চাইলেই করোনাভাইরাসের মহামারি ঠেকানো যেত: চমস্কি

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:০৪, এপ্রিল ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:২৪, এপ্রিল ০৫, ২০২০

স্বনামধন্য মার্কিন বুদ্ধিজীবী নোম চমস্কি দাবি করেছেন, করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আগে এ ব্যাপারে বিপুল তথ্য বিশ্বের কাছে ছিল। তিনি মনে করছেন, প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিলে এই ভাইরাসের মহামারি ঠেকানো যেত। তবে মুনাফাবাজ ও দায়িত্বহীন রাজনৈতিক ও বাজার-ব্যবস্থার কারণে তা সম্ভব হয়নি। ২৮ মার্চ (শনিবার) নিজ কার্যালয় থেকে ক্রোয়েশিয়ার দার্শনিক ও লেখক সার্কো হর্ভাটের কাছে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে চমস্কি করোনার থেকেও বড় দুই বিপদ আসছে বলে সতর্ক করেছেন। এর একটি হলো বৈশ্বিক উষ্ণতা, অপরটি সম্ভাব্য একটি পরমাণু যুদ্ধ।

গত বছর ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশ থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে করোনাভাইরাস। আক্রান্তের সংখ্যার বিবেচনায় এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের পরিস্থিতি সবথেকে ভয়াবহ। আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ড ওমিটারের পরিসংখ্যান বলছে, এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত হয়েছে ৩ লাখ ১১ হাজার ৬৩৭ জন মানুষ। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ৪৫৪ জনের।

যুক্তরাষ্ট্রের এই বিপন্ন বাস্তবতায় নিজ কার্যালয়ে সেলফ-আইসোলেশনে আছেন ৯১ বছর বয়সী চমস্কি। সার্কো হর্ভাটের কাছে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাস মহামারি ঠেকানো যেত, এটি ঠেকানোর জন্য পর্যাপ্ত তথ্য ছিল। আসলে ২০১৯ সালের অক্টোবরে, এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের ঠিক আগে, যুক্তরাষ্ট্রে ব্যাপকভাবে ধারণা হয়েছিল যে এটা মহামারি আকারে ছড়াতে পারে।’ চমস্কি বলেন, এর মোকাবিলায় আসলে কিছুই করা হয়নি। ভঙ্গুর রাজনৈতিক ব্যবস্থা, যা আসন্ন বিপদের কথা জানতো, তাদের অবহেলার কারণেই করোনা সংকট আরও জটিল হয়ে পড়েছে।

সাক্ষাৎকারে চমস্কি বলেন, ‘৩১ ডিসেম্বর চীনারা নিউমোনিয়া টাইপের একটি রোগের বিষয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে তথ্য দিয়েছিল। সপ্তাহ খানেক পর কিছু চীনা বিজ্ঞানী এটিকে করোনাভাইরাস হিসেবে চিহ্নিত করেন। এরপর তারা এ বিষয়ে বিশ্বকে একের পর এক তথ্য দিতে থাকেন। ওই সময়ে কিছু ভাইরোলজিস্টসহ অন্যরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিবেদনের জন্য অপেক্ষা করতে থাকেন। তারা করোনাভাইরাস সম্পর্কে অবগত ছিলেন। তারা এটাও জানতেন যে সামনে এই ভাইরাসকে মোকাবিলা করতে হবে।’ চমস্কির প্রশ্ন: কোনও পদক্ষেপ কি নেওয়া হয়েছিল? 

'ট্রাম্প একদিন বললেন, এটা কোনও ঘটনাই না। একেবারে সাধারণ ফ্লুর মতো। একদিনের মাথায় তার বক্তব্য, এখন ভয়াবহ সংকটের সময় এবং আমি এসবই জানতাম। এর পরের দিনই তিনি আবার বলেন, আমাদের সবাইকে সবার কাজে ফিরে যেতে হবে। কারণ, আমার নির্বাচনে জিততে হবে।’ প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে ‘অবিবেচক-অনুভূতিহীন ভাঁড়'’ আখ্যা দিয়ে চমস্কি বলেন, ‘আমরা একটা বিপর্যয়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে দৌড়াচ্ছি। মানব জাতির ইতিহাসে এখন পর্যন্ত এর চেয়ে বাজে সময় আর আসেনি।’ তিনি আরও বলেন, ‘ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তাঁর সাঙ্গোপাঙ্গরা এই প্রতিযোগিতায় নেতৃত্ব দিয়ে পরিস্থিতি আরও রসাতলে নিয়ে যাবে। এমনকি আমরা বিশাল এক হুমকির মুখে পড়তে যাচ্ছি। একটি হচ্ছে নিউক্লিয়ার যুদ্ধ, অন্যটি বৈশ্বিক উষ্ণতা বৃদ্ধি।’
চমস্কি মনে করেন, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে। তবে এই দুই  হুমকির ক্ষেত্রে পরিস্থিতি উত্তরণের সুযোগ থাকবে না। সব শেষ হয়ে যাবে।
সূত্র: আলজাজিরা

/এফইউ/বিএ/এমওএফ/

লাইভ

টপ