এগুলো পরিষ্কার করতে ভুলে যাচ্ছেন না তো?

Send
লাইফস্টাইল ডেস্ক
প্রকাশিত : ১৪:০০, নভেম্বর ০৫, ২০১৯ | সর্বশেষ আপডেট : ১৫:২১, নভেম্বর ০৫, ২০১৯

নিয়মিত ঘর পরিষ্কার করা হলেও বাড়িতে এমন কিছু জায়গা বা জিনিস থাকে যা চট করে পরিষ্কার করার কথা মনে আসে না। সে রকমই জিনিসের পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক টিপস জেনে নিন।

সুইচ বোর্ড
সুইচ বোর্ড
তাকিয়ে দেখুন সুইচ বোর্ডের দিকে। সুইচের মাথায় ধুলোর পুরু স্তর প্রায় সব বাড়িতেই দেখা যায়। বিশেষ করে রান্নাঘরের দিকের সুইচ বোর্ডের অবস্থা আরও করুণ। রীতিমতো তেল চিটচিটে ময়লার আস্তরণ খুঁজে পাবেন। তাছাড়া সুইচ বোর্ডে কিছু অব্যবহৃত সুইচ থাকেই। সেগুলোতেও ধুলো জমে থাকে।তবে সুইচ পরিষ্কার করার সময় খুব সতর্ক থাকুন। সুইচ পরিষ্কার করার জন্য প্রথমে পেপার টাওয়েলে ক্লিনার স্প্রে করুন। সরাসরি সুইচে ক্লিনার স্প্রে করবেন না। এবার সুইচ এবং বোর্ড ঘষে নিন। প্রয়োজনে রিপিট করুন। চটচটে ভাব এবং ফিঙ্গার প্রিন্ট উঠে যাবে। কখনই পানি দেবেন না। এবার শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে নিন।

সফট টয়
শিশু হোক বা বড়, সফট টয়ে সকলেরই খুব প্রিয়। তবে দীর্ঘদিন বাইরে থাকতে থাকতে সফট টয় যেমন ময়লা হয়ে যায়, তেমনি অনেক জীবানুর আখড়া হয়ে ওঠে। তাই খোলা অবস্থায় রাখা সফট টয় দুই-তিন মাস অন্তর পরিষ্কার করা উচিত। পরিষ্কার করার আগে ট্যাগ দেখে নিন। যদি ওয়াশেবল হয় তা হলে মাইল্ড ডিটারজেন্টে ভিজিয়ে রাখুন। এবার ব্রাশ দিয়ে ঘষে পরিষ্কার করে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। রোদ বাতাস আসে এমন জায়গায় মাদুর বিছিয়ে সফট টয় শুকিয়ে নিন। যেসব টয় পানিতে ধোয়া যাবে না, সেগুলো একটি বড় ব্যাগে ভরে খানিকটা বেকিং সোডা দিন। এবার ব্যাগটা ভালো করে ঝাঁকিয়ে নিন। এরপর টয় বের করে ভ্যাকুয়াম ক্লিনারে ব্রাশ অ্যাটাচ করে পরিষ্কার করুন। ছোট টয়ের ক্ষেত্রে সাধারণ টুথব্রাশ দিয়েও পরিষ্কার করতে পারেন। এবার শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে নিন। ডেলিকেট সফট টয় ড্রাই ক্লিন করান।

সফট টয়
আসবাবের নিচের মেঝে
মেঝে প্রায় প্রতিদিন পরিষ্কার করা হলেও সোফার পেছন অথবা খাটের নিচের অংশের দিকে সেভাবে মনোযোগ দেওয়া হয় না। তাই অচিরেই এই জায়গাগুলোতে পুরু ময়লার স্তর জমে যায়। এই ধরনের কোণা পরিষ্কার করার জন্য ভ্যাকুয়াম ক্লিনারই আদর্শ। এতে আলগা ধুলো সাফ হয়ে যাবে। একটি পাত্রে মাইল্ড ডিটারজেন্ট মিশিয়ে নিন, লম্বা হ্যান্ডেলযুক্ত মপ দিয়ে খাটের তলা বা সোফার পিছন মুছে ফেলুন। এরপর পরিষ্কার পানি দিয়ে আরও একবার মুছে নিন। মেঝে ঝকঝক করবে। 
আয়না
দীর্ঘদিন ব্যবহারের কারণে আয়নায় দাগ পড়ে যায়। আয়না পরিষ্কার রাখা কিন্তু নিতান্তই সহজ কাজ। এজন্য প্রথমে স্প্রে বোতলে কুসুম গরম পানি এবং কয়েক ফোঁটা লিক্যুইড সাবান দিয়ে ভালো করে ঝাঁকিয়ে নিন। এবার আয়নায় এই মিশ্রণ স্প্রে করুন। একটি পরিষ্কার শুকনো সুতির কাপড়, পেপার টাওয়েল অথবা খবরের কাগজ দিয়ে আয়না ভালোভাবে মুছে নিন।
টিউব লাইট
ঘর পরিষ্কার করার সময় ফ্যান পরিষ্কার করা হলেও টিউব লাইটের কথা আমরা প্রায় ভুলেই যাই। কিন্তু টিউব লাইটে দীর্ঘদিন ধুলো জমতে থাকলে আলোর উজ্জ্বলতাও কমে আসে। টিউব লাই পরিষ্কার করার জন্য এক মগ পানিতে খানিকটা তরল সাবান মেশান। এবার টাওয়েল জাতীয় কাপড় পানিতে ভিজিয়ে ভালো করে নিংড়ে লাইট মুছে ফেলুন। ময়লা বেশি থাকলে বার দু’য়েক রিপিট করুন। এবার শুকনো কাপড় দিয়ে মুছে নিন। 

/এনএ/

লাইভ

টপ