আর্মেনিয়া-আজারবাইজান সংঘাত: যুদ্ধবিরতির উদ্যোগে তুরস্কের সমর্থন চায় রাশিয়া

Send
বিদেশ ডেস্ক
প্রকাশিত : ০২:২১, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ০২:২৩, সেপ্টেম্বর ৩০, ২০২০

নাগোরনো-কারাবাখ অঞ্চল নিয়ে আর্মেনিয়া ও আজারবাইজানের মধ্যকার রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ বন্ধ করতে কাজ করার জন্য তুরস্কের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে রাশিয়া। চলমান এই সংঘর্ষে আজারবাইজানের পক্ষে অবস্থান নিয়েছে তুরস্ক। এই প্রেক্ষাপটে মঙ্গলবার রাশিয়ার পক্ষ থেকে এই আহ্বান জানানো হয়েছে। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এখবর জানিয়েছে।

আজারবাইজান ও আর্মেনিয়ার মধ্যে টানা তৃতীয় দিনের মতো রক্তক্ষয়ী সংঘাত অব্যাহত রয়েছে। রবিবার শুরু হওয়া মঙ্গলবারও লড়াই চালিয়ে গেছে উভয় দেশের সেনারা। এরইমধ্যে নারী ও শিশুসহ অন্তত ৯৫ জন নিহত হয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে উভয় পক্ষের প্রতি যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান বলেছেন, আর্মেনিয়াকে অবশ্যই আজারবাইজানের ভূখণ্ড ছাড়তে হবে। অন্যদিকে এ সংঘাত থেকে তুরস্ককে দূরে রাখতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে আর্মেনিয়া।

সোমবার রুশ প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেন, আমরা সব পক্ষকে বিশেষ করে মিত্র দেশ তুরস্কের প্রতি আহ্বান জানাচ্ছে যুদ্ধবিরতি ও সংঘাতের শান্তিপূর্ণ সমাধানের রাজনৈতিক ও কূটনৈতিক উপায়ে সম্ভাব্য সব কিছু করার জন্য।

তিনি আরও বলেন, এমন পরিস্থিতিতে যে কোনও পক্ষকে যে কোনও ধরনের সমর্থন ও সামরিক কর্মকাণ্ড জ্বলন্ত আগুনে ঘি ঢালবে নিশ্চিতভাবে।

আর্মেনিয়া অভিযোগ করেছে, আজারবাইজানের ঘনিষ্ঠ মিত্র তুরস্ক সংঘাতে ভাড়াটে সেনা পাঠাচ্ছে। এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে আঙ্কারা।

তুরস্ক ও আর্মেনিয়ার মধ্যে বিরোধপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন দেশগুলোর একটি সামরিক জোটের সদস্য রাশিয়া। যে জোটে আর্মেনিয়া রয়েছে এবং দেশটিতে একটি রুশ সামরিক ঘাঁটি রয়েছে। অবশ্য আজারবাইজান ও আর্মেনিয়া, উভয় দেশের কাছেই অস্ত্র সরবরাহ করে মস্কো।

পেসকভ জানিয়েছেন, রাশিয়ার পক্ষ থেকে তিন দেশের সঙ্গেই নিবিড় যোগাযোগ রাখা হচ্ছে। 

/এএ/

লাইভ

টপ