যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ১০ দিনের যুদ্ধবিরতির প্রস্তাব তালেবানের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১২:১৫, জানুয়ারি ১৭, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩৬, জানুয়ারি ১৭, ২০২০

যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে কাঙ্খিত চুক্তি স্বাক্ষর হলে ১০ দিনের যুদ্ধবিরতিতে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন তালেবান। এই সময়ে আফগান সরকারি বাহিনীর ওপরও সহিংসতা কমিয়ে আনবে বলে জানিয়েছে তারা। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা যায়। তবে তাদের চুক্তির শর্ত কি ছিলো তা স্পষ্টভাবে এখনও জানা যায়নি।

আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনীর বিরুদ্ধে তালেবানের ১৮ বছরের যুদ্ধ অবসানে ২০১৮ সালের জুন থেকে দোহায় মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করে তালেবান। এ বছরের সেপ্টেম্বরে উভয় পক্ষের আলোচকরা একটি চুক্তির দ্বারপ্রান্তে পৌঁছানোর কথা বললেও পরে তা বাতিল করে দেন ট্রাম্প। এর তিন মাসের মাথায় শনিবার নতুন করে আনুষ্ঠানিক আলোচনায় বসে দুই পক্ষ। এর আগে অবশ্য উভয় পক্ষের তরফেই অনানুষ্ঠানিক আলোচনার বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছিল।

সর্বশেষ এই আলোচনা যদি সফল হয় তবে আফগানিস্তানে দীর্ঘদিন ধরে চলা সংঘাতের অবসান হবে। তালেবানের এক মুখপাত্র সুহাইল সাহিন জানান, আলোচনার জন্য তারা বুধ ও ‍বৃহ্স্পতিবার মার্কিন কর্মকর্তাদের সঙ্গে বসেছেন। দুই পক্ষের এই আলোচনা খুবই কার্যকরী ছিলো বলে  জানান তিনি।

এই ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট এক ব্যক্তি রয়টার্সকে জানায়, তালোনের শীর্ষ নেতারা মার্কিন সেনাদের সঙ্গে ১০ দিনের যুদ্ধবিরতির ব্যাপারে আলোচনা করেছেন এবং সম্মতি জানিয়েছেন। একইসঙ্গে এই সময়ে আফগান সরকারি বাহিনীর ওপর হামলাও কমাবে তারা।

সিনিয়র এক তালেবান কমান্ডার বলেন, যুক্তরাষ্ট্র চেয়েছিলো আমরা যেন আলোচনার সময় যুদ্ধ বন্ধ রাখি। আমাদের শুরা পরিষদ থেকে জানানো হয় আমরা যেদিন শান্তি চুক্তিতে স্বাক্ষর করবো সেদিনই যুদ্ধ থামবে।’

/এমএইচ/

লাইভ

টপ