করোনার ‘অস্তিত্বের কথা জানতো না’ উহানের ল্যাব

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৭:০১, মে ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:০৭, মে ২৪, ২০২০

কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাব শুরুর আগে রোগটির বাহক নতুন করোনাভাইরাস সম্পর্কে কিছুই জানা ছিল না বলে দাবি করেছে উহানের ভাইরোলজি ইনস্টিটিউট। চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম সিজিটিএনকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক ওয়াং ইয়ানয়ি এই দাবি করেন।চীনের এই গবেষণাগারথেকে ভাইরাসটি ছড়িয়েছে বলে অভিযোগ যুক্তরাষ্ট্রের

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের দাবি, উহানের ওই ল্যাব থেকেই নতুন করোনাভাইরাসটি ছড়িয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের ধারণা,  ওই ল্যাবে কৃত্রিমভাবে ভাইরাসটির জন্ম দেওয়া হয়েছে। এই দাবির প্রতি সমর্থন রয়েছে পশ্চিমা দেশগুলোর একাংশের। তবে বিজ্ঞানীরা এই দাবি নাকচ করে দিয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্র সরকারের শীর্ষ কর্মকর্তাদের এমন মনোভাবে তীব্র প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছে চীন সরকার। আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয়লাভের সম্ভাবনা বাড়াতেই ট্রাম্প প্রশাসন এমন ‘নোংরা’ অভিযোগ করছে বলেও ভাষ্য বেইজিংয়ের।

ইয়ানয়ি সিজিটিএনকে জানিয়েছ্নে, গত বছরের ৩০ ডিসেম্বর উহানে প্রাদুর্ভাব শনাক্তের পর প্রথম একটি ক্লিনিক্যাল নমুনা পেয়ে ভাইরাসটি নিয়ে গবেষণা শুরু হয়। ‘এর আগে ভাইরাসটি সম্পর্কে আমাদের কোনও ধারণা ছিল না। কখনও এর মুখোমুখিও হইনি, গবেষণা বা সংরক্ষণও করিনি। অন্য সবার মতো ভাইরাসটির অস্তিত্বের কথা জানতামই না আমরা। যেটি আমাদের কাছে ছিলই না, সেটি কীভাবে আমাদের এখান থেকে ছড়াবে,’ প্রশ্ন তুলেছেন ইয়ানয়ি।

বাদুড় থেকে আসা দুটি করোনাভাইরাসের সংমিশ্রণে নতুন এ ভাইরাসের উদ্ভব হয়েছে; এমন অনুমানও উড়িয়ে দিয়েছেন ইয়ানয়ি।

নতুন করোনাভাইরাসটি মানুষের তৈরি, এ ষড়যন্ত্র তত্ত্ব বিশ্বের অধিকাংশ বিজ্ঞানীই প্রত্যাখ্যান করেছেন। ২৭ ফেব্রুয়ারি ল্যানচেট মেডিকেল জার্নালে লেখা এক চিঠিতে যুক্তরাষ্ট্রের সরকারি স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা এ ধরনের ষড়যন্ত্র তত্ত্বের নিন্দা জানিয়েছিলেন। বৈজ্ঞানিক প্রমাণের উদ্ধৃতি দিয়ে ‘এই করোনাভাইরাসটি বন্য প্রাণী থেকে আবির্ভূত হয়েছে’ বলে সিদ্ধান্ত জানিয়েছিলেন তারা।

/জেজে/বিএ/

লাইভ

টপ