জঙ্গি হামলা ঠেকাতে ব্যর্থতা, শ্রীলঙ্কার পুলিশ প্রধান গ্রেফতার

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১০:২৭, জুলাই ০৩, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৬:০৯, জুলাই ০৩, ২০১৯

শ্রীলঙ্কায় ইস্টার সানডেতে ভয়াবহ জঙ্গি হামলা ঠেকাতে ব্যর্থতার দায়ে মঙ্গলবার দেশটির ‍পুলিশ প্রধান পুজিত জয়াসুন্দরাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ আনা হয়েছে। একই অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন সাবেক প্রতিরক্ষা সচিব হেমাসিরি ফার্নান্ডো। এর আগে দুইজনকে সাসপেন্ড করেন প্রেসিডেন্ট মৈত্রীপালা সিরিসেনা।

২০১৯ সালের ২১ এপ্রিল ইস্টার সানডে উদযাপনকালে শ্রীলঙ্কার তিনটি গির্জা ও চারটি হোটেলসহ আটটি স্থানে বিস্ফোরণ ঘটায় আইএস জঙ্গিরা। এতে নিহত হয় ২৫৮ জন। যদিও আগে থেকেই দফায় দফায় এ হামলার ব্যাপারে দেশটিকে সতর্ক করেছিল ভারতীয় গোয়েন্দারা। তবে আগাম সতর্কতা সত্ত্বেও হামলা ঠেকাতে তথা নিজেদের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হন লঙ্কান প্রতিরক্ষা সচিব ও পুলিশ প্রধান।

পুলিশের মুখপাত্র এসপি রুয়ান গুনসেকারা জানান, ফার্নান্ডোকে গ্রেফতার করেন একদল সিআইডি কর্মকর্তা। অসুস্থতার কারণে তিনি ন্যাশনাল হসপিটালে ভর্তি ছিলেন। জয়াসুন্দরাকে গ্রেফতার করা হয় পুলিশ হাসপাতাল থেকে।

এর আগে ভারপ্রাপ্ত পুলিশ প্রধান চন্দনা উইক্রমরত্নেকে লেখা চিঠিতে অ্যাটর্নি জেনারেল ডাপ্পুলা ডি লিভেরা বলেন, ‘মানবাধিকারের বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর অপরাধ সংগঠনের’ কারণে সাবেক প্রতিরক্ষা সচিব ও পুলিশ প্রধানের বিচার হওয়া উচিত। তাদের অবহেলার কারণেই এতো প্রাণহানি হয়েছে। এটি আন্তর্জাতিক আইনে মানবতাবিরোধী অপরাধের শমিল।

২১ এপ্রিলের ওই জঙ্গি হামলার বিষয়ে সাক্ষ্য দিতে মঙ্গলবার সিআইডি তলব করলেও অসুস্থতার কারণে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন জয়াসুন্দরা। পরে সেখান থেকেই জেরার পর তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত দুইজনের বিরুদ্ধেই হত্যা মামলা দায়ের করা হতে পারে বলে জানা গেছে। সূত্র: দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া।

/এমপি/

লাইভ

টপ
X