X
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
৫ বৈশাখ ১৪৩১

কুড়িগ্রামে অসদুপায় অবলম্বন করায় ৪ পরীক্ষার্থী বহিষ্কার, শিক্ষককে অব্যহতি

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২৩:৩১আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ২৩:৩১

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ীতে চলমান এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করায় চার পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) উপজেলার তিনটি কেন্দ্রের এই চার পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়। একইসঙ্গে কক্ষ পরিদর্শকের দায়িত্বে থাকা এক শিক্ষককে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হেয়েছে। ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সিব্বির আহমেদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

রবিবার এসএসসি ও সমমানের গণিত বিষয়ের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ইউএনও জানান, পরীক্ষা কক্ষে মোবাইল আনাসহ অসদুপায় অবলম্বন করায় ফুলবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, মিয়াপাড়া নাজিমুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় ও ফু্লবাড়ী জছিমিঞা মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র থেকে চার পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। এর মধ্যে মিয়াপাড়া নাজিমুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের দুজন পরীক্ষার্থী রয়েছেন।

কেন্দ্র সূত্র জানায়, ফুলবাড়ী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীন ভোকেশনাল শাখার এক শিক্ষার্থীর কাছ থেকে মোবাইল জব্দ করা হয়। পরে বহিষ্কার করা হয়েছে। ওই কক্ষে পরিদর্শকের দায়িত্বে থাকা এক শিক্ষককে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়। তিনি উপজেলার মোস্তাকিমা দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক। এছাড়া জছিমিঞা মডেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে পরীক্ষা চলাকালীন প্রশ্নপত্র বাইরে সরবরাহ করার অভিযোগে এক পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়। সরবরাহকৃত প্রশ্নপত্র উদ্ধার করা হলেও ওই পরীক্ষার্থীর সহযোগীকে আটক করতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। অপর দুই শিক্ষার্থীর কাছে নকল পাওয়ায় তাদের বহিষ্কার করা হয়।

ইউএনও সিব্বির আহমেদ বলেন, ‘চার পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কারের পাশাপাশি এক শিক্ষককে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। আগামীতেও পরীক্ষায় অসদুপায় অবলম্বন করলে বিধি অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

/এএম/
সম্পর্কিত
এইচএসসি পরীক্ষা ৩০ জুন থেকে, সূচি প্রকাশ
নিপীড়ক শিক্ষকের স্থায়ী বহিষ্কারের দাবি ভুক্তভোগীর
শৃঙ্খলা ভঙ্গের দায়ে শাবিপ্রবি ছাত্রলীগের ৮ কর্মী বহিষ্কার
সর্বশেষ খবর
কণ্ঠের সুচিকিৎসা দেশেই সম্ভব: বিএসএমএমইউ ভিসি
কণ্ঠের সুচিকিৎসা দেশেই সম্ভব: বিএসএমএমইউ ভিসি
গরু অথবা মাংস আমদানির বিকল্প কী?
গরু অথবা মাংস আমদানির বিকল্প কী?
ক্রিমিয়ায় রুশ ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসের দাবি ইউক্রেনের
ক্রিমিয়ায় রুশ ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসের দাবি ইউক্রেনের
প্রাণিসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাতকে উদ্যোক্তা হিসেবে দেখতে চান প্রধানমন্ত্রী
প্রাণিসম্পদ উন্নয়নে বেসরকারি খাতকে উদ্যোক্তা হিসেবে দেখতে চান প্রধানমন্ত্রী
সর্বাধিক পঠিত
এএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
রেস্তোরাঁয় ‘মদ না পেয়ে’ হামলার অভিযোগএএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
রাজধানীকে ঝুঁকিমুক্ত করতে নতুন উদ্যোগ রাজউকের
রাজধানীকে ঝুঁকিমুক্ত করতে নতুন উদ্যোগ রাজউকের
‘আমি এএসপির বউ, মদ না দিলে রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেবো’ বলে হামলা, আহত ৫
‘আমি এএসপির বউ, মদ না দিলে রেস্তোরাঁ বন্ধ করে দেবো’ বলে হামলা, আহত ৫
ফিলিস্তিনের পূর্ণ সদস্যপদ নিয়ে জাতিসংঘে ভোট
ফিলিস্তিনের পূর্ণ সদস্যপদ নিয়ে জাতিসংঘে ভোট