X
রবিবার, ২৯ জানুয়ারি ২০২৩
১৪ মাঘ ১৪২৯

ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনে হামলার ঘটনায় আরও ১৭ জন শনাক্ত

নুরুজ্জামান লাবু
৩০ এপ্রিল ২০১৮, ২৩:১২আপডেট : ০২ মে ২০১৮, ০১:২৮

ঢাবি উপাচার্যের বাসায় ভাঙচুর কোটা সংস্কার আন্দোলন চলাকালীন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. আখতারুজ্জামানের বাস-ভবনে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনায় আরও ১৭ জনকে শনাক্ত করেছে মামলার তদন্তকারী সংস্থা ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। হামলার আগে ও পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার বিভিন্ন সিসিটিভি ফুটেজ দেখে তাদের শনাক্ত করা হয়। বিশেষ করে ফুলার রোডে বৃটিশ কাউন্সিলের সামনের সড়কে থাকা সিসিটিভি ফুটেজ থেকে বেশ কয়েকজনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এদের বেশিরভাগই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বলে জানিয়েছে তদন্ত সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা।

ঢাকা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মাসুদুর রহমান বলেন, ‘গ্রেফতারদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। তারা কার নির্দেশে উপাচার্যের বাসায় হামলা চালিয়েছিল এবং তাদের সঙ্গে আর কারা কারা ছিল, তা জানার চেষ্টা চলছে।’

এর আগে রবিবার দুপুরে রাজধানীর চানখাঁরপুল এলাকা থেকে রাকিবুল হাসান ওরফে রাকিব (২৬), মাসুদ আলম ওরফে মাসুদ (২৫), আলী হোসেন শেখ ওরফে আলী (২৮) এবং আবু সাইদ ফজলে রাব্বী ওরফে সিয়াম (২০) নামে চার জনকে গ্রেফতার করে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। গ্রেফতারের পর বিকালে তাদের ঢাকার মুখ্যমহানগর হাকিম আদালতে সোপর্দ করে রাকিবের চার দিন, মাসুদের তিন দিন, আলী হোসেন ও আবু সাইদকে দুই দিন করে রিমান্ডে নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: ঢাবি উপাচার্যের বাসভবনে ভাঙচুর মামলায় ৪ জন রিমান্ডে

তদন্ত সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, গ্রেফতার হওয়া চার জনের কাছ থেকে দুটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়েছে, যার মধ্যে একটি মোবাইল হামলার দিন উপাচার্যের বাসা থেকে অন্যান্য জিনিসপত্রের সঙ্গে লুট করে নিয়ে গিয়েছিল হামলাকারীরা। ওই মোবাইলটি সিয়ামের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে সিয়াম হামলার সময় মোবাইলটি লুট করে নিয়ে যায় বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকারও করেছে। গ্রেফতার হওয়া চার জনের মধ্যে মাসুদ ঢাকা আলিয়া মাদ্রাসার ছাত্র হলেও বাকি তিন জন কর্মজীবী। রাকিবের নামে বরিশাল ও লক্ষ্মীপুরে পাঁচটি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে তদন্ত সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা।

তদন্ত সংশ্লিষ্ট একজন কর্মকর্তা জানান, ঘটনার পরপরই তারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে বিশ্লেষণ শুরু করেন। এছাড়া যে দুটি মোবাইল খোয়া গিয়েছিল, তথ্য প্রযুক্তির মাধ্যমে তাও শনাক্তের চেষ্টা করা হয়। তদন্তে গ্রেফতার হওয়া এই চার জন ছাড়াও আরও অন্তত ১৭ জনের সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়া যায়। হামলার পর এদের বেশিরভাগই ফুলার রোড দিয়ে ক্যাম্পাস থেকে বের হয়ে যায়। সূত্র জানায়, সিসিটিভি ফুটেজে পাওয়া ছবি সংগ্রহ করে তাদের শনাক্ত করতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের সহায়তা নেওয়া হয়। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বিভিন্ন হলের প্রভোস্টের সহায়তায় হামলা-ভাঙচুরে অংশগ্রহণকারীদের শনাক্ত করে। এর মধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজয় একাত্তর হলের কয়েকজন শিক্ষার্থীও রয়েছে বলে জানা গেছে। তারা কে কোন বিষয়ের ছাত্র এবং গ্রামের বাড়িসহ বর্তমান অবস্থানও গোয়েন্দা নজরদারির মধ্যে রয়েছে।

উল্লেখ্য, কোটা সংস্কার আন্দোলন চলাকালীন গত ৯ এপ্রিল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আখতারুজ্জামানের বাস-ভবনে অজ্ঞাত দুষ্কৃতিকারীরা প্রবেশ করে ব্যপক ভাঙচুর চালায়। দুষ্কৃতিকারীরা উপাচার্যের বাসার নিচে থাকা চারটি গাড়ি ভাঙচুর করে আগুনে পুড়িয়ে দেয়। এ ঘটনায় পরদিন ১০ এপ্রিল বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র সিকিউরিটি অফিসার এস এম কামরুল আহ্সান বাদী হয়ে শাহবাগ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, গত ৯ এপ্রিল অজ্ঞাতপরিচয় মুখোশধারী সন্ত্রাসী ও দুষ্কৃতকারীরা লোহার রড, পাইপ, হ্যামার, লাঠি নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে উপাচার্যের বাসভবনে হামলা চালায়। তারা সীমানা দেয়াল টপকে এবং ভবনের মূল ফটকের তালা ভেঙে ভবনের ভেতরে ঢোকে। এ সময় বাসভবনে মূল্যবান জিনিসপত্র, আসবাব, ফ্রিজ, টিভি, লাইট, কমোড ও বেসিনসহ অনেক মালপত্র ভাঙচুর করা হয়। লুটও করা হয়। এছাড়া ভবনে রাখা দুটি গাড়ি পুড়িয়ে দেয় এবং আরও দুটি গাড়ি ভাঙচুর করে। হামলাকারীরা নিজেদের পরিচয় আড়াল করতে ভবনের সিসিটিভি ক্যামেরাগুলো ভেঙে ফেলে এবং আগুনে পুড়িয়ে নষ্ট করে ফেলে যায়।

 

/এনআই/
সর্বশেষ খবর
সংকট সমাধানে নতুন রাজনৈতিক বন্দোবস্ত দরকার
ওয়েবিনারে বক্তারাসংকট সমাধানে নতুন রাজনৈতিক বন্দোবস্ত দরকার
‘পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসতে বিএনপি-জামায়াত ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে’
‘পেছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসতে বিএনপি-জামায়াত ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে’
নির্বাচন কমিশন যথাসময়ে সংসদ নির্বাচনের তারিখ জানাবে: আইনমন্ত্রী
নির্বাচন কমিশন যথাসময়ে সংসদ নির্বাচনের তারিখ জানাবে: আইনমন্ত্রী
ফেনীতে ‘গোপন বৈঠক’ থেকে জামায়াতের ১২ নেতাকর্মী আটক
ফেনীতে ‘গোপন বৈঠক’ থেকে জামায়াতের ১২ নেতাকর্মী আটক
সর্বাধিক পঠিত
খাবারের দাম দ্বিগুণ, বাস মালিক-হাইওয়ে হোটেলগুলোর সিন্ডিকেট
খাবারের দাম দ্বিগুণ, বাস মালিক-হাইওয়ে হোটেলগুলোর সিন্ডিকেট
যে জুটি কখনও ব্যর্থ হয়নি
যে জুটি কখনও ব্যর্থ হয়নি
হিন্দি সিনেমা আমদানির পক্ষে রিয়াজ, দিলেন ব্যাখ্যাও
হিন্দি সিনেমা আমদানির পক্ষে রিয়াজ, দিলেন ব্যাখ্যাও
নতুন উচ্চতায় মাশরাফি
নতুন উচ্চতায় মাশরাফি
চলতি বছরেই ট্রেন যাবে কক্সবাজার
চলতি বছরেই ট্রেন যাবে কক্সবাজার