেল-সাউন্ড গ্রেনেড শুনে পালাবে না, সেই সাহস নিয়ে দাঁড়াতে হবে
সোমবার বিএনপির মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশ, থাকছেন মির্জা ফখরুল
সর্বশেষ খবর
যশোরে শুরু হচ্ছে ১০ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা
যশোরে শুরু হচ্ছে ১০ দিনব্যাপী বৈশাখী মেলা
ইউরোপে বৈধ পথে শ্রমিক পাঠানো সহজ হবে
ইউরোপে বৈধ পথে শ্রমিক পাঠানো সহজ হবে
লুটনকে উড়িয়ে দিলো ম্যানসিটি
লুটনকে উড়িয়ে দিলো ম্যানসিটি
দায়িত্বে গাফিলতির কারণে ডুবে গিয়েছিল রজনীগন্ধা ফেরি, ১১ জন বরখাস্ত
দায়িত্বে গাফিলতির কারণে ডুবে গিয়েছিল রজনীগন্ধা ফেরি, ১১ জন বরখাস্ত
সর্বাধিক পঠিত
ঈদের তৃতীয় দিন: দেখতে পারেন যেসব নাটক
ঈদের তৃতীয় দিন: দেখতে পারেন যেসব নাটক
বাংলাদেশে বিমান মেরামতের কারখানা করতে চায় কানাডিয়ান কোম্পানি
বাংলাদেশে বিমান মেরামতের কারখানা করতে চায় কানাডিয়ান কোম্পানি
হুন্ডি প্রতিরোধে কী করছে সরকার?
হুন্ডি প্রতিরোধে কী করছে সরকার?
ভরা মৌসুমে অস্থির কেন পেঁয়াজের বাজার?
ভরা মৌসুমে অস্থির কেন পেঁয়াজের বাজার?
ইসরায়েল থেকে ফ্লাইট আসার ব্যাখ্যা দিলো বেবিচক
ইসরায়েল থেকে ফ্লাইট আসার ব্যাখ্যা দিলো বেবিচক