বিদেশি বন্ধুদের সঙ্গে তৎপরতায় বঙ্গবন্ধু

Send
উদিসা ইসলাম
প্রকাশিত : ০৮:০০, সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২০ | সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩১, সেপ্টেম্বর ২৪, ২০২০

(বিভিন্ন সংবাদপত্রে প্রকাশিত তথ্যের ভিত্তিতে ১৯৭২ সালে বঙ্গবন্ধুর সরকারি কর্মকাণ্ড ও তার শাসনামল নিয়ে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করছে বাংলা ট্রিবিউন। আজ পড়ুন ওই বছরের ২৩ সেপ্টেম্বরের ঘটনা।)

বিদেশে চিকিৎসা শেষে দেশে ফেরার পর একের পর এক আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক মহলের সঙ্গে বৈঠকে মিলিত হন  বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বাংলাদেশকে নানান সুবিধা দেওয়ার বিষয়ে তাদের সঙ্গে কথা হয়। এরই ধারাবাহিকতায় ১৯৭২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর  বাংলাদেশে নিয়োজিত ইন্দোনেশিয়ার চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাত করেন। একইসঙ্গে জাতিসংঘে অন্তর্ভুক্তি নিয়ে তখনও কোনও সিদ্ধান্তে  আসা সম্ভব হয়নি।

বাংলাদেশের পণ্যকে সাধারণ বাজারে বিশেষ সুবিধা

বাংলাদেশ সফররত ব্রিটিশ মন্ত্রী জিওফ্রে রিপন বলেছেন, ইউরোপীয় সদস্য দেশগুলো আমদানি শুল্ক আরোপের ব্যাপারে বাংলাদেশের পক্ষে বিশেষ সুবিধা দেবে। কারণ বাংলাদেশের প্রতি ইউরোপীয় সম্প্রদায়ের বিশেষ অনুভূতি রয়েছে। ২ দিনব্যাপী বাংলাদেশ সফর শেষে নয়া দিল্লির উদ্দেশে ঢাকা ত্যাগের প্রাক্কালে এক সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তৃতাকালে রিপন বলেন, ১৯৭৩ সালের জানুয়ারি মাসে ব্রিটেন সাধারণ বাজারের সদস্য হবে। যোগদানের পর ১৯৭৪ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত কমনওয়েলথভুক্ত দেশগুলো বিশেষ সুযোগ-সুবিধা পাবে। যোগদানের পর কমনওয়েলথ ভুক্ত দেশগুলো বাণিজ্য থেকে যাতে বিশেষ সুযোগ-সুবিধা পেতে পারে তা নিয়ে ব্রিটেন সাধারণ বাজারের অন্যান্য সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে কথাবার্তা বলছে। বিশেষ সমস্যাগুলোর সমাধান বের করার জন্য তারা চেষ্টা করছে। জিওফ্রে রিপন বলেন, ব্রিটেন ইউরোপীয় সাধারণ বাজারে যোগ দেওয়ার পর সাধারণ বাজারের অন্যান্য সদস্য দেশগুলোর ব্যবসা-বাণিজ্যের সঙ্গে বাংলাদেশের অবস্থা কী দাঁড়াবে সে সম্পর্কে আলাপ-আলোচনা করাই তার সফরের উদ্দেশ্য।

স্বাধীন রাষ্ট্রে শবেবরাত পালিত

১৯৭২ সালের ২৩ সেপ্টেম্বর দেশে শবেবরাত পালিত হয়। এ উপলক্ষে ছুটি থাকায় ২৪ তারিখ কোনও পত্রিকা বের হয়নি। শবেবরাত উপলক্ষে এইদিনে গণভবনে অনুষ্ঠিত মিলাদ মাহফিলে বঙ্গবন্ধু ও অন্যান্য নেতারা এক মিলাদ মাহফিলে বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন। ঢাকাসহ দেশের সর্বত্র এই দিনটি পালিত হয়। রোজা পালন, মিলাদ মাহফিল, কোরআন খানি থেকে শুরু করে যাবতীয় আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে দিনটি পালিত হয়। এ উপলক্ষে সারাদেশে সরকারি ছুটি ঘোষণা করা হয় তাই অফিস আদালত ও সকল বেসরকারি ব্যবসা বাণিজ্য প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছিল।

দুদিনে শহরে বিভিন্ন অভিযোগে ৭০ জন গ্রেফতার

২২ ও  ২৩ তারিখ এই দুইদিনে ঢাকা শহর পুলিশ বিভিন্ন অভিযোগের ৭০ জনকে গ্রেফতার করে। এর মধ্যে চারজন ছাত্র ছিল যাদের হাতেনাতে ধরা হয়। এছাড়া ৪৭ জনকে গভীর রাতে সন্দেহজনক চলাচলের জন্য গ্রেফতার করে পুলিশ। এইদিনে সিলেট এমসি কলেজ অধ্যাপক সৈয়দ রফিকুল আলম ইঞ্জিনিয়ারস ইনস্টিটিউটের রিকশাযোগে যাওয়ার সময় দুষ্কৃতিকারীরা তার হাতঘড়ি ও পার্স ছিনিয়ে নেন। ঘটনাস্থল থেকে কিছু দুরে গিয়ে কাকরাইলে তারা পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। তাদের কাছ থেকে শিক্ষকের খোয়া যাওয়া জিনিসপত্র উদ্ধার করা হয়। এদিকে পুরো দেশেই আইন-শৃঙ্খলা অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেন বঙ্গবন্ধু। তিনি স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে দুর্নীতিবাজ লুটতরাজে যুক্ত যেকোনও ব্যক্তির বিষয়ে পুলিশকে অবহিত করতে জনগণকে বেশ কয়েকবার আহ্বান জানান।

বাংলাদেশ-ভারত সাংস্কৃতিক চুক্তি

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও ইন্দিরা গান্ধীর স্বাক্ষরিত বাংলাদেশ-ভারত মৈত্রী চুক্তি অনুযায়ী অক্টোবর মাসের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলে পত্রিকার খবরে প্রকাশ করা হয়। উল্লেখ্য যে প্রস্তাবিত বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক চুক্তি প্রয়োজনীয় আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে। মন্ত্রী পরিষদের বৈঠক এর আগে মন্তব্য গ্রহণের কাজ চলছে।

বহিষ্কার নয় বিচার দাবি

বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টির সভাপতি মোজাফফর আহমেদ দুর্নীতি, ক্ষমতা অপব্যবহার ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত ১৯ জন গণপরিষদ সদস্য অবিলম্বে বিচারের দাবি জানান। তিনি বলেন, দল থেকে ১৯ জন সদস্যকে বহিষ্কার করলেই জনগণের স্বার্থ হাসিল হবে না। এদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দিতে হবে। বহুসংখ্যক দুর্নীতিবাজ গণপরিষদ সদস্যর মধ্যে বহিষ্কৃত ১৯ সংখ্যা হল খুবই নগণ্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগের উচিত এইসব দুর্নীতিপরায়ণ এসব এমসিএ এর অপকর্ম এবং অপরাধসমূহ জনসমক্ষে তুলে ধরা।

 

 



/এমআর/

লাইভ

টপ