লন্ডনে করোনায় আরও এক বাংলাদেশির মৃত্যু, দাফনে জটিলতা

Send
মুনজের আহমদ চৌধুরী, লন্ডন
প্রকাশিত : ০০:০৯, এপ্রিল ০৬, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:১১, এপ্রিল ০৬, ২০২০

যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও এক বাংলাদেশির মৃত্যু হয়েছে। রবিবার মারা যাওয়া বাংলাদেশির নাম এনামুল ওয়াহিদ (৩২)। ইউকে বাংলা প্রেসক্লাব সভাপতি কে এম আবু তাহের চৌধুরী এই মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। যুক্তরাজ্যে এখন পর্যন্ত করোনায় মারা যাওয়া বাংলাদেশির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫ জন। করোনায় মৃতদের শুধু গার্ডেন অব পিস কবরস্থানে দাফনের অনুমতি পাওয়া যাচ্ছে। অন্য কবরস্থানে করোনায় মৃতদের দাফনের অনুমতি দিচ্ছে না। 

বাংলাদেশে এনামুল ওয়াহিদের বাড়ি নবীগঞ্জের মোস্তফাপুর। তিনি লন্ডনের চেডওয়েলহিথের বাসিন্দা। এর আগে গত সপ্তাহে এনামুলের বড় ভাইও করোনায় মারা গেছেন।

পূর্ব লন্ড‌নে বাংলা‌দেশিসহ মুস‌লিম‌দের কবরস্থান হি‌সে‌বে প‌রি‌চিত গার্ডেন অব পিস। লন্ড‌ন ও লন্ড‌নের উপক‌ণ্ঠের মুস‌লিম কবরস্থানগু‌লোর ম‌ধ্যে এই গোরস্থা‌নেই ক‌রোনায় মৃতদের দাফন করতে দি‌চ্ছে কর্তৃপক্ষ। অন‌্য কবরস্থানগু‌লো ক‌রোনায় আক্রান্ত‌দের লাশ দাফ‌নে অস্বীকৃ‌তি জানা‌চ্ছে।

ইউ‌কে বাংলা প্রেসক্লাব সভাপ‌তি কে এম আবু তা‌হের চৌধুরী বাংলা‌দেশ সময় রবিবার রাত সা‌ড়ে এগারটায় বাংলা ট্রিবিউন‌কে জানান,  করোনায় আক্রান্তরা অনেকেই বাসায় মারা যা‌চ্ছেন। এইমাত্র খবর পেলাম  চেডওয়েলহিথে ৩২ বছর বয়সী একজন বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত হয়ে বাসায় ইন্তেকাল করেছেন । লাশ দাফন করার জন্য গার্ডেন অব পিসের কাউকে পাওয়া যাচ্ছে না। আমার সহযোগিতা তারা চাইছেন। আমি দুটো দাফন সেবা প্রদানকারী কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করলাম।

আবু তাহের চৌধুরী আরও জানান, দুটি প্রতিষ্ঠান জানায় করোনা ভাইরাসে মৃতদের তারা দাফন করেন না। তবে গার্ডেন অব পিস দাফন করে। তারা খুব ব্যস্ত। আজ অনেক লাশ দাফ‌নের দা‌য়িত্ব তাদের হা‌তে। বার বার ফোন করতে হবে গার্ডেন অব পিসে।

উল্লেখ্য, পূর্ব লন্ডনের কোনও পরিবারের কেউ মারা গেলে দাফনের জন্য গার্ডেন অব পিসে যোগাযোগের ফোন নম্বর হচ্ছে- ০২০৮৫০২৬০০০, মোবাইল -০৭৭২৯৭০৭০১৩, ইমেইল [email protected]

জন্স হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, যুক্তরাজ্যে এ পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৪৮ হাজার ৩৮৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৯৪৩ জনের। 

/এএ/

লাইভ

টপ