ওয়ান স্টপ সার্ভিসে যাচ্ছে বিসিক

Send
বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট
প্রকাশিত : ১৭:১১, জুলাই ২১, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১৭:১২, জুলাই ২১, ২০২০

বিসিকদেশি-বিদেশি বিনিয়োগকে আকৃষ্ট করতে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনকে (বিসিক) ওয়ান স্টপ সার্ভিস আইনে (২০১৮) অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। আইনটির ‘ক’ তফসিলে বিসিককে অন্তর্ভুক্ত করে ১৯ জুলাই (রবিবার) প্রজ্ঞাপন জারি করেছে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়। মঙ্গলবার (২১ জুলাই) শিল্প মন্ত্রণালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।
উল্লেখ্য, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা), বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষ (বেজা), বাংলাদেশ রফতানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষ (বেপজা) এবং বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের পর পঞ্চম প্রতিষ্ঠান হিসেবে বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশন (বিসিক)-এ আইনের অন্তর্ভুক্ত হলো।
প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ওয়ান স্টপ সার্ভিস আইন-২০১৮ -এ অন্তর্ভুক্তির ফলে অতি ক্ষুদ্র ,ক্ষুদ্র , কুটির ও মাঝারি শিল্পোদ্যোক্তারা বিসিকের মাধ্যমে ট্রেড লাইসেন্স, জমি নিবন্ধন, নামজারি, পরিবেশ ছাড়পত্র, নির্মাণ অনুমোদন, বিদ্যুৎ, গ্যাস ও পানি সংযোগ, টেলিফোনই সংযোগ, বিস্ফোরক লাইসেন্স, বয়লার সার্টিফিকেটসহ সংশ্লিষ্ট সব সেবার জন্য অনলাইনে আবেদন এবং এক জায়গা থেকেই এসব সেবা পাবেন। ফলে কোনও বিনিয়োগকারীকে প্রাথমিক অনুমোদন ও অন্যান্য সেবার জন্য আর সংশ্লিষ্ট সরকারি দফতরগুলোতে যেতে হবে না। বিনিয়োগকারীদের কোন সেবা কত দিনের মধ্যে দিতে হবে, সেটিও বিধির মাধ্যমে নির্ধারণ করা হবে।
বর্তমানে সারাদেশে বিসিকের ৭৬টি শিল্পনগরী রয়েছে। এছাড়া ২০৩০ সালের মধ্যে অর্থনৈতিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় ২০ হাজার একর জমিতে ৫০টি পরিবেশবান্ধব শিল্পপার্ক স্থাপনের মহাপরিকল্পনা হাতে নিয়েছে বিসিক। ওয়ান স্টপ সার্ভিস আইনে বিসিকের অন্তর্ভুক্তির ফলে এসব শিল্পনগরীতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ বৃদ্ধির পথ সুগম হবে।
বিসিকের চেয়ারম্যান মো. মোশতাক হাসান বলেন, ওয়ানস্টপ সুবিধা নিশ্চিত করতে শিগগিরই একটি প্রকল্প নেওয়া হবে। কনসালটেন্ট নিয়োগ দিয়ে বিসিক সদর দফতরে এজন্য একটি ফ্লোর ডেডিকেটেড করা হবে।
উল্লেখ্য, শিল্পনগরী প্রতিষ্ঠা, ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্পের নিবন্ধন দেওয়া, লবণ শিল্পের উন্নয়ন, প্রকল্প বাস্তবায়ন, উদ্যোক্তা উন্নয়নে প্রশিক্ষণ, নতুন উদ্যোক্তা সৃষ্টি, শিল্পায়নের মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি, উদ্যোক্তাদের নিজস্ব তহবিল থেকে ঋণ দেওয়া ও উৎপাদিত পণ্য বিপণনের জন্য দেশে-বিদেশে মেলার আয়োজন, নতুন নকশা ও নমুনা উদ্ভাবন, উদ্ভাবিত নকশা ও নমুনা বিতরণ, মধু শিল্পের উন্নয়নসহ সম্প্রসারণমূলক নানামুখী কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে থাকে বিসিক।

/এসএমএ/এমআর/

লাইভ

টপ