ঢাকায় ফের এমিরেটসের ফ্লাইট শুরু, তবে অফিস বন্ধ

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ২০:০০, জুন ২৪, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ২০:০৯, জুন ২৪, ২০২০

এমিরেটসের উড়োজাহাজঢাকা থেকে এমিরেটসের নিয়মিত ফ্লাইট আজ বুধবার (২৪ জুন) থেকে পুনরায় শুরু হলো। তবে ঢাকায় সংযুক্ত আরব আমিরাতের পতাকাবাহী এই বিমান সংস্থার কার্যালয় অনির্দিষ্ট সময়ের জন্য বন্ধ থাকবে। ফলে যাবতীয় সমস্যার সমাধান কিংবা যেকোনও তথ্য পেতে যাত্রীদের ভরসা কল সেন্টার।

বুধবার (২৪ জুন) এক বিজ্ঞপ্তিতে এমিরেটস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ঢাকা থেকে সপ্তাহে তিনটি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে। এক্ষেত্রে যাত্রীদের যাতায়াতের জন্য থাকছে বোয়িং ৭৭৭-৩০০ ইআর। এমিরেটসের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট ও ট্রাভেল এজেন্টদের মাধ্যমে টিকিট কেনা যাবে।
জানা গেছে, বুধবার রাত ১১টা ২০ মিনিটি দুবাই থেকে এমিরেটসের একটি ফ্লাইট যাত্রী নিয়ে ঢাকায় আসবে। এরপর দিবাগত রাত ১টা ৩০ মিনিটে ফের যাত্রী নিয়ে রওনা হবে একই উড়োজাহাজ।

জানা গেছে, বাংলাদেশ থেকে ভ্রমণকারীরা দুবাই হয়ে ইউরোপ, আমেরিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন গন্তব্যে যেতে পারবেন। তবে যাত্রীদের নির্দিষ্ট গন্তব্যে প্রবেশের জন্য ইমিগ্রেশনসহ নির্ধারিত অন্যান্য শর্তাবলী পূরণ করা বাধ্যতামূলক। কারণ বিভিন্ন দেশে ভ্রমণের ক্ষেত্রে বিধিনিষেধ রয়েছে।
যাত্রী ও কর্মীদের নিরাপত্তার জন্য এমিরেটস যাত্রীদের সৌজন্যমূলকভাবে হাইজিন কিট দিচ্ছে। এর মধ্যে রয়েছে মাস্ক, গ্লাভস, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ও এন্টিব্যাক্টেরিয়াল ওয়াইপস। 
বাংলাদেশে এমিরেটসের এরিয়া ম্যানেজার সাঈদ আবদুল্লা মিরান বলেন, ‘বাংলাদেশে আমাদের গ্রাহকদের শিডিউল ফ্লাইটের মাধ্যমে ইউরোপ, আমেরিকা ও মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন গন্তব্যে ভ্রমণের সুযোগ করে দিতে পেরে আমরা আনন্দিত।’

গ্রাহকদের সহায়তায় এমিরেটসের কল সেন্টার (০১৬১৪৫৫২৩১০-১৪, ০১৩১৩৪৫০২৫১-৫৩) শনি থেকে বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। তবে এই বিজ্ঞপ্তিতে টিকিটের ভ্রমণ তারিখ পরিবর্তন ও রি-ইস্যু নিয়ে কোনও তথ্য জানানো হয়নি।
এর আগে এমিরেটস ঘোষণা দিয়েছিল, ৩১ মার্চ পর্যন্ত ক্রয়কৃত টিকিটের ভ্রমণ তারিখ পরিবর্তন ও রি-ইস্যুর ক্ষেত্রে বাড়তি ফি দিতে হবে না। এর অংশ হিসেবে ৭ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত ক্রয়কৃত সব টিকিটের ক্ষেত্রে ক্যানসেলেশন ও রিফান্ড ফি প্রত্যাহার করেছে সংস্থাটি।

এদিকে আগামী ৭ জুলাই থেকে ব্যবসা ও ভ্রমণের জন্য দুবাই উন্মুক্ত করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এজন্য আকাশপথে চলাচলের নতুন প্রটোকল অনুসরণ করা হবে। ইউএই নাগরিক ও বাসিন্দা আর বিদেশি পর্যটকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা ব্যবস্থা নিশ্চিত করাই এর উদ্দেশ্য।
৭ জুলাইয়ের আগ পর্যন্ত ঢাকার যাত্রীরা শুধু দুবাইয়ে ট্রানজিট নিয়ে বিভিন্ন গন্তব্যে ভ্রমণের সুযোগ পাবেন। তবে ইউএই নাগরিকরা দুবাই আসা-যাওয়া করতে পারবেন। দুবাই ভ্রমণের জন্য বিদেশি নাগরিকদের কোভিড-১৯ সংক্রান্ত স্বাস্থ্যবিমা পলিসি থাকা বাধ্যতামূলক।

অন্যদিকে আগামী ১৫ জুলাই থেকে জার্মানির মিউনিখে চলাচল শুরু করবে এমিরেটস। অত্যাধুনিক এয়ারবাস এ৩৮০ উড়োজাহাজের মাধ্যমে লন্ডনের হিথ্রো বিমানবন্দর ও প্যারিসে ফ্লাইট পরিচালনা করবে এই বিমান সংস্থা। করোনা মহামারির কারণে মার্চ থেকে এমিরেটস বহরের এই উড়োজাহাজ মাটিতে পড়ে আছে।

এমিরেটসের প্রধান অপারেটিং কর্মকর্তা আদেল আল রেধা বলেন, ‘এয়ারবাস এ৩৮০ উড়োজাহাজে রয়েছে অনন্য বৈশিষ্ট্য। এটি যাত্রীদের মধ্যে ব্যাপক জনপ্রিয়। ভ্রমণ চাহিদা বিবেচনা করে ক্রমান্বয়ে অন্যান্য গন্তব্যে এই মডেলের বিমান ব্যবহারের অপেক্ষায় আছি আমরা।’

/সিএ/জেএইচ/
টপ