X
সকল বিভাগ
সেকশনস
সকল বিভাগ

আফ্রিকার শিশুদের দেওয়া হবে ম্যালেরিয়ার টিকা

আপডেট : ০৬ অক্টোবর ২০২১, ২২:২২

আফ্রিকা মহাদেশের শিশুদের প্রাণঘাতী ম্যালেরিয়া রোগ থেকে রক্ষার জন্য টিকা দেওয়া হবে। এক শতাব্দীরও বেশি সময় ধরে চেষ্টার পর এই টিকা উদ্ভাবন করা হয়েছে। এটিকে চিকিৎসা শাস্ত্রের বড় অর্জন বলে মনে করা হচ্ছে।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি’র খবরে বলা হয়েছে, আরটিএস,এস নামের এই টিকাটি কার্যকর বলে প্রমাণিত হয় ছয় বছর আগে। ঘানা,কেনিয়া ও মালাউয়িতে পাইলট টিকাদান কর্মসূচির সফলতার পর বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) বলছে, টিকাটি সাব-সাহারান আফ্রিকা অঞ্চলে প্রয়োগ করা উচিত।

ডব্লিউএইচও’র মহাপরিচালক ড. টেড্রোস আডানম গেব্রিয়াসিস বলছেন, এটি ছিল একটি ঐতিহাসিক মুহূর্ত। দীর্ঘ প্রতীক্ষিত শিশুদের জন্য ম্যালেরিয়া টিকা বিজ্ঞান, শিশু স্বাস্থ্য ও ম্যালেরিয়া নিয়ন্ত্রণে একটি যুগান্তকারী ঘটনা।

তিনি আরও বলেন, প্রচলিত ওষুধের পাশাপাশি এই টিকা প্রয়োগের ফলে প্রতি বছর লাখো শিশুর জীবন বাঁচানো যাবে।

বিবিসি’র খবরে বলা হয়েছে, প্রতি বছর বিশ্বে ২৩০ মিলিয়ন মানুষ ম্যালেরিয়ায় আক্রান্ত হচ্ছেন এবং ৪ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়। এর মধ্যে প্রায় ৯৫ শতাংশ আফ্রিকায়। ২০১৯ সালে এই অঞ্চলে ২ লাখ ৬০ হাজারের বেশি শিশুর মৃত্যু হয়েছে।

আফ্রিকায় শতাধিক ম্যালেরিয়া পরজীবী রয়েছে। আরটিএস,এস টিকায় আফ্রিকায় সবচেয়ে প্রাণঘাতী ও সাধারণভাবে বিদ্যমান প্লাসমোডিয়াম ফ্যালসিপ্যারামকে টার্গেট করা হয়েছে।

২০১৫ সালের ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে টিকাটি ১০টি কেসের মধ্যে ৪টি ঠেকাতে সক্ষম হয়েছে বলে উঠেছে। এছাড়া গুরুতর আক্রান্ত ১০টি কেসের ৩টির ক্ষেত্রেও সফলতা এসেছে এবং শিশুদের মধ্যে রক্ত সঞ্চালনের হার এক-তৃতীয়াংশ কমেছে।

ডব্লিউএইচও’র বৈশ্বিক ম্যালেরিয়া কর্মসূচির পরিচালক ড. পেড্রো আলোনসো বলেন, বৈজ্ঞানিক দৃষ্টিকোন থেকে এটি বড়ধরনের যুগান্তকারী ঘটনা, জনস্বাস্থ্যগত দিক থেকে এটি একটি ঐতিহাসিক কীর্তি। আমরা প্রায় শতাধিক বছর ধরে ম্যালেরিয়ার টিকার অনুসন্ধানে ছিলাম। এটি জীবন বাঁচাবে এবং আফ্রিকার শিশুদের আক্রান্ত হওয়া ঠেকাবে।

ফার্মা জায়ান্ট জিএসকে উদ্ভাবিত টিকাটি ম্যালেরিয়ার প্রচলিত নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থাকে প্রতিস্থাপন করবে না। এগুলোর পাশাপাশিই টিকা দেওয়া হবে। লক্ষ্য হলো ম্যালেরিয়ায় মৃত্যু শূন্যে নামিয়ে আনা। ভিন্ন ধরনের ম্যালেরিয়া থাকায় আফ্রিকা ছাড়া বিশ্বের অন্যান্য অঞ্চলে এটি প্রয়োগ করা হবে না।

/এএ/
বাংলা ট্রিবিউনের সর্বশেষ
প্রচারণার শুরুতেই ইসিরা যাচ্ছেন নির্বাচনি এলাকায়
প্রচারণার শুরুতেই ইসিরা যাচ্ছেন নির্বাচনি এলাকায়
টেক্সাসের স্কুলে হামলা: ‘ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিল পুলিশ’
টেক্সাসের স্কুলে হামলা: ‘ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিল পুলিশ’
বাটলারের ব্যাটে স্বপ্নভঙ্গ কোহলিদের
বাটলারের ব্যাটে স্বপ্নভঙ্গ কোহলিদের
ইঞ্জিনসহ বগি লাইনচ্যুত, ঢাকা-রাজশাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ
ইঞ্জিনসহ বগি লাইনচ্যুত, ঢাকা-রাজশাহী ট্রেন চলাচল বন্ধ
এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত
মাংকিপক্সের বিরুদ্ধে গণটিকার প্রয়োজন নেই: ডব্লিউএইচও
মাংকিপক্সের বিরুদ্ধে গণটিকার প্রয়োজন নেই: ডব্লিউএইচও