X
বৃহস্পতিবার, ২৭ জানুয়ারি ২০২২, ১২ মাঘ ১৪২৮
সেকশনস

সমৃদ্ধশালী দেশ গড়তে নারীদের সক্ষমতাকে ব্যবহারের আহ্বান স্পিকারের

আপডেট : ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ২২:২৬

জাতীয় সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, ‘নারীরা কঠিন সময়ে হাল ছেড়ে দেয় না। নারীদের এই সক্ষমতাকে জাতীয় উন্নয়নে ব্যবহার করতে হবে। এর মাধ্যমে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ক্ষুধা-দারিদ্রমুক্ত সমৃদ্ধশালী স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার পথ সম্প্রসারিত হবে।’ শুক্রবার (৩ ডিসেম্বর) রাজধানীর হাতিরঝিল অ্যাম্ফিথিয়েটারে ‘বিজয়ের ৫০ বছর-লাল সবুজের মহোৎসব’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে তিনি এসব বলেন।

স্পিকারের দৃষ্টিতে, ‘বাহান্নর ভাষা আন্দোলন থেকে মুক্তিযুদ্ধসহ সকল সময়েই আন্দোলন-সংগ্রাম-দুঃসময়ে নারীদের ভূমিকা ছিল অপরিসীম। বাংলার স্বাধীনতার ইতিহাসের সঙ্গে নারীদের অবদান ওতপ্রোতভাবে জড়িত। একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে সম্মুখ সমরে অস্ত্র হাতে যুদ্ধ করেছে বাংলার নারীরা।’

রংপুর-৬ আসনের এই সংসদ সদস্যের কথায়, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ নারীর ক্ষমতায়নের উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত। নারীদের এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য সবক্ষেত্রে সুযোগ সৃষ্টির মাধ্যমে বহুমুখী কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে সরকার। অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হওয়ার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত গ্রহণের জায়গায় নারীদের মতামতের মূল্যায়নে সরকার বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করছে। দেশের সামগ্রিক উন্নয়নে নারীরা আজ উল্লেখযোগ্য অবদান রাখতে পারছে।’

এফবিসিসিআইয়ের উদ্যোগে ও ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএনসিসি) সার্বিক সহযোগিতায় চলছে ১৬ দিনব্যাপী ‘বিজয়ের ৫০ বছর-লাল সবুজের মহোৎসব’। এমন একটি আয়োজন সফলভাবে বাস্তবায়নে সহযোগিতার জন্য প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানকে ধন্যবাদ দেন স্পিকার। তিনি মনে করেন– মুজিববর্ষ, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও বিজয়ের মাসে লাল সবুজের মহোৎসব আয়োজন সকলকে অনুপ্রাণিত করবে।

শুক্রবারের অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআইয়ের সভাপতি মো. জসিম উদ্দিনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা দেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি শফিউল ইসলাম মহিউদ্দীন সম্মানিত অতিথি এবং ডিএনসিসি মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম।

/ইএইচএস/জেএইচ/
সম্পর্কিত
সমৃদ্ধ অঞ্চল গড়ে তুলতে ভারতের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ
সমৃদ্ধ অঞ্চল গড়ে তুলতে ভারতের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ
আসছে আরও ১৭টি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস
আসছে আরও ১৭টি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস
‘যুক্তরাষ্ট্র থেকে পাওয়া অনুদানের হিসাব দেননি শিল্পকলার ডিজি’
‘যুক্তরাষ্ট্র থেকে পাওয়া অনুদানের হিসাব দেননি শিল্পকলার ডিজি’
টিআইর রিপোর্ট পক্ষপাতদুষ্ট: তথ্যমন্ত্রী
টিআইর রিপোর্ট পক্ষপাতদুষ্ট: তথ্যমন্ত্রী
ইউক্রেন যুদ্ধ পরিস্থিতি

ঢাকাকে নিজেদের অবস্থান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র-রাশিয়া

আপডেট : ২৬ জানুয়ারি ২০২২, ২২:০১

ইউক্রেন সীমান্তে সেনা সমাবেশ করছে রাশিয়া। শুধু তা-ই নয়, পার্শ্ববর্তী দেশ বেলারুশেও রুশ সৈন্য মোতায়েন করা হয়েছে। যাতে প্রয়োজনে ওই দেশ থেকেও আক্রমণ করা যায়। পূর্ব ইউরোপের দেশ ইউক্রেনকে সহায়তা করার জন্য যুক্তরাষ্ট্র ও ন্যাটো জোট একসঙ্গে কাজ করছে। এরকম যুদ্ধ পরিস্থিতির মধ্যে বাংলাদেশের সঙ্গেও যোগাযোগ করছে ওয়াশিংটন ও মস্কো। ইতোমধ্যে আমেরিকা তাদের আনুষ্ঠানিক অবস্থান জানিয়ে ডিমারশে লেটার দিয়েছে বাংলাদেশকে। অন্যদিকে বুধবার (২৬ জানুয়ারি) রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত আলেকজান্ডার ম্যানটিটস্কি পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের সঙ্গে দেখা করে তার দেশের অবস্থান ব্যাখ্যা করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র সচিব বাংলা ট্রিবিউনকে বুধবার সন্ধ্যায় বলেন, ‘দুপক্ষই তাদের অবস্থান জানিয়েছে।’

এ প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশ কী অবস্থান নেবে জানতে চাইলে পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘আমরা যেকোনও সংঘাতের বিরোধী। আমরা মনে করি আলোচনার মাধ্যমে শান্তিপূর্ণ অবস্থানে পৌঁছানো সম্ভব। আমরা আশা করি সব পক্ষ সংঘাত পরিহার করে নিজেদের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে একটি সমাধানে আসবে।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে সাবেক পররাষ্ট্র সচিব শহীদুল হক বলেন, সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার পর থেকে ওই অঞ্চলটিতে রাষ্ট্র গঠন প্রক্রিয়া আগেও স্থিতিশীল ছিল না, এখনও নেই। নতুন স্নায়ুযুদ্ধের প্রেক্ষাপটে ইউক্রেনে সংঘাতময় পরিস্থিতি বিশ্বকে আরও অস্থিতিশীল করতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, ইউক্রেনের সঙ্গে বাংলাদেশের দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক কম কিন্তু বহুপক্ষীয় ব্যবস্থায় বাংলাদেশকে এ বিষয়ে সম্পৃক্ত করার জন্য উভয়পক্ষ অনুরোধ করবে।

তিনি বলেন, নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে বিষয়টি আলোচিত হবে না। কারণ, আমেরিকা ও রাশিয়া উভয়ই ভেটো ক্ষমতার অধিকারী। সেক্ষেত্রে সাধারণ অধিবেশনে বিষয়টি নিয়ে আলোচনার সম্ভাবনা বেশি। যার সদস্য বাংলাদেশ। আবার জেনেভাতে মানবাধিকার কাউন্সিলে ইউক্রেন বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করার চেষ্টা করতে পারে। সেখানেও ৪৭ সদস্যবিশিষ্ট কাউন্সিলে সদস্য হিসেবে রয়েছে বাংলাদেশ।

রাশিয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হলে বাংলাদেশের কী সমস্যা হতে পারে জানতে চাইলে আরেকজন কর্মকর্তা বলেন, রাশিয়ান প্রযুক্তিতে রূপপুর পারমাণবিক কেন্দ্র তৈরি হচ্ছে। এর কাজ অনেকটা শেষ। এক্ষেত্রে কী প্রভাব পড়বে সেটি নিষেধাজ্ঞা আরোপের আগে বলা মুশকিল।

/এসএসজেড/এমআর/এমওএফ/
সর্বশেষসর্বাধিক

লাইভ

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
সমৃদ্ধ অঞ্চল গড়ে তুলতে ভারতের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ
নরেন্দ্র মোদিকে শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা বার্তাসমৃদ্ধ অঞ্চল গড়ে তুলতে ভারতের সঙ্গে কাজ করবে বাংলাদেশ
আসছে আরও ১৭টি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস
আসছে আরও ১৭টি আঞ্চলিক পাসপোর্ট অফিস
‘যুক্তরাষ্ট্র থেকে পাওয়া অনুদানের হিসাব দেননি শিল্পকলার ডিজি’
‘যুক্তরাষ্ট্র থেকে পাওয়া অনুদানের হিসাব দেননি শিল্পকলার ডিজি’
টিআইর রিপোর্ট পক্ষপাতদুষ্ট: তথ্যমন্ত্রী
টিআইর রিপোর্ট পক্ষপাতদুষ্ট: তথ্যমন্ত্রী
ফখরুল সাহেব একটা ‘কমিক’ করেছেন: তথ্যমন্ত্রী
ফখরুল সাহেব একটা ‘কমিক’ করেছেন: তথ্যমন্ত্রী
© 2022 Bangla Tribune