X
বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
৪ বৈশাখ ১৪৩১

বিএনপি-জামায়াত বিভিন্ন দেশের রাজধানীতে ঘুরে বেড়াচ্ছে: কাজী নাবিল আহমেদ

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬:১৩আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৬:৫৬

মানুষের ওপর আস্থা হারিয়ে বিএনপি-জামায়াতের নেতারা বিভিন্ন দেশের রাজধানীতে ঘুরে বেড়াচ্ছেন বলে অভিযোগ করেছেন যশোর-৩ সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ। সরকারদলীয় এই এমপি বলেন, দেশের জনগণের ওপর বিএনপি-জামায়াতের আস্থা নেই। তারা আস্থা রেখেছে বিদেশিদের ওপরে। বিভিন্ন দেশের রাজধানীতে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ঢাকার বিভিন্ন দূতাবাসে ঘুরে বেড়াচ্ছে।

রবিবার (২৫ ফেব্রুয়ারি) জাতীয় সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

কাজী নাবিল আহমেদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর বাংলাদেশের মানুষের আস্থা রয়েছে। কারণ তার নেতৃত্বে বাংলাদেশে বর্তমানে যে উন্নয়ন হয়েছে তা সবার কাছে দৃশ্যমান। বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নির্বাচনে আমরা জয়লাভ করেছি। নির্বাচনের সময় আমরা শেখ হাসিনার উন্নয়নের কথা বলে ভোট প্রার্থনা করেছি।

টানা চতুর্থবারের মতো স্পিকার নির্বাচিত হওয়ায় শিরীন শারমিন চৌধুরীকে ধন্যবাদ জানিয়ে কাজী নাবিল আশা প্রকাশ করেন, বর্তমান স্পিকারের নেতৃত্বে আগামী ৫ বছর সংসদে প্রাণবন্ত ও দিকনির্দেশনামূলক আলোচনা হবে।

দেশের উন্নয়নের তুলনামূলক চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, ২০০৯ সালে মাথাপিছু আয় ৬০০ মার্কিন ডলারের কিছু বেশি ছিল। এখন তা বেড়ে হয়েছে ২৭০০ ডলার। ২০০৯ সালের জিডিপি ৬০ বিলিয়ন ডলার থেকে এখন ৪৫০ বিলিয়ন ডলার হয়েছে। বিদ্যুৎ উৎপাদনের সক্ষমতা ৩২০০ মেগাওয়াট থেকে বেড়ে ২৫ হাজারের মেগাওয়াটের বেশি। আমরা অবকাঠামো ও অর্থনৈতিক সূচক থেকে শুরু করে সব ক্ষেত্রে এগিয়ে চলেছি।

সরকারি দলের এই এমপি সরকারের উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরে বলেন, সব আন্তর্জাতিক ও জাতীয় চক্রান্তকে ছিন্ন করে দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের স্বপ্নের পদ্মা সেতু, বঙ্গবন্ধু টানেল, পায়রা সমুদ্রবন্দর, মহেশখালীতে এলএনজি টার্মিনাল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, মেট্রোরেল ও শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণসহ উন্নয়নের কাজ বলে শেষ করা যাবে না। সব উন্নয়নকাজ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী সবসময় মানুষের উন্নয়নের জন্য গুরুত্ব দিয়েছেন। সব সামাজিক সূচকে বাংলাদেশ এগিয়ে চলেছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, নারীর ক্ষমতায়ন, মাতৃসেবা, শিশু মৃত্যুরোধসহ সব ক্ষেত্রে এমডিজির ৮টি লক্ষ্যমাত্রার সব ক্ষেত্রেই উত্তরণ করেছে। এসডিজির ১৭টি গোলের সবগুলো লক্ষ্যমাত্রা অনুযায়ী এগিয়ে চলেছে। প্রতিটি সূচকে আমাদের উন্নয়ন হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী সবসময় বাংলার প্রান্তিক মানুষের বিষয়ে গুরুত্ব দিয়েছেন উল্লেখ করে কাজী নাবিল বলেন, আমাদের সামাজিক, অর্থনৈতিক, রাজনৈতিক সব উন্নয়ন তিনি প্রান্তিক মানুষের জন্য করেছেন। তারই চিন্তাপ্রসূত বয়স্কভাতা, বিধবাভাতা, স্বামী পরিত্যক্তা ভাতা, ভিজিএফ, ভিজিডি। তিনি সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরি করেছেন যাতে দেশের মানুষ সুরক্ষা পেতে পারে।

তিনি বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে যে অর্থনৈতিক চাপ ও সারা বিশ্বে যে টালমাটাল অবস্থা দেখা দিয়েছে, সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সব দেশের তুলনায় বহুলাংশে ভালো আছে।

নিজের নির্বাচনি এলাকার উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরে যশোর-৩ আসনের এই এমপি বলেন, ২০০৯ সালে প্রথমে যশোর জেলাকে ডিজিটাল জেলা হিসেবে ঘোষণা করা হয়। যশোরে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, মেডিক্যাল কলেজ, সফটওয়্যার আইটি পার্ক নির্মাণ করা হয়েছে। ভৈরব নদ খনন করা হয়েছে। যশোর এলাকায় চার লেন, ছয় লেনসহ বেশ কয়েকটি সড়ক মহাসড়ক নির্মাণ করা হয়েছে। ঢাকা থেকে যশোর ও যশোর থেকে মোংলা নতুন রেললাইন তৈরি হচ্ছে। এর ফলে খুলনা অঞ্চল দেশের তৃতীয় অর্থনৈতিক করিডোর হতে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী যখন উন্নয়নমূলক কাজ করে চলেছেন তখন তাকিয়ে দেখি বিএনপি-জামায়াত একাত্তর ও পঁচাত্তরের পরাজিত শক্তি ধ্বংসযজ্ঞে মেতে আছে। ২০০১-০৬ সাল পর্যন্ত তারা বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করার চেষ্টা করেছিল। গ্রেনেড হামলা, বোমা হামলা, বাংলাভাইয়ের উত্থান, বিচারপতি হত্যা, সিরিজ বোমা হামলা, এসব কাজ তারা করেছে। একই কাজ তারা করেছে ২০১৩, ১৪ ও ১৫ সালে। ২০২৩ সালের ২৮ অক্টোবর একই ধ্বংসযজ্ঞে তারা মেতে উঠেছিল। তারা প্রধান বিচারপতির বাড়িতে আক্রমণ করেছে। পুলিশকে হত্যা করেছে। খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের নেতৃত্বে সবসময় হত্যা, ধ্বংসযজ্ঞ চালানো এবং দেশকে পিছিয়ে দেওয়ার অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ তৈরির জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবসহ সব ক্ষেত্রে বাংলাদেশের দ্বার উন্মোচন হতে যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রীর কারণে। আমাদের ভালো দিনগুলো সামনে রয়েছে। সরকার যেভাবে উন্নয়ন করছে তাতে আগামী ৫ বছরে উন্নয়নের মধ্য দিয়ে ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট বাংলাদেশ তৈরির পথে এগিয়ে যাবো।

/ইএইচএস/এফএস/এমওএফ/
সম্পর্কিত
কৃষকরাই অর্থনীতির মূল চলনশক্তি: স্পিকার
কৃষিজমি সুরক্ষা ও ব্যবহার আইন দ্রুত পাস করতে সংসদকে হাইকোর্টের পরামর্শ
সংসদের দ্বিতীয় অধিবেশন আগামী মাসে
সর্বশেষ খবর
চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন: কোন পদে লড়ছেন কে
চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচন: কোন পদে লড়ছেন কে
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
মেট্রোরেল চলাচলে আসতে পারে নতুন সূচি
দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল আরোহী মামা-ভাগনে নিহত
দাঁড়িয়ে থাকা ট্রাকে ধাক্কা লেগে মোটরসাইকেল আরোহী মামা-ভাগনে নিহত
বৈশাখী মেলা বসানো নিয়ে দুই ‘কিশোর গ্যাংয়ের’ সংঘর্ষে যুবক নিহত
বৈশাখী মেলা বসানো নিয়ে দুই ‘কিশোর গ্যাংয়ের’ সংঘর্ষে যুবক নিহত
সর্বাধিক পঠিত
‘ভুয়া ৮ হাজার জনকে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে’
‘ভুয়া ৮ হাজার জনকে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে’
হজ নিয়ে শঙ্কা, ধর্ম মন্ত্রণালয়কে ‍দুষছে হাব
হজ নিয়ে শঙ্কা, ধর্ম মন্ত্রণালয়কে ‍দুষছে হাব
এবার নায়িকার দেশে ‘রাজকুমার’ 
এবার নায়িকার দেশে ‘রাজকুমার’ 
এএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
রেস্তোরাঁয় ‘মদ না পেয়ে’ হামলার অভিযোগএএসপি বললেন ‌‘মদ নয়, রাতের খাবার খেতে গিয়েছিলাম’
আজকের আবহাওয়া: দুই বিভাগে ঝড়ো হাওয়াসহ শিলা বৃষ্টির আভাস
আজকের আবহাওয়া: দুই বিভাগে ঝড়ো হাওয়াসহ শিলা বৃষ্টির আভাস