চীনের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের হুমকি ট্রাম্পের

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:৩৯, মে ১৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০০:১৩, মে ১৬, ২০২০

করোনা মহামারির কারণে চীনের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাক্ষরিত একটি বাণিজ্য চুক্তি অকার্যকর হয়ে পড়ার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে কথা বলার আগ্রহ আর নেই জানিয়ে দেশটির সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্নের আভাসও দিয়েছেন তিনি। বৃহস্পতিবার ফক্স বিজনেস নেটওয়ার্কে সম্প্রচারিত এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ ইঙ্গিত দিয়েছেন বলে জানিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম গার্ডিয়ান।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের উহান শহর থেকে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাস যুক্তরাষ্ট্রে ১৪ লাখের বেশি মানুষকে আক্রান্ত করেছে। এরমধ্যে মৃত্যু হয়েছে প্রায় ৯০ হাজারের। প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিযোগ, প্রাথমিক অবস্থায় ভাইরাসটি নিয়ন্ত্রণের সুযোগ থাকলেও চীন তা আমলে নেয়নি। অনেকেই মনে করেন দেশটিকে শায়েস্তা করার উপায় খুঁজছে ট্রাম্প প্রশাসন। ভাইরাসটির উৎস অনুসন্ধানে মার্কিন বিজ্ঞানীদের দেশটিতে প্রবেশ করতে দেওয়ার জন্যও চাপ দিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। তবে মার্কিন দাবি অস্বীকার করে চীন বলছে, প্রেসিডেন্ট নির্বাচন সামনে থাকায় মহামারি থেকে মানুষের নজর সরানোর চেষ্টা চালাচ্ছে ট্রাম্প প্রশাসন।

দুই দেশের বাণিজ্যযুদ্ধ থামাতে গত জানুয়ারিতে চুক্তি স্বাক্ষর করে চীন ও যুক্তরাষ্ট্র। ওই চুক্তিকে তখন বড় অর্জন আখ্যা দেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে মহামারি সেই চুক্তির ওপর ‘পর্দা টেনে দিয়েছে’ বলে ফক্স নিউজকে জানান তিনি। তিনি বলেন, তাদের এমনটা হতে দেওয়া উচিত হয়নি। সে কারণে তাদের সঙ্গে করা একটি চমৎকার চুক্তিকে এখন আমার আর সে রকম মনে হচ্ছে না। কালি প্রায় শুকিয়ে গেছে, মহামারি শেষ হয়ে আসছে। আর সে কারণে চুক্তিটি নিয়ে আমার আগের অনুভূতি হচ্ছে না।’

চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সঙ্গে একসময় চমৎকার সম্পর্ক থাকার বলে এলেও এদিন তাকে নিয়ে বিরক্তি প্রকাশ করেন ট্রাম্প। বলেন, ‘এই মুহূর্তে তার সঙ্গে আর কথা বলতে চাই না আমি।’ চীনের বিরুদ্ধে কোনও ধরনের পদক্ষেপ নিতে চান জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমরা করতে পারি এরকম বহু কিছু আছে... আমরা পুরো সম্পর্ক ছিন্নও করতে পারি।’

ট্রাম্প বলেন, ‘এখন যদি করা হয় তাহলে কী হবে? ৫০০ বিলিয়ন ডলার বেঁচে যাবে।’ উল্লেখ্য, চীনের কাছ থেকে যুক্তরাষ্ট্র বছরে প্রায় ৫০০ বিলিয়ন ডলারের পণ্য আমদানি করে থাকে। এই আমদানিকে তিনি অপচয় হিসেবে অভিহিত করে আসছেন।

/জেজে/এমওএফ/

লাইভ

টপ