আফগানিস্তানে তালেবান অবস্থানে মার্কিন বিমান হামলা

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ২২:২০, জুন ০৫, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২২:২২, জুন ০৫, ২০২০

আফগান সরকার ও তালেবানদের মধ্যকার অস্ত্রবিরতির মেয়াদ শেষের দুই সপ্তাহের মাথায় প্রথমবার দেশটিতে বিমান হামলা চালিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আফগানিস্তানে মার্কিন বাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল সোন্নি লেজেট জানিয়েছেন, শুক্রবার বিকেলে ফারাহ প্রদেশে আফগান বাহিনীর ওপর হামলা চালানো ২৫ তালেবান যোদ্ধাকে লক্ষ্য করে বিমান হামলা চালানো হয়েছে। আফগান সরকারের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, হামলায় গোষ্ঠীটির এক সিনিয়র কমান্ডারসহ ১৩ সদস্য নিহত হয়েছে। তবে এই হামলা নিয়ে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া জানায়নি তালেবান। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

ঈদুল ফিতর উপলক্ষে তালেবানদের ঘোষিত তিন দিনের অস্ত্রবিরতি শেষ হওয়ার পর পারওয়ান প্রদেশের একটি চেকপোস্টে তালেবান হামলার ঘটনা ঘটে। এতে নিরাপত্তা বাহিনীর অন্তত ১৪ সদস্য নিহতহয়। পাল্টা হামলায় তালেবানরাও হতাহত হয় বলে দাবি করে আফগান কর্তৃপক্ষ।

শুক্রবার ফারাহ প্রদেশে বিমান হামলার পর মার্কিন বাহিনীর মুখপাত্র কর্নেল সোন্নি লেজেট জানান আগের রাতে কান্দাহার প্রদেশেও কয়েকটি তালেবান অবস্থানে হামলা চালানো হয়েছে। তিনি বলেন, ‘আমরা পুনর্ব্যক্ত করছি: শান্তি প্রক্রিয়া অব্যাহত রাখতে সব পক্ষকে অবশ্যই সহিংসতা কমাতে হবে।’

গত ফেব্রুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবানের মধ্যে সেনা প্রত্যাহারের চুক্তি স্বাক্ষরের পর আফগানিস্তানে সহিংসতা কমে আসবে বলে আশা করেছিলেন বহু পর্যবেক্ষক। তবে বন্দি বিনিময়ের পূর্ণাঙ্গ বাস্তবায়নে আফগান সরকারের অনীহায় শান্তি আলোচনা থমকে গেছে। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে দেশটিতে সরকারি বাহিনীর ওপর হামলার ঘটনাও বেড়েছে। তবে ঈদ উপলক্ষে শনিবার (২৩ মে) তিন দিনের যুদ্ধবিরতি ঘোষণার পর তাকে স্বাগত জানায় পাঁচটি প্রভাবশালী দেশ। তালেবানদের ঘোষণার পর আফগান সরকারের ইতিবাচক প্রতিক্রিয়ায় অনেকেই যুদ্ধ বিধ্বস্ত দেশটিতে শান্তি প্রতিষ্ঠার আশা করেছিলেন।

/জেজে/

লাইভ

টপ